Mi MIX Fold-এর লাইভ চ্যালেঞ্জ: দিনে ১০০ বার ভাঁজ করলেও আরামসে চলবে ১০ বছর

mi-mix-fold-survives-vigorous-400000-times-bending-test-xiaomi-claim-can-last-for-10-years

মার্চের এক্কেবারে শেষে Mi MIX Fold নামক ফোল্ডেবল স্মার্টফোন এনে, অন্যান্য মূলধারার স্মার্টফোন ব্র্যান্ডগুলিকে বেশ চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে Xiaomi। এখনো পর্যন্ত কেবল চিনে এই বিশেষ স্মার্টফোনটি কেনার জন্য উপলভ্য হলেও, শীঘ্রই এই ফোল্ডেবল ফোনটি ভারতসহ গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হবে। চীনে প্রথম ফ্ল্যাশ সেলে মাত্র ১ মিনিটে ৪৫০ কোটি টাকার বেশি মূল্যের Mi MIX Fold বিক্রি হয়েছে বলে কোম্পানি জানিয়েছে। অত্যাধুনিক ফিচারের কারণে ফোনটির এত চাহিদা বলে অনুমান করা হচ্ছে। কিন্তু Xiaomi, তার এই নতুন ফোনটিতে প্রচুর প্রিমিয়াম ফিচার দিলেও, এটি কতটা টেকসই হতে পারে, সে প্রশ্ন ইতিমধ্যেই অনেকেরই মাথায় এসেছে! কারণ চীনা টেক জায়ান্ট সংস্থাটি প্রথমবার এই ধরণের ফোন তৈরি করেছে এবং এটি সাধারণ ফোনের চেয়ে যথেষ্ঠ ব্যয়বহুল। সেক্ষেত্রে জানিয়ে রাখি আগ্রহী ক্রেতাদের চিন্তার প্রয়োজন নেই, কারণ একটি লাইভ ব্রডকাস্টের দরুন নিজের শক্তিশালী ফোল্ডিং ক্যাপাসিটির চরম প্রদর্শন করতে সক্ষম হয়েছে এই Mi MIX Fold

আসলে Xiaomi-র প্রধান কর্মকর্তা লেই জুন (Lei Jun) সম্প্রতি তার WeChat অ্যাকাউন্টে ৭ দিনব্যাপী একটি লাইভ ভিডিওর সম্প্রচার করেন। ওই ভিডিওতে প্রতি ১.৬ সেকেন্ড, ২৪ ঘন্টা এবং এক সপ্তাহ ধরে এমআই মিক্স ফোল্ড ফোনটি বারবার ভাঁজ করার উদ্দেশ্যে একটি ফোল্ডিং চ্যালেঞ্জ নেওয়া হয়। সোজাভাবে বললে, ওই চ্যালেঞ্জে ফোনটিকে ৭ দিনে মোট ৬,০০,০০০ বারের বেশি ভাঁজ করার কথা বলা হয়।

এদিকে চ্যালেঞ্জের সময়সীমা শেষ হওয়ার পর দেখা যায় যে, Mi MIX Fold ডিভাইসটিকে প্রায় ৪,০০,০০০ বার সহজে ভাঁজ বা ফোল্ড করা গেছে; ব্যবহারিক ভিত্তিতে এই অঙ্ক মোট পাঁচ দিনে প্রতি ১.৬ সেকেন্ডে একবার ভাঁজ করার সমান। সেক্ষেত্রে সাধারণ ইউজাররা কেউই এত ঘন ঘন বা প্রায় প্রতি ২ সেকেন্ডের মধ্যে হাতের স্মার্টফোনটি ভাঁজ করবেন না, এমনটা নিশ্চিতভাবে বলাই যায়। এছাড়া যদি কোনো ইউজার প্রতিদিন ফোনটি ১০০ বার খোলেন বা বন্ধ করে রাখেন তাহলেও ফোল্ডিং চ্যালেঞ্জের ফলাফলে পৌঁছাতে ১০ বছর সময় লাগবে। আবার Xiaomi-র দাবি, এই ফোনটিকে আরামসে ২,০০,০০০ বার ভাঁজ করা যাবে। তাই প্রতিদিন ১০০ বার এটি খোলা বা বন্ধ করা হলেও এটি স্বচ্ছন্দে পাঁচ বছর ব্যবহার করা যাবে।

এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, সংস্থার এই চ্যালেঞ্জের দরুন আয়োজিত লাইভটি নিরবচ্ছিন্নভাবে একটানা সম্প্রচারিত হয়েছে এবং বেশির ভাগ সময়েই এটিতে ২ মিলিয়নেরও কাছাকাছি দর্শক ছিল। সেক্ষেত্রে যারা এখনো Mi MIX Fold-এর ফিচার সম্পর্কে অবগত নন তাদের বলি, এই ফোনটি একটি অত্যাধুনিক কব্জা ডিজাইনসহ আসে যা এটির প্রিমিয়াম উপস্থিতির পাশাপাশি স্থায়িত্বের নিশ্চয়তা দেয়। এমনিতে ফোনটিতে ৮.১ ইঞ্চির অ্যামোলেড কভার ডিসপ্লে এবং বাইরের দিকে ৬.৫২ ইঞ্চি ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটযুক্ত ডিসপ্লে রয়েছে। আবার এটিতে স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপসেট, ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, ১০৮ মেগাপিক্সেল HM2 সেন্সরযুক্ত প্রাইমারি রিয়ার ক্যামেরার মত একাধিক আকর্ষণীয় ফিচারও বর্তমান। ফোনটি কিনতে চাইলে নিদেনপক্ষে ৯,৯৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১,১১,৭৪৭ টাকা) ব্যয় করতে হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন