সুখবর! ভারতে বাড়ছে মোবাইল ডাউনলোড স্পিড, জানালো ওকলা

লকডাউনের কারণে ভারতে মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড অনেকটাই কমেছিল। কারণ ঘরবন্দি মানুষ বেশি করে ইন্টারনেট ব্যবহার করায় স্পিড নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যর্থ হচ্ছিলো টেলিকম কোম্পানিগুলি। এইকারণে টেলিকম ডিপার্টমেন্ট থেকেও অনুরোধ করা হয়েছিল, যাতে প্রয়োজন ছাড়া অতিরিক্ত ডেটা না ব্যবহার করা হয়। সকাল ৯ টা থেকে ১১ টা এবং বিকেল ৪ টে থেকে ৯ টা পর্যন্ত ইন্টারনেট স্পিড সবচেয়ে কম পাওয়া যাচ্ছিলো। গ্রাহকরাও বার বার অভিযোগ করছিলো যে তাদের ইন্টারনেট স্পিড অনেকটাই কমে গেছে।

তবে সমস্ত গ্রাহককে সুখবর দিয়ে Ookla জানিয়েছে গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে ভারতে ইন্টারনেট স্পিড বেড়েছে। প্রসঙ্গত ওকলা হল ইন্টারনেট স্পিড চেকার কোম্পানি। নতুন একটি রিপোর্টে ওকলা জানিয়েছে ভারত সহ গোটা দেশে ব্রডব্যান্ড স্পিড স্থির থাকলেও ডেটা স্পিড কিছুটা বেড়েছে।

Ookla তাদের রিপোর্টে বলেছে ২০ এপ্রিলের সপ্তাহে ভারতে গড় ডেটা স্পিড ছিল ১০.৩৫ এমবিপিএস। যা আগের সপ্তাহ থেকে কিছুটা বেশি। যদিও ২ মার্চের সপ্তাহে এই স্পিড অনেক বেশি ছিল। তখন গড় ডেটা স্পিড ছিল ১১.৭৫ এমবিপিএস। যদিও মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই ইন্টারনেট স্পিড কমে দাঁড়িয়েছিল ১০.১৫ এমবিপিএস এ। ফেব্রুয়ারিতে এই স্পিড ছিল ১১.৮৩ এমবিপিএস।

ভারতে ফিক্সড ব্রডব্যান্ড স্পিড ৩৫.৮৪ এমবিপিএস। এই স্পিড ২ মার্চের সপ্তাহের তুলনায় ৭ শতাংশ কম। মার্চে এই স্পিড ছিল ৩৮.৬৬ এমবিপিএস। এদিকে পেরুরু ব্রডব্যান্ড স্পিডের অবস্থা সবচেয়ে খারাপ। লকডাউন পরিস্থিতিতে তাদের স্পিড কমেছে ৩৯ শতাংশ। Ookla এর এই রিপোর্টে সারাবিশ্বের গড় ব্রডব্যান্ড স্পিড ৭৪.৭২ এমবিপিএস।