৬৪ এমপি ক্যামেরা সহ গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হল Mi 11 Lite 4G ও Mi 11 Lite 5G

mi-11-lite-4g-and-mi-11-lite-5g-launched-in-global-marker-price-specifications-features

চীনের পাশাপাশি গ্লোবাল মার্কেটেও আজ লঞ্চ হল Xiaomi Mi 11 Lite। যদিও গ্লোবাল মার্কেটে ফোনটি 4G ও 5G কানেক্টিভিটির সাথে এসেছে। যেখানে চীনে শুধু 5G মডেল পাওয়া যাবে। দুটি মডেলের মধ্যে প্রসেসর, ফ্রন্ট ক্যামেরা, গরিলা গ্লাস ও ব্লুটুথ ভার্সনের ক্ষেত্রে পার্থক্য আছে। মি ১১ লাইট ৪জি ও মি ১১ লাইট ৫জি এসেছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর, ৬৪ মেগাপিক্সেল ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা, ৪,২৫০ এমএএইচ ব্যাটারি। আসুন Mi 11 Lite 4G ও Mi 11 Lite 5G এর সম্পূর্ণ স্পেসিফিকেশন ও দাম জেনে নিই।

Mi 11 Lite 4G ও Mi 11 Lite 5G এর গ্লোবাল মার্কেটে দাম

মি ১১ লাইট ৪জি দুটি স্টোরেজ সহ গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হয়েছে। যেগুলি হল ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ এবং ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। এর দাম শুরু হয়েছে ২৯৯ ইউরো থেকে (প্রায় ২৫,৬০০ টাকা)। ফোনটি বোবা ব্ল্যাক, বাবলগাম ব্লু, পিচ পিঙ্ক কালারের সাথে এসেছে।

আবার এর ৫জি ভ্যারিয়েন্ট পাওয়া যাবে ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ বিকল্পে। এর দাম শুরু হয়েছে ৩৬৯ ইউরো থেকে (প্রায় ৩১,৬০০ টাকা)। ফোনটি তিনটি কালার সহ এসেছে – ট্রাফল ব্ল্যাক, সিট্রাস ইয়েলো, মিন্ট গ্রিন।

চীনে এই ফোনটি ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সহ লঞ্চ হয়েছে। এদের দাম যথাক্রমে  ২,২৯৯ ইউয়ান (প্রায় ২৪,৪০০ টাকা) ও ২,৫৯৯ ইউয়ান (প্রায় ২৮,৮০০ টাকা)।  

Mi 11 Lite 4G ও Mi 11 Lite 5G এর স্পেসিফিকেশন

আগেই বলেছি মি ১১ লাইট ৪জি ও মি ১১ লাইট ৫জি ফোন দুটির প্রসেসর আলাদা। ৪জি মডেলে ব্যবহার করা হয়েছে স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর। যেখানে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৮০জি প্রসেসর সহ এসেছে ৫জি মডেল। আবার সেলফি ক্যামেরা হিসাবে দুটি মডেলে আছে যথাক্রমে ১৬ মেগাপিক্সেল ও ২০ মেগাপিক্সেল সেন্সর। এছাড়াও Mi 11 Lite 4G কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ ও ব্লুটুথ ৫.১ এবং Mi 11 Lite 5G কর্নিং গরিলা গ্লাস ৬ ও ব্লুটুথ ৫.২ সহ লঞ্চ হয়েছে।

বাদবাকি এই ফোনে পাওয়া যাবে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (২৪০০ x ১০৮০ পিক্সেল) AMOLED পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। পিছনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। এই ক্যামেরাগুলি হল ৬৪ মেগাপিক্সেল, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স ও ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য আছে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সহ ৪,২৫০ এমএএইচ ব্যাটারি। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ কাস্টম স্কিনে চলবে। সিকিউরিটির জন্য এতে আছে ফেস আনলক ও সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন