22000mAh ব্যাটারির সঙ্গে আসছে বাহুবলী ফোন, থাকবে 19 জিবি র‌্যাম, 108MP ক্যামেরা

Doogee V Max Launch Soon

বর্তমানে রাগড বা শক্তপোক্ত স্মার্টফোনের জগতে ডুগি (Doogee) স্বনামধন্য একটি ব্র্যান্ড। এই কোম্পানির হ্যান্ডসেটগুলি তার দৃঢ়তা ও কাঠিন্যের জন্য ক্রেতাদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয়। গত বছর ডুগি অনেকগুলি নতুন ডিভাইস বাজারে লঞ্চ করেছে। শোনা যাচ্ছে, চলতি বছরের শুরুতেই তারা একটি নতুন রাগড ফোন বাজারে আনতে চলেছে, যার নাম Doogee V Max। আর এখন লঞ্চের আগেই, এই আসন্ন হ্যান্ডসেটটির মূল বৈশিষ্ট্য এবং ছবি অনলাইনে প্রকাশিত হয়েছে৷ এটি অভাবনীয় ২২,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসতে চলেছে এবং এর ক্যামেরায় নাইট ভিশন ক্ষমতা রয়েছে। Doogee V Max সম্ভবত একটি বিস্তৃত প্রোডাক্ট লাইনআপের অংশ হিসাবে ফেব্রুয়ারিতে মুক্তি পাবে। আসুন ডুগির এই নতুন ফোনটির সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত যা যা তথ্য সামনে এসেছে, সেগুলি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

Doogee V Max আসছে বিশাল ব্যাটারি ও নাইট ভিশন সহ

ডুগি ভি ম্যাক্স একটি ২২,০০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারির সাথে আসবে যা বেশ নজিরবিহীন। এই মুহূর্তে বাজারে হাতে গোনা কয়েকটি স্মার্টফোন আছে, যেগুলি ডুগির এই নতুন ফোনটির ব্যাটারি ক্ষমতার কাছাকাছি আসতে পারে। ভি ম্যাক্স ২১,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি যুক্ত ওউকটেল ডাব্লিউপি১৯-কে ছাড়িয়ে যাবে। এই ব্যাটারিটি ইউএসবি-সি পোর্টের মাধ্যমে ৩৩ ওয়াট পর্যন্ত ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। স্বাভাবিক ব্যবহারে এই ব্যাটারিটি ১০ দিন এবং স্ট্যান্ডবাই মোডে ৬৪ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। ভি ম্যাক্স অবশ্য বেশ ভারী হবে। এর পুরুত্ব হবে ২৭.৩ মিলিমিটার, যদিও ডিভাইসটির ওজন জানা যায়নি।

আবার, ডুগি ভি ম্যাক্স-এ ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৫৮ ইঞ্চির ফুল-এইচডি আইপিএস ডিসপ্লে থাকবে। স্ক্রিনে গরিলা গ্লাসের সুরক্ষা মিলবে এবং ফোনটির পিছনের প্যানেলে লেদারের মতো ফিনিশ দেখা যাবে। ব্রিটিশ কোম্পানি ভার্টু-এর ফোনের সাথে এর কিছুটা সাদৃশ্য রয়েছে। ডুগি ভি ম্যাক্স মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১০৮০ চিপসেট দ্বারা চালিত হবে। এটি ১২ জিবি র‍্যাম (ভার্চুয়ালভাবে ১৯ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়) এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজের সাথে আসবে। টিএফ কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ প্রসারিত করা যেতে পারে।

ফটোগ্রাফির জন্য, Doogee V Max-এর ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি স্যামসাং সেন্সর, একটি ২০ মেগাপিক্সেলের সনি নাইট ভিশন ক্যামেরা এবং একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড সেন্সর অন্তর্ভুক্ত থাকবে৷ আল্ট্রা-ওয়াইড ইউনিটে ম্যাক্রো শটের জন্য ১৩০º ফিল্ড অফ ভিউ এবং অটোফোকাস মিলবে। ক্যামেরার বাম দিকে দুটি ফ্ল্যাশ এবং ডানদিকে দুটি ইনফ্রারেড নাইট ভিশন লাইট দেখা যাবে। ডিসপ্লের ওপরে নচের ভিতরে ৯০ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ একটি ৩২ মেগাপিক্সেলের Sony IMX616 সেন্সর অবস্থান করবে।

এছাড়াও, জানা যাচ্ছে Doogee V Max অ্যান্ড্রয়েড ১২ অপারেটিং সিস্টেমের রান করবে। এটি কতগুলি আপগ্রেড পাবে, সে সম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি। এই ডুগি ফোনটি এনএফসি, একটি সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার, ৫জি সংযোগ, এবং আইপি৬৮/আইপি৫৯/ এমআইএল-এসটিডি-৮১০এইচ সার্টিফিকেশনের সাথে আসবে। এখও Doogee V Max-এর মূল্য প্রকাশ না হলেও শীঘ্রই লঞ্চ হবে বলে আশা করা যায়।