পরশু লঞ্চের আগেই ফাঁস Mi 10T এবং Mi 10T Pro এর সম্পূর্ণ ফিচার

mi-10t-and-mi-10t-pro-all-specs-and-render-leaks-ahead-of-30-september-launch

কাল বাদে পরশু লঞ্চ হতে চলেছে Xiaomi Mi 10T সিরিজ। ইতিমধ্যেই কোম্পানির তরফে জানানো হয়েছে, ৩০ সেপ্টেম্বর ভারতীয় সময় বিকাল ৫:৩০ মিনিট থেকে অনুষ্ঠিত একটি ইভেন্টে এই সিরিজকে লঞ্চ করা হবে। আপাতত জানা গেছে এই সিরিজে দুটি ফোন থাকবে Mi 10T এবং Mi 10T Pro। কোম্পানির তরফে যদিও লঞ্চ ইভেন্ট ঘোষণা ছাড়া মি ১০টি সিরিজের স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে কিছু জানানো হয়নি। তবে একজন টিপ্সটার Mi 10T এবং Mi 10T Pro এর সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন ফাঁস করলো।

জনপ্রিয় টিপ্সটার Sudhanshu Ambhore, মি ১০টি সিরিজের ছবি সহ স্পেসিফিকেশন আজ পোস্ট করেছে। যেখানে ফোন দুটিকে ব্ল্যাক ও সিলভার কালারে দেখা গেছে। আবার এতে স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর, হাই রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে ও সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থাকবে বলে জানা গেছে।

Mi 10T স্পেসিফিকেশন (সম্ভাব্য)

মি ১০টি ৫জি ফোনে থাকবে ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে। এর আসপেক্ট রেশিও হবে ২০:৯ এবং রিফ্রেশ রেট হবে ১৪৪ হার্টজ। এছাড়াও এই ডিসপ্লেতে থাকবে DCI-P3 কালার গামুট এবং কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫। এই ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল। আবার এই ফোনে থাকবে স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর। ফোনটি ৮ জিবি র‌্যাম (LPDDR5) ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের (UFS 3.1) সাথে আসবে।

আবার Mi 10T ফোনে থাকবে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। যার প্রাইমারি ক্যামেরা হবে ৬৪ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও থাকবে ১৩ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল সেন্সর ও ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। এই ফোনের সামনে থাকবে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা, যেটি পাঞ্চ হোলের মধ্যে থাকবে। এতে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংয়ের সাথে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি থাকবে। চার্জিংয়ের জন্য এখানে পাবেন ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। সিকিউরিটির জন্য ফোনটির পাশে থাকবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। আবার এতে ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাকের সাথে থাকবে ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার।

Mi 10T Pro স্পেসিফিকেশন (সম্ভাব্য)

Mi 10T Pro ফোনে থাকতে পারে ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস আইপিএস স্ক্রিন। যার রেজুলেশন ২,৩৪০ x ১০৮০ পিক্সেল এবং রিফ্রেশ রেট ১৪৪ হার্টজ। ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য এতে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন থাকবে। এই ফোনটি কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসরের সাথে আসতে পারে। এতে গ্রাফিক্সের জন্য এড্রেনো ৬৫০ জিপিইউ ব্যবহার করা হবে। আবার পাবেন ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ স্টোরেজ বিকল্প। ৫জি কানেক্টিভিটির সাথে আসা এই ফোনের সাইডে থাকবে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। আবার এতে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হবে।

অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে মি ১০টি প্রো ফোনে থাকবে অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২। মি ১০টি প্রো ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ থাকবে। ফোনটির প্রাইমারি রিয়ার ক্যামেরা হবে ১০৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও ১৩ মেগাপিক্সেল ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স ও ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর থাকতে পারে। সেলফির জন্য থাকবে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। সিকিউরিটির জন্য এতেও সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর থাকবে। ফোনটি অতিরিক্ত ব্লু কালারেও পাওয়া যাবে।