বাইরে গিয়ে ফোনের চার্জ নিয়ে চিন্তা নেই, Xiaomi আনছে ৩০০০০ mAh এর Mi PowerBank Boost Pro

mi-powerbank-boost-pro-30000-mah-to-launch-in-india-21-may-price-specifications

পাওয়ার ব্যাংকের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে নতুন করে কিছুই বলার প্রয়োজন পড়ে না। স্মার্টফোনে বেশি ক্যাপাসিটির ব্যাটারি থাকলেও আমরা অনেকেই জরুরি পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সাথে একটি পাওয়ার ব্যাংক রাখতে পছন্দ করি। আর তাই ইউজারদের সুবিধার্থে খুব শীঘ্রই একটি দুর্দান্ত এবং শক্তিশালী পাওয়ার ব্যাংক ভারতীয় ইউজারদের উপহার দিতে চলেছে Xiaomi। আসলে সংস্থাটি চলতি বছরের মার্চ মাসের শেষের দিকে Mi PowerBank Boost Pro 30000mAh-এর জন্য ক্রাউডফান্ডিং চালু করেছিল। এর জন্য সংস্থাটি ৫০০০ ইউনিট-এর লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিল। অবশেষে সেই লক্ষ্যে পৌঁছে একটি সফল ক্রাউডফান্ডিং ক্যাম্পেইনের পর, Xiaomi ভারতের বাজারে পাওয়ার ব্যাংকটি লঞ্চ করতে চলেছে। সংস্থাটি সোশ্যাল মিডিয়া চ্যানেলগুলিতে ঘোষণা করেছে যে, Mi Powerbank Boost Pro ২১ শে মে ভারতে লঞ্চ হবে। ক্রাউডফান্ডিং ক্যাম্পেইন চলাকালীন পাওয়ার ব্যাংকটির দাম ছিল ১,৯৯৯ টাকা। সুতরাং, এটির আসল দাম এর চেয়ে কিছুটা বেশি হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আসুন এমআই পাওয়ার ব্যাংক বুস্ট প্রো ৩০০০০ এমএএইচ-এর ফিচার এবং স্পেসিফিকেশনগুলির ওপর একবার চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

Mi PowerBank Boost Pro 30000mAh-এর ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

এমআই পাওয়ার ব্যাংক বুস্ট প্রো ৩০০০০ এমএএইচ-এ অ্যান্টি-স্কিড ফিনিশ রয়েছে, যা Mi Pocket Power Bank Pro-এর অনুরূপ। আবার এতে পাওয়া যাবে ১৬ স্তরীয় অত্যাধুনিক সার্কিট প্রোটেকশন সহ একটি ৩০,০০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। যদিও সংস্থাটি PowerBank Boost Pro-এর রেটেড ক্যাপাসিটি উল্লেখ করেনি।

কোম্পানির ওয়েবসাইট অনুযায়ী, এই পাওয়ার ব্যাংকে দুটি ইউএসবি টাইপ-এ, একটি টাইপ-সি এবং একটি মাইক্রো-ইউএসবি পোর্ট সহ মোট চারটি পোর্ট আছে। টাইপ-সি পোর্টটি একটি ইনপুট পোর্টের পাশাপাশি একটি আউটপুট পোর্ট হিসাবেও কাজ করতে পারে এবং পিডি ৩.০ (পাওয়ার ডেলিভারি) সাপোর্ট করে। এতে ডুয়াল ইনপুট সাপোর্ট করে, এবং মাইক্রো-ইউএসবি এবং টাইপ-সি চার্জিং পোর্ট ব্যবহার করে এটিকে চার্জ করা যেতে পারে। পাওয়ার ব্যাংকটি টাইপ-সি পোর্টের মাধ্যমে ২৪ ওয়াট পর্যন্ত ও মাইক্রো-ইউএসবি পোর্টের মাধ্যমে ১৮ ওয়াট পর্যন্ত ইনপুট সাপোর্ট করে। এই পাওয়ার ব্যাংকটিকে ২৪ ওয়াট পিডি চার্জার দিয়ে চার্জ করা হলে, ফুল চার্জ হতে প্রায় ৭.৫ ঘন্টা সময় লাগবে। আর যদি ১৮ ওয়াট চার্জার দিয়ে চার্জ দেওয়া হয়, তাহলে সেক্ষেত্রে ১০ ঘন্টা সময় লাগবে।

আউটপুটের জন্য, নতুন Mi PowerBank Boost Pro-এ দুটি ইউএসবি টাইপ-এ এবং একটি টাইপ-সি পোর্ট রয়েছে। এই পোর্টগুলির সাহায্যে এটি একই সাথে ৩ টি ডিভাইস চার্জ করতে পারে। টাইপ-সি পিডি ৩.০ সাপোর্ট করায় এর মাধ্যমে এটি ২৪ ওয়াট আউটপুট সাপোর্ট করে, তবে টাইপ-এ পোর্টগুলির মাধ্যমে এই আউটপুট ১৮ ওয়াটে সীমাবদ্ধ। অন্যান্য Xiaomi পাওয়ার ব্যাংকের মতো, এতেও স্মার্টওয়াচ এবং স্মার্ট ব্যান্ডের মতো ডিভাইসগুলি চার্জ করার জন্য একটি লো পাওয়ার আউটপুট মোড রয়েছে, যেটিকে পাওয়ার বাটনে ডাবল ট্যাপ করে অ্যাক্টিভেট করা যেতে পারে। এই পাওয়ার ব্যাংকটির ওজন প্রায় ৬৪০ গ্রাম এবং আয়তন ১৫৪.৫× ৭২.৩×৩৮.৯৯ মিমি। তবে যেহেতু এই পাওয়ার ব্যাংকটিতে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন ৩০,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে, তাই অভ্যন্তরীণ বা আন্তর্জাতিক কোনোপ্রকার উড়ানেই এটি বহনযোগ্য নয়।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।