সাবধান, কোভিড-১৯ বোনাস মেসেজে ভুলেও ক্লিক করবেন না, সতর্কতা জারি করলো মাইক্রোসফট

রোজই খবরে হ্যাকিংয়ের আশঙ্কা কিংবা বিভিন্ন ম্যালওয়্যারের কথা সামনে আসে। এবার এই তালিকায় নাম জড়িয়ে গেলো টেক দুনিয়ার জনপ্রিয় সংস্থা মাইক্রোসফ্টের। আসলে মাইক্রোসফ্ট কর্পোরেশন ইউজারদের টার্গেট করে একটি বিশাল ফিশিং ক্যাম্পেইন চালিয়েছে হ্যাকাররা, গত ডিসেম্বরের পর থেকে ৬২ টি দেশের ইউজারদের প্রতারণা করার চেষ্টা চলেছে।

একটি ব্লগ পোস্টে সংস্থাটি মঙ্গলবার জানিয়েছে, এই হামলাটিতে বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রির বিজনেস লিডারদের টার্গেট করে, তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে তথ্য চুরি করার চেষ্টা করা হয়েছিল। এই ব্লগ পোস্টে আরও বলা হয়েছে এক সপ্তাহের মধ্যে লক্ষ লক্ষ মাইক্রোসফ্ট অফিস ৩৬৫-র ইউজারের ডেটা হ্যাক করার চেষ্টা করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, “কোভিড-১৯ বোনাস” জাতীয় নাম ব্যবহার করে অর্থাৎ চলমান মহামারীর নামে হ্যাকাররা এই ফিশিং ক্যাম্পেইন চালায়। এই ঘটনায় অফিস ৩৬৫-র ইউজারদের কাছে প্রচুর স্প্যাম মেল আসতে থাকে। মাইক্রোসফ্ট ওই ব্লগ পোস্টে জানিয়েছে, হ্যাকাররা ইউজারের ইমেল, কন্ট্যাক্ট লিস্ট, সংবেদনশীল নথি এবং অন্যান্য মূল্যবান তথ্যের অ্যাক্সেস পাওয়ার চেষ্টা করেছিল। তবে এই ঘটনায় ঠিক কতজন ইউজার এই ধরণের ফিশিং মেল পেয়েছে, বা এই ইমেলগুলি কতজন ইউজারের ওপর ট্রিকিংয়ে সফল হয়েছে, সেসম্পর্কে সংস্থাটি কিছুই বলেনি।

অন্য একটি খবরে গুগলের ই-মেইল পরিষেবা Gmail এ কিছু প্রযুক্তিগত সমস্যা দেখা গিয়েছে। কয়েক মিলিয়ন ইউজার স্প্যাম ফিল্টার জনিত সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন।  অ্যান্ড্রয়েড পুলিশের রিপোর্ট অনুসারে, গত ২রা জুলাই এই স্প্যাম ফিল্টারে কিছু সমস্যা দেখা গিয়েছিল। যার জেরে, বিপজ্জনক ইমেলগুলি কোনও ফিল্টার ছাড়া সরাসরি ইউজারের ইনবক্সে পৌঁছেছিল। যদিও ইতিমধ্যেই গুগল সমস্যাটি সমাধান করেছে।