জিরো ডাউন পেমেন্টে বাড়ি নিয়ে আসুন iPhone 14 Plus, রয়েছে ৮০০০ টাকা পর্যন্ত ছাড়

ভারতে আইফোন ১৪ প্লাস তিনটি স্টোরেজ অপশনে লঞ্চ করা হয়েছে। বেস মডেলটি ১২৮ জিবি স্টোরেজ অফার করে এবং এর দাম রাখা হয়েছে ৮৯,৯০০টাকা। আর ২৫৬ জিবি ভ্যারিয়েন্টটির মূল্য ৯৯,৯০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে

iPhone 14 Plus Sale starts in India
ভারতে আইফোন ১৪ প্লাস এর দাম

স্মার্টফোন ব্র্যান্ড Apple তাদের লেটেস্ট iPhone 14 সিরিজটি বাজারে লঞ্চ করেছে। এই সিরিজের অধীনে কোম্পানি চারটি প্রিমিয়াম স্মার্টফোন লঞ্চ করেছে, যার মধ্যে তিনটি ইতিমধ্যেই বিক্রি হচ্ছে৷ iPhone 14, 14 Pro এবং 14 Pro Max মডেলগুলি লঞ্চের পরপরই ভারতে বিক্রি শুরু হয়েছিল। আর এবার সিরিজের চতুর্থ মডেল, iPhone 14 Plus-ও অবশেষে ভারতে কেনার জন্য উপলব্ধ হয়েছে। অ্যাপল লঞ্চের সময়, ভারতে iPhone 14 Plus-এর দাম এবং অফার প্রকাশ করেছিল। জানিয়ে রাখি, এই Plus মডেলটি হল প্রথম নন-প্রো আইফোন, যা বড় ৬.৭ ইঞ্চির ডিসপ্লের সাথে এসেছে। অ্যাপল আরও দাবি করেছে যে, 14 Plus এখনও পর্যন্ত যেকোনো আইফোনের মধ্যে সবচেয়ে সেরা ব্যাটারি লাইফ অফার করে। আসুন ভারতে iPhone 14 Plus এর দাম, স্পেসিফিকেশন এবং অন্যান্য বিবরণগুলি দেখে নেওয়া যাক।

ভারতে আইফোন ১৪ প্লাস-এর দাম এবং অফার – iPhone 14 Plus Price and Offers in India

ভারতে আইফোন ১৪ প্লাস তিনটি স্টোরেজ অপশনে লঞ্চ করা হয়েছে। বেস মডেলটি ১২৮ জিবি স্টোরেজ অফার করে এবং এর দাম রাখা হয়েছে ৮৯,৯০০টাকা। আর ২৫৬ জিবি ভ্যারিয়েন্টটির মূল্য ৯৯,৯০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। টপ-এন্ড ৫১২ জিবি স্টোরেজ অপশনটির দাম ১,১৯,৯০০ টাকা। স্ট্যান্ডার্ড মডেলের মতো, আইফোন ১৪ প্লাস পাঁচটি কালার অপশনে এসেছে, এগুলি হল- মিডনাইট, স্টারলাইট, ব্লু, পার্পল এবং প্রোডাক্ট রেড।

আবার লঞ্চ অফারের অংশ হিসাবে, এইচডিএফসি (HDFC) ব্যাঙ্কের কার্ডের সাহায্য ক্রেতারা আইফোন ১৪ প্লাসে ৫,০০০ টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক দাবি করতে পারেন। অফারটি ছয় মাস পর্যন্ত নো-কস্ট ইএমআই অপশনগুলিতেও প্রযোজ্য। অন্যদিকে, আগ্রহী গ্রাহকরা বাজাজ ফাইন্যান্স, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক এবং অন্যান্যদের মাধ্যমে শূন্য ডাউন পেমেন্ট এবং ৩৭৪৬ টাকার ইএমআই সহ অ্যাপল আইফোন ১৪ প্লাস কিনতে পারবেন। এই হ্যান্ডসেটটি কেনার জন্য কোম্পানি ৩,০০০ টাকার এক্সচেঞ্জ বোনাসও প্রদান করছে।

আইফোন ১৪ প্লাস স্পেসিফিকেশন – iPhone 14 Plus Specifications

আইফোন ১৪ প্লাস-এ প্রশস্ত নচ সহ ৬.৭ ইঞ্চির ওলেড (OLED) ডিসপ্লে রয়েছে, যা স্ট্যান্ডার্ড ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ১,২০০ নিট পিক ব্রাইটনেস অফার করে। এই ডিভাইসটি অ্যাপল এ১৫ বায়োনিক চিপসেট দ্বারা চালিত, যার সাথে একটি পাঁচ-কোর জিপিইউ যুক্ত রয়েছে। এই একই চিপসেট গতবছর লঞ্চ হওয়া আইফোন ১৩ সিরিজের প্রো মডেলগুলিতে ব্যবহৃত হয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য iPhone 14 Plus-এর ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপের মধ্যে এফ/১.৫ অ্যাপারচার সহ ১২ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর এবং এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ একটি ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড লেন্স অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এতে কোন জুম লেন্স নেই, যা শুধুমাত্র আইফোন ১৪ প্রো সিরিজেই মিলবে। আর ফোনের সামনে এফ/১.৯ অ্যাপারচার সহ একটি ১২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা অবস্থান করছে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, iPhone 14 Plus ৪,৩২৫ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে, যা ৭.৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং, ১৫ ওয়াট ম্যাগসেফ (MagSafe) চার্জিং এবং ২০ ওয়াট ওয়্যার্ড চার্জিং সাপোর্ট করে। ফোনটি একবার চার্জে ২৬ ঘন্টা পর্যন্ত ভিডিও প্লেব্যাক অফার করতে পারে বলেও দাবি করা হয়েছে। তবে, এর সাথে কোনও ইন-বক্স চার্জার পাওয়া যাবে না। অ্যাপল দাবি করেছে যে, একটি ২০ ওয়াট চার্জারের (বা তার চেয়ে উচ্চতর) সাহায্যে iPhone 14 Plus-এর ব্যাটারির ৫০ শতাংশ ৩০ মিনিটের মধ্যেই পূর্ণ হয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, নতুন Plus মডেলটি তাদের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত, যারা দামি প্রো মডেলগুলি জন্য এক লাখের বেশি খরচ না করেই, দুর্দান্ত ব্যাটারি লাইফ এবং বড় ডিসপ্লে চান। তবে, আপনি যদি ১২০ হার্টজের প্রোমোশন (ProMotion) ডিসপ্লের অভিজ্ঞতা পেতে চান, কিংবা ট্রিপল-ক্যামেরা সেটআপ এবং স্টেইনলেস স্টিল ফ্রেম কিন্তু সামান্য ছোট ডিসপ্লে সহ একটি আইফোন কিনতে আগ্রহী হয়ে থাকেন, তাহলে আপনার জন্য সঠিক পছন্দ হবে iPhone 13 Pro মডেলটি।