৯ দিনের ব্যাটারি ব্যাকআপ সহ সস্তায় লঞ্চ হল Mi Watch Lite

গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হল Mi Watch Lite। এটি আদতে গত মাসে চীনে লঞ্চ হওয়া Redmi Watch এর রিব্র্যান্ডেড ভার্সন। দুটি স্মার্টওয়াচের ডিজাইন ও স্পেসিফিকেশনে কোনো পার্থক্য নেই। Mi Watch Lite এর মুখ্য ফিচারগুলির কথা বললে এতে পাবেন ৯ দিনের ব্যাটারি ব্যাকআপ, ২০ টি কাস্টম ডায়াল, ২৪ ঘণ্টা হার্ট রেট মনিটর ও ৫ ওয়াট চার্জিং সাপোর্ট। জানিয়ে রাখি গত অক্টোবরে কোম্পানি Mi Watch লঞ্চ করেছিল।

Mi Watch Lite এর দাম ও লভ্যতা

মি ওয়াচ লাইট এর দাম কোম্পানি এখনও জানায়নি। এটি পিঙ্ক, আইভরি, ব্ল্যাক, নেভী ব্লু এবং অলিভ কালারের সাথে লঞ্চ হয়েছে। মনে করা হচ্ছে স্মার্টওয়াচটির দাম বিভিন্ন দেশে আলাদা আলাদা হবে, সেই কারণেই কোম্পানি এর গ্লোবাল মার্কেটের দাম জানায়নি। আপাতত এটি mi.com ওয়েবসাইটে উপলব্ধ।

এদিকে ইউরোপে Mi Watch-এর দাম ৯৯ ইউরো (ভারতীয় মূল্যে ৮,৫০০ টাকা)। সেহেতু মি ওয়াচ লাইট আরও সস্তায় আসবে এটা নিশ্চিত।

Mi Watch Lite এর স্পেসিফিকেশন

মি ওয়াচ লাইট একটি ১.৪ ইঞ্চি এইচডি কালার বর্গাকার আকৃতির স্ক্রিন সহ এসেছে। যার পিক্সেল রেজোলিউশন ৩২০x৩২০ পিক্সেল ডেনসিটি ৩২৩ পিপিআই। এই স্মার্টওয়াচে ক্ল্যাসিক সিম্প্লিসিটি সহ ২০টি কাস্টম ডায়াল, কুল আইপি ফিচার উপলব্ধ। স্ট্র্যাপ সহ এর ওজন ৩৫ গ্রাম এবং স্ট্র্যাপ ছাড়া ৩১ গ্রাম।

Mi Watch Lite স্মার্টওয়াচে সাইক্লিং, দৌড়ানো, সাঁতার কাটার মতো এগারোটি ওয়ার্কআউট মোড আছে। এছাড়াও আছে ২৪ ঘণ্টা হার্ট রেট মনিটরিং, স্লিপ ট্র্যাকিং এবং সিডেন্টারি মনিটরিং ফিচার। এই স্মার্টওয়াচে ২৩০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। যা ফুল চার্জ হতে ২ ঘন্টা সময় নেয়। সাধারণ ব্যবহারে এটি ৯ দিন  ও পাওয়ার সেভিং মোড অন করে ১২ দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে।

কানেক্টিভিটির জন্য এতে রয়েছে ব্লুটুথ ৫.০। যেটি ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস (iOS) দু’ধরনের ডিভাইসের সাথেই স্মার্টওয়াচটি কানেক্ট করা যাবে। এই ওয়াচে 5ATM রেটিং আছে। ফলে ৫০ মিটার পর্যন্ত জলের গভীরতায় অক্ষত অবস্থায় এটি ঠিকঠাক কাজ করতে সক্ষম।