Homeমোবাইলমোবাইল ফোনের তুলনা5G স্মার্টফোন কিনবেন ভাবছেন? ৩০,০০০ টাকার কমে রয়েছে এই সেরা ৪টি বিকল্প

5G স্মার্টফোন কিনবেন ভাবছেন? ৩০,০০০ টাকার কমে রয়েছে এই সেরা ৪টি বিকল্প

আগামী মাসে অর্থাৎ আর মাত্র কয়েকটা সপ্তাহের মধ্যেই সমগ্র দেশবাসীর হাতের মুঠোয় আসতে চলেছে সুপারফাস্ট 5G (৫জি) নেটওয়ার্ক পরিষেবা। এই পরিস্থিতিতে দুরন্ত গতির নেটওয়ার্ক লঞ্চের সময়কাল যত এগিয়ে আসছে, ততই ক্রেতাদের মধ্যে ‘নেক্সট জেনারেশন’ কানেক্টিভিটির হ্যান্ডসেট কেনার আগ্রহ আগের চেয়ে আরো লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে! সেক্ষেত্রে আপনিও যদি এই মুহূর্তে একগুচ্ছ নজরকাড়া ফিচারে ঠাসা 5G স্মার্টফোন কেনার কথা ভেবে থাকেন কিন্তু কোন ব্র্যান্ডের কোন মডেল কিনবেন তা মনস্থির করতে সক্ষম না হন, তাহলে আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনে আপনার জন্য রয়েছে একটি দারুণ সুখবর! কারণ আজ আমরা এমন চার-চারটি মিড রেঞ্জের সেরা স্মার্টফোনের কথা আপনাদেরকে জানাতে চলেছি, যেগুলিকে ৩০,০০০ টাকারও কমে কিনে নেওয়া যাবে। এই হ্যান্ডসেটগুলিতে 5G কানেক্টিভিটির পাশাপাশি আরও একাধিক অ্যাডভান্স ফিচারের দেখা মিলবে। তাহলে চলুন, স্মার্টফোনগুলির স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে একটু বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

৩০,০০০ টাকার কমে উপলব্ধ সেরা চারটি 5G স্মার্টফোন

১. Samsung Galaxy A33 5G: এক্সিনোস ১২৮০ (Exynos 1280) প্রসেসর দ্বারা চালিত স্যামসাংয়ের এই ফোনে ফুলএইচডি+ রেজোলিউশনের ৬.৪ ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড প্লাস ডিসপ্লে রয়েছে, যার রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ। এই হ্যান্ডসেটটি কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপসহ আসে যাতে আছে ৪৮ মেগাপিক্সেল মেইন রিয়ার ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড ক্যামেরা, ৫ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা। যেখানে, সেলফির জন্য এটিতে মজুত রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা। এছাড়া পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে রয়েছে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি মিলবে। উল্লেখ্য, স্যামসাংয়ের এই স্মার্টফোনটির দুটি ভ্যারিয়েন্ট মার্কেটে উপলব্ধ – একটিতে রয়েছে ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এবং অপরটিতে আছে ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ; এগুলি কিনতে যথাক্রমে ২৫,৪৯৯ টাকা এবং ২৬,৯৯৯ টাকা ব্যয় করতে হবে।

২. Realme 9 Pro+ 5G: রিয়েলমি ৯ প্রো+ ৫জি-তে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ ডিসপ্লে, ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০ (Mediatek Dimensity 920) প্রসেসর এবং ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরাযুক্ত ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এতে সেলফির এবং ভিডিও কলিংয়ের জন্য ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। স্টোরেজ বা দামের কথা বললে, রিয়েলমির এই হ্যান্ডসেটটির দুটি মডেল মার্কেটে উপলব্ধ – ৬ জিবি + ১২৮ জিবি এবং ৮ জিবি + ২৫৬ জিবি, যেগুলির দাম যথাক্রমে ২৫,০৪৯ টাকা এবং ২৯,০৪৯ টাকা।

৩. Xiaomi 11i HyperCharge 5G: মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০ ৫জি প্রসেসর দ্বারা চালিত এই স্মার্টফোনটি গ্রিন, পার্ল, মিস্ট এবং ব্ল্যাক কালারে বাজারে পাওয়া যায়। শাওমি ১১আই হাইপারচার্জ ৫জির ক্রেতারা ফুল এইচডি+ অ্যামোলেড ডিসপ্লে দেখতে পাবেন যার রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। অন্যদিকে এটি ৫,১৬০ এমএএইচ ব্যাটারি ক্যাপাসিটি অফার করবে। এই স্মার্টফোনটিতে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বিদ্যমান যার মধ্যে রয়েছে ১০৮ মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা। এছাড়া, এর সামনে একটি ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরাও দেখা যাবে। শাওমির এই স্মার্টফোনটির ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ভ্যারিয়েন্ট রয়েছে যার দাম ২৬,৯৯৯ টাকা, অন্যদিকে এর ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি মডেল পকেটস্থ করতে চাইলে ২৮,৯৯৯ টাকা খসাতে হবে।

৪. OnePlus Nord 2T 5G: ওয়ানপ্লাস নর্ড ২টি ৫জি ফোনের ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টটির দাম ২৮,৯৯৯ টাকা। এই ফোনে রয়েছে ৬.৪৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ অ্যামোলেড ডিসপ্লে, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১৩০০ ৫জি প্রসেসর এবং ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি ক্যাপাসিটি। ফটোগ্রাফির জন্য এই স্মার্টফোনে ৫০ মেগাপিক্সেল মেইন রিয়ার ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা সম্বলিত ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ বিদ্যমান। এছাড়া, এই মডেলে ৩২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরাও দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন