Homeমোবাইল৫৪ মেগাপিক্সেল সনি ক্যামেরা সহ Honor Magic Vs ফোল্ডেবল ফোন লঞ্চ হল

৫৪ মেগাপিক্সেল সনি ক্যামেরা সহ Honor Magic Vs ফোল্ডেবল ফোন লঞ্চ হল

এই 'সেকেন্ড জেনারেশন' ফোল্ডেবল ফোনটিকে Honor 80 সিরিজের সাথে উন্মোচন করা হয়েছে আজ। আসুন Honor Magic Vs স্মার্টফোনের দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নেওয়া যাক

Honor আজ অর্থাৎ ২৩শে নভেম্বর তাদের দ্বিতীয় ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের ঘোষণা করেছে। নবাগত Honor Magic Vs বিদ্যমান Honor Magic V মডেলের উত্তরসূরি হিসাবে এসেছে। এই লেটেস্ট ফোল্ডেবল ডিভাইসটিকে ২০২৩ সালের প্রথম কোয়ার্টারে গ্লোবাল মার্কেটেও লঞ্চ করা হবে বলে নিশ্চিত করেছে Honor। প্রসঙ্গত, আলোচ্য মডেলটির একটি ‘Ultimate’ ভ্যারিয়েন্টকেও বাজারজাত করা হয়েছে, যা ম্যাজিক-পেন নামক স্টাইলাস সমর্থন করে। যদিও স্ট্যান্ডার্ড ভার্সনে স্টাইলাস বিকল্প অনুপস্থিত থাকছে। এই ‘সেকেন্ড জেনারেশন’ ফোল্ডেবল ফোনটিকে Honor 80 সিরিজের সাথে উন্মোচন করা হয়েছে আজ। আসুন Honor Magic Vs স্মার্টফোন সম্পর্কে খুঁটিনাটি সব জেনে নেওয়া যাক এবার।

অনর ম্যাজিক ভিএস -এর স্পেসিফিকেশন (Honor Magic Vs Specifications)

সদ্য ঘোষিত অনর ম্যাজিক ভিএস স্মার্টফোনটি হালকা গিয়ারলেস হিঞ্জ সহ এসেছে। এই হিঞ্জকে সিঙ্গেল-পিস কাস্টিং টেকনোলজি ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে। অতএব, পূর্বসূরির তুলনায় উত্তরসূরির হিঞ্জে ব্যবহৃত সাপোর্টিং স্ট্রাকচারের কম্পোনেন্টের সংখ্যা ৯২ থেকে ৪ -এ নেমে এসেছে। তবে কম্পোনেন্ট সংখ্যা হ্রাসপ্রাপ্ত হলেও ডিভাইসটি যথেষ্ট টেকসই এবং দৃঢ় হবে। এতে থাকা এরোস্পেস-গ্রেড মেটেরিয়াল-টাউটিং হিঞ্জকে মোট ৪০০,০০০বার ফোল্ড করা যাবে বলে দাবি করা হয়েছে। অর্থাৎ ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে প্রতিদিন ১০০ বার ভাঁজ করা যাবে এই ডিভাইসটিকে। অনারের এই ফোন গ্লাস এবং ভেগান লেদার ফিনিশিং অফার করবে।

প্রসঙ্গত, অনর ম্যাজিক ভিএস ফোনের আল্টিমেট ভ্যারিয়েন্ট ম্যাজিক-পেন নামক স্টাইলাস ইনপুট সাপোর্ট করে। তবে এতে Galaxy Z Fold 3 এবং Galaxy Z Fold 4 -এর মতো স্টাইলাসের জন্য কোন সাইলো (silo) নেই।

এবার আসা যাক ইন্টারনাল স্পেসিফিকেশনের প্রসঙ্গে। নবাগত Honor Magic Vs স্মার্টফোনে আছে একটি ৭.৯-ইঞ্চির (২২৭২x১৯৮৪ পিক্সেল) OLED ইন্টারনাল ফোল্ডেবল ডিসপ্লে, যা ৩৮১ পিপিআই পিক্সেল ডেনসিটি, ৯০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট এবং সর্বোচ্চ ৮০০ নিট ব্রাইটনেস সাপোর্ট করে। অন্যদিকে এতে একটি ৬.৪৫-ইঞ্চির (২৫৬০x১০৮০ পিক্সেল) OLED সেকেন্ডারি বা এক্সটার্নাল ডিসপ্লে প্যানেলও রয়েছে, যা ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও, ৪৩১ পিপিআই পিক্সেল ডেনসিটি, ১২০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট, ১২০০ নিট পিক ব্রাইটনেস এবং ৯০% স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও সাপোর্ট করে। উভয় ডিসপ্লেই ১০-বিট কালার ডেপ্থ, ১০০% পর্যন্ত DCI-P3 কালার গ্যামেট এবং সর্বোচ্চ ১৯২০ হার্টজ PWM ডিমিং টেকনোলজি সমর্থন করে।

মাল্টিটাস্কিং ও উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য আলোচ্য ৫জি হ্যান্ডসেটে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন প্লাস জেন ১ চিপসেট সমন্বিত আছে। এই ফোন একটি ডুয়াল TEE (ট্রাস্টেড এক্সিকিউশন এনভায়রনমেন্ট) সিকিউরিটি সিস্টেমের সাথে এসেছে, যাকে হার্ডওয়্যার-লেভেল সিকিউরিটির জন্য কোয়ালকমের সাথে কো-ডেভেলপ করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১২-ভিত্তিক ম্যাজিকওএস ৭.০ (MagicOS 7.0) কাস্টম স্কিনে রান করে।

Honor Magic Vs স্মার্টফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। সেই ক্যামেরাগুলি হল – ৫৪ মেগাপিক্সেল Sony IMX800 প্রাইমারি সেন্সর, অটো-ফোকাস ম্যাক্রো লেন্স সহ একটি ৫০ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড ইউনিট এবং ৩এক্স টেলিফটো লেন্স সহ একটি ৮ মেগাপিক্সেল স্ন্যাপার। উক্ত ডিভাইসের সেকেন্ডারি ডিসপ্লেতে একটি ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি শ্যুটার দেখা যাবে। যদিও ইন্টারনাল ডিসপ্লেতে কোনও ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা দেওয়া হয়নি।

কানেক্টিভিটির জন্য এই হ্যান্ডসেটে সামিল রয়েছে – ডুয়েল সিম স্লট, 5G, ওয়াই-ফাই ৬, ব্লুটুথ ৫.২, GNSS, NFC, এবং ইউএসবি ৩.১ জেন ১ (টাইপ-সি) পোর্ট৷ অন্যান্য বৈশিষ্ট্যের কথা বললে, নিরাপত্তার জন্য সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ এবং অডিও সিস্টেমের ক্ষেত্রে এতে DTS:X আল্ট্রা ও ৩টি মাইক্রোফোন সমর্থিত IMAX এনহ্যান্সড-সার্টিফাইড ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার আছে। পরিশেষে অনর ম্যাজিক ভিএস স্মার্টফোনে পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি ব্যবহৃত, যা ৬৬ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি সাপোর্ট করে।

অনর ম্যাজিক ভিএস -এর দাম (Honor Magic Vs Price)

অনর ম্যাজিক ভিএস স্মার্টফোনকে নিম্নলিখিত বিক্রয় মূল্যের সাথে চীনের বাজারে অফিসিয়াল করা হয়েছে –

স্ট্যান্ডার্ড ভ্যারিয়েন্ট :

৮ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ – ৭,৪৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৮৫,৬০০ টাকা)
১২ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ – ৭,৯৯৯ ইউয়ান (প্রায় ৯১,৩০০ টাকা)
১২ জিবি র‌্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ – ৮,৯৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১,০২,৭০০ টাকা)

আল্টিমেট ভ্যারিয়েন্ট :

১৬ জিবি র‌্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ – ১০,৮৮৮ ইউয়ান (প্রায় ১,২৪,৩০০ টাকা)

অনর ম্যাজিক ভিএস স্মার্টফোনের স্ট্যান্ডার্ড ভার্সনকে – সায়ান, ব্ল্যাক ও অরেঞ্জ কালার অপশনে নিয়ে আসা হয়েছে। অন্যদিকে, অনার ম্যাজিক ভিএস আল্টিমেট মডেলটি এসেছে – ব্ল্যাক ও গোল্ড হুইস কালারে। উভয় সংস্করণকেই আজ অর্থাৎ ২৩শে নভেম্বর থেকে প্রি-অর্ডারের জন্য উপলব্ধ করা হয়েছে এবং আগামী ৩০শে নভেম্বর থেকে এগুলিকে প্রথমবার সেলে বিক্রি করা হবে। প্রসঙ্গত, স্টাইলাস সমর্থন ছাড়া আসা অনর ম্যাজিক ভিএস -এর স্ট্যান্ডার্ড ভ্যারিয়েন্টকে ২০২৩ সালের প্রথম কোয়ার্টারে (Q1) গ্লোবাল মার্কেটে অফিসিয়াল করার কথাও নিশ্চিত করেছে সংস্থা। অর্থাৎ ভারতেও হয়তো এই ফোল্ডেবল ফোনটি পা রাখবে আগামী বছর।

আরও পড়ুন