Mi 11 Lite নাকি Mi 10i, ২০ হাজার টাকার রেঞ্জে কোন ফোনটি আপনার কেনা উচিত

mi-11-lite-vs-mi-10i-compare-price-specification-camera-processor
Mi 11 Lite ও Mi 10i এর তুলনা

গতবছর পর্যন্ত হয়তো আমরা কেউ অনুমান করতে পারিনি যে ২০,০০০ টাকার কমে 5G ফোন পাওয়া যাবে। যদিও নতুন বছরে সেই ভাবনা সত্যি করে দেখিয়েছে Xiaomi, Realme, Oppo-রা। তবে দাম কম থাকার কারণে এই 5G ফোনগুলির ফিচার অনেকক্ষেত্রেই আমাদের সন্তুষ্ট করতে পারছে না। সেক্ষেত্রে আমরা 4G ফোনের দিকে ঝুঁকছি। আপনিও যদি ২০,০০০ টাকার রেঞ্জে কোনো ফোন খুঁজে থাকেন এবং 5G নাকি 4G কানেক্টিভিটির ফোন নেবেন তা বুঝে উঠতে না পারেন, তাহলে এই প্রতিবেদনটি অবশ্যই পড়ুন। কারণ এখানে আমরা একই রেঞ্জের 5G ফোন, Mi 10i এবং 4G ফোন, Mi 11 Lite এর স্পেসিফিকেশনের পার্থক্য জানাবো। আসুন জেনে নেওয়া যাক কোন ফোনটি সেরা হবে।

Mi 11 Lite vs Mi 10i : দাম

ভারতে এমআই ১১ লাইট এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ২১,৯৯৯ টাকা এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ২৩,৯৯৯ টাকা। 

মি ১০ আই এর দাম শুরু হয়েছে ২০,৯৯৯ টাকা থেকে। এই দাম ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের। আবার এর ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের মূল্য যথাক্রমে ২১,৯৯৯ টাকা ও ২৩,৯৯৯ টাকা। 

Mi 11 Lite vs Mi 10i : ডিসপ্লে ও ডিজাইন

এমআই ১১ লাইট ফোনে আছে ৬০-৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (২৪০০ x ১০৮০ পিক্সেল) AMOLED পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে। ডিসপ্লের প্রোটেকশনের জন্য রয়েছে কর্নি গরিলা গ্লাস ৫। ডিসপ্লের পিক ব্রাইটনেস ৮০০ নিটস, আসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং টাচ স্যাম্পেলিং রেট ২৪০ হার্টজ।

মি ১০ আই ফোনটি ভারতে TÜV Rheinland ব্লু রে সার্টিফায়েড ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস (১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল) পাঞ্চ হোল ডিসপ্লে সহ এসেছে। এর আসপেক্ট রেশিও ২০:৯, রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ, ব্রাইটনেস ৪৫০ নিটস এবং টাচ স্যাম্পেলিং রেট ২৪০ হার্টজ। 

Mi 11 Lite vs Mi 10i : প্রসেসর ও অপারেটিং সিস্টেম

এমআই ১১ লাইট ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অ্যাড্রেনো ৬১৮ জিপিইউ সহ স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড এমআইইউআই ১২ সিস্টেমে চলে। 

মি ১০ আই ফোনটিতে স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। আবার গ্রাফিক্সের জন্য আছে এড্রেনো ৬১৯ জিপিইউ। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ ইন্টারফেস সহ এসেছে।

Mi 11 Lite vs Mi 10i : ক্যামেরা

এমআই ১১ লাইট ফোনের পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল এফ/১.৭৯ অ্যাপারচার সহ ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স (এফ/২.২) ও ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর (এফ/২.৪)। ফোনের পাঞ্চ হোলের মধ্যে এফ/২.৪৫ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা উপলব্ধ।

মি ১০ আই ফোনে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা ১০৮ মেগাপিক্সেল Samsung HM2 সেন্সর (এফ/১.৭৫)। এছাড়াও অন্য তিনটি ক্যামেরা হল ১২০ ডিগ্রি ফিলড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল সেন্সর (এফ/২.২), ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স ও ২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট ডেপ্থ অফ ফিল্ড সেন্সর। এতে ১৬ মেগাপিক্সেল (এফ/২.৪৫) ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। 

Mi 11 Lite vs Mi 10i : ব্যাটারি ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর

এমআই ১১ লাইট ফোনটি ৪,২৫০ এমএএইচ ব্যাটারি সহ এসেছে, যার সাথে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এই ফোনে আছে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

মি ১০ আই ফোনে আছে ৪,৮২০ এমএএইচ ব্যাটারি। যার সাথে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। সিকিউরিটির জন্য এতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর বর্তমান।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

I'm magnetically attracted to everything that implies innovation... And Rock 'N Roll!