Mi 11 Ultra এর সেকেন্ডারি ডিসপ্লের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে Mi Band 5 এর স্ক্রিন

Mi 11 ultra secondary display same like mi band 5

সপ্তাহ দুয়েক আগেই দেশীয় স্প্রিং ইভেন্টে, নিজের ঘরের বাজারে Mi 11 সিরিজের Ultra মডেলটি লঞ্চ করেছে চীনা টেক জায়ান্ট Xiaomi। ইতিমধ্যেই সংস্থার ভারতীয় শাখার সিইও মনু কুমার জৈন ফোনটির ভারতের বাজারে পা রাখার কথাও নিশ্চিত করেছেন। আগামী ২৩শে এপ্রিল এমআই ১১ আলট্রা-র ভারতে লঞ্চের দিন ধার্য করা হয়েছে। বিশেষত্বের কথা বললে, Mi 11 Ultra-তে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, ডুয়েল ডিসপ্লে এবং লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসরের মত একাধিক ফিচার রয়েছে, যার জন্য মনু কুমার এটিকে সুপারফোন তকমা দিয়েছেন। তাছাড়াও এটিতে আছে বিশ্বের প্রথম ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা, যা ইতিমধ্যেই DXOMARK-এর তরফে সেরার রেটিং পেয়েছে। সেক্ষেত্রে, সম্প্রতি এই Mi ব্র্যান্ডনেমযুক্ত দুর্দান্ত ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনটির সম্পর্কে আরও একটি চমকপ্রদ তথ্য সামনে এসেছে, যা শোনার পর Xiaomi প্রেমীদের চোখ হয়তো কপালে উঠতে পারে! আসলে, Xiaomi-র সিইও লেই জুন সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে, Mi 11 Ultra-র রিয়ার প্যানেল সেকেন্ডারি ডিসপ্লের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে ব্র্যান্ডের Mi Smart Band 5-এর স্ক্রিন – যেখানে সময়, তারিখ এবং নোটিফিকেশনগুলি দেখা যায়।

আইটিহোমস (ITHomes)-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, জুন, চীনে একটি লাইভ ব্রডকাস্টের দরুন এই ফোনটির সেকেন্ডারি ডিসপ্লে সম্পর্কে আলোচনা করেছেন। ওই কথোপকথন থেকেই জানা গেছে যে, নতুন ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনটিতে দ্বৈত ডিসপ্লের বিশেষ সুবিধা দেওয়ার জন্য, গত বছর লঞ্চ হওয়া Mi Band 5-এর ডিসপ্লেটি ব্যবহার করা হয়েছে যা ব্যাক ক্যামেরার ঠিক পাশে অবস্থিত থাকে।

আসলে নিজের স্মার্টব্যান্ডের ডিসপ্লে ব্যবহার করে ফোনটির খরচ কমাতে চেয়েছে Xiaomi। সেক্ষেত্রে এটি ব্যবহারের কারণ যাইহোক না কেন, এই সেকেন্ডারি ডিসপ্লেটি যে ইউজারদের কোনোভাবেই নিরাশ করবে না তা নিশ্চিত ভাবে বলা যায়। কারণ হল, এই Mi Smart Band 5-এ ১.১ ইঞ্চির AMOLED স্ক্রিন রয়েছে যার পিক ব্রাইটনেস ৪৫০ নিট।

প্রসঙ্গত, ভারতে Mi 11 Ultra-র দাম ৭০,০০০ টাকা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আর এমনটা যদি সত্য হয় তবে, এটি এদেশের বাজারে লঞ্চ করা সংস্থার সবচেয়ে ব্যয়বহুল স্মার্টফোন হতে চলেছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন