গ্লোবাল মার্কেটে শীঘ্রই লঞ্চ হবে Mi 11 5G, দেখা গেল FCC সার্টিফিকেশন সাইটে

mi-11-5g-global-variant-spotted-on-fcc-certifications-site-launch-imminent

স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরের প্রথম ফোন হিসাবে গত বছরের শেষে লঞ্চ হয়েছে Mi 11 5G। এবার এই ফোনকে গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে Xiaomi। আজ আমেরিকার সার্টিফিকেশন সাইটে মি ১১ ৫জি কে দেখা গেছে। এখানে ফোনটিকে M2011K2G মডেল নম্বর সহ দেখা গেছে। জানিয়ে রাখি চীনে ফোনটির মডেল নম্বর ছিল M2011K2C। কিছুদিন আগে Mi 11 5G কে সিঙ্গাপুরের IMDA সার্টিফিকেশন সাইটেও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল।

যদিও এফসিসি থেকে মি ১১ ৫জি ফোনটির স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। তবে একেরপর এক সার্টিফিকেশন সাইটে দেখতে পাওয়ার অর্থ ফোনটি শীঘ্রই বিভিন্ন মার্কেটে লঞ্চ হবে। সেক্ষত্রে এর স্পেসিফিকেশনেও কোনো বদল থাকবে না বলেই আমাদের মনে হয়। কারণ গিকবেঞ্চ থেকে জানা গিয়েছিল Mi 11 5G এর গ্লোবাল ভ্যারিয়েন্টেও ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম, অ্যান্ড্রয়েড ১১ ও স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর থাকবে। চীনে লঞ্চ হওয়া মি ১১ ৫জিও একই স্পেসিফিকেশন সহ লঞ্চ হয়েছিল।

Mi 11 5G এর স্পেসিফিকেশন

মি ১১ ৫জি ফোনটি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট যুক্ত ৬.৮১ ইঞ্চি ফুল WQHD+ অ্যামোলেড ডিসপ্লে সহ এসেছে। এর পিক্সেল রেজোলিউশন ৩২০০×১৪৪০। আবার ফোনের স্ক্রিনটি কার্ভড এজ। এতে কর্নিং গোরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রটেকশন আছে। মি ১১ ৫জি ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর। এই ফোন আছে ৪,৬০০ এমএএইচ ব্যাটারি, সাথে Mi TurboCharge ৫৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং এবং ৫০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট।

Mi 11 5G ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল ১০৮ মেগাপিক্সেল (এফ/১.৮ অ্যাপারচার) + ১৩ মেগাপিক্সেল ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল লেন্স (এফ/২.৪ অ্যাপারচার) + ৫ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা (এফ/২.৪ অ্যাপারচার)। এর ডিসপ্লে ডিজাইন পাঞ্চ হোল, যার মধ্যে ২০ মেগাপিক্সেলের (এফ/২.৪ অ্যাপারচার) ফ্রন্ট ক্যামেরা উপলব্ধ। ফোনটির সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন পড়তে এখানে ক্লিক করুন

Passionate techie. Professional tech writer. A true cricket fan. Julai is a senior editor For Techgup and has frequently written about smartphones, apps, telecom News. You can follow him on Twitter @Julai_Mondal.