এই ৫ কারণে Mi 11 Ultra এর কাছে পাত্তা পাবেনা Samsung Galaxy S21 Ultra 5G

mi-11-ultra-vs-samsung-galaxy-s21-ultra-comparison-which-one-should-you-choose

Xiaomi ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে আগামী ২৩ এপ্রিল ভারতে লঞ্চ করা হবে Mi 11 Ultra। কোম্পানির তরফে একে সুপারফোন বলে অভিহিত করা হয়েছে। এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর, বিশ্বের সবচেয়ে সেরা রিয়ার ক্যামেরা, সেকেন্ডারি ডিসপ্লে ও ৬৭ ওয়াট ফাস্ট ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট সহ একাধিক প্রিমিয়াম ও চাহিদাযুক্ত ফিচার বর্তমান। ভারতে অবশ্যই Mi 11 Ultra এর প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে উপস্থিত আছে Samsung Galaxy S21 Ultra 5G। দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানিটির এবছরের সবচেয়ে প্রিমিয়াম ফোন হিসাবে এটি বাজারে এসেছে। যদিও এই প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের এমআই ১১ আলট্রা এর এমন কয়েকটি ফিচারের কথা বলবো, যা স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ আলট্রা ৫জি তে পাওয়া যাবেনা।

বড় প্রাইমারি সেন্সর

এমআই ১১ আলট্রা এসেছে ১/১.১২ ইঞ্চি সাইজের ৫০ মেগাপিক্সেল Samsung ISOCELL GN2 প্রাইমারি সেন্সর (এফ/১.৯৫) সহ। অন্যদিকে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ আলট্রা তে পাওয়া যাবে ১০৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর, যদিও এর সাইজ সামান্য ছোট- ১/১.৩৩ ইঞ্চি। Mi 11 Ultra বড় সেন্সর সহ আসার ফলে, তাত্ত্বিকভাবে কোনো ছবি কে বিস্তারিত ভাবে ক্যাপচার করতে দেওয়ায় পাশাপাশি ইম্প্রুভ লো লাইট পারফরম্যান্স ও ডায়নামিক রেঞ্জ অফার করবে।

বড় আলট্রা ওয়াইড সেন্সর

আবার এমআই ১১ আলট্রা এফ/২.২ অ্যাপারচার যুক্ত ৪৮ মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড সেন্সর সহ লঞ্চ হয়েছে। এই সেন্সরের সাইজ ১/২.০ ইঞ্চি। অন্যদিকে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ আলট্রা ৫জি তে আছে ১২ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড সেন্সর, এর সাইজ ১/২.৫৫ ইঞ্চি। এখানেও কম রেজোলিউশন ও .৫৫ ইঞ্চি ছোট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে এক্ষেত্রেও আলট্রা ওয়াইড শট নেওয়ার সময় অনেক পার্থক্য থাকবে। যদিও সফটওয়্যার অপ্টিমাইজেশনও এক্ষেত্রে বিরাট ভূমিকা পালন করে।

পাওয়ারফুল প্রসেসর

Mi 11 Ultra স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর সহ লঞ্চ হয়েছে। এদিকে Samsung Galaxy S21 Ultra 5G এর ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে আছে এক্সিনস ২১০০ প্রসেসর। বেঞ্চমার্ক প্ল্যাটফর্ম ও বিভিন্ন আর্টিকেল মারফত আমরা জানতে পেরেছি যে এক্সিনস ২১০০ প্রসেসর গতবছরের এক্সিনস ১০৮০ এর তুলনায় অনেক শক্তিশালী হলেও, কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ এর থেকে পিছিয়ে।

দ্রুত ওয়্যার্ড ও ওয়্যারলেস চার্জিং

দুটি ফোনই ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি সহ এলেও, স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ আলট্রা তে পাওয়া যাবে ২৫ ওয়াট ওয়্যার্ড ও ১৫ ওয়াট কিউআই ওয়্যারলেস চার্জিং সাপোর্ট। যেখানে এমআই ১১ আলট্রা তে আছে ৬৭ ওয়াট ওয়্যার্ড ও ওয়্যারলেস চর্জিং সাপোর্ট।

ব্রাইটনেস ও ডলবি ভিশন সাপোর্ট

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২১ আলট্রা ও এমআই ১১ আলট্রা দুটি ফোনেই রয়েছে Super AMOLED 2K, ১২০ হার্টজ ডিসপ্লে। যদিও শাওমির ফোনে পাওয়া যাবে ১৭০০ নিটস পিক ব্রাইটনেস, ডলবি ভিশন সাপোর্ট সহ ৬.৮১ ইঞ্চি ডিসপ্লে। অন্যদিকে গ্যালাক্সি এস২১ আলট্রা তে আছে ৬.৮ ইঞ্চি ডিসপ্লে। এর পিক ব্রাইটনেস ১৫০০ নিটস। যদিও এতে ডলবি ভিশন সাপোর্ট নেই। তার মানে আমরা বলছি না স্যামসাং ফোনের ডিসপ্লে খারাপ। আমরা বলতে চাইছি এমআই ১১ আলট্রা তুলনামূলক ভাবে বেশি ফিচার অফার করছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন