Homeমোবাইলআজ লঞ্চের আগেই iQOO 11 5G ফোনের দাম ফাঁস, প্রথম সেলে পাওয়া যাবে ৪০০০ টাকা ছাড়

আজ লঞ্চের আগেই iQOO 11 5G ফোনের দাম ফাঁস, প্রথম সেলে পাওয়া যাবে ৪০০০ টাকা ছাড়

iQOO 11 5G আজ ভারতে আসছে, গতমাসে এই ফোনটি চীনে লঞ্চ হয়েছিল

আজ অর্থাৎ ১০ই জানুয়ারি ভারতে iQOO 11 5G লঞ্চ হচ্ছে। গত মাসে এটি চীনের বাজারে পা রেখেছিল। ফলে এদেশে লঞ্চ হওয়ার পূর্বেই আমরা ফোনটির স্পেসিফিকেশন সম্পর্কিত সব তথ্যই জানি। এক্ষেত্রে মনে করা হচ্ছে, চীনা ভ্যারিয়েন্টের প্রায় অনুরূপ ফিচার দেখা যাবে ভারতীয় সংস্করণেও। তবে ফিচার জানা গেলেও, দাম সম্পর্কে বিশেষ কিছু জানা সম্ভব হয়নি এতদিনে। কিন্তু আজ অর্থাৎ লঞ্চের আগেই এক জনপ্রিয় টিপস্টারের দৌলতে আসন্ন iQOO 11 5G স্মার্টফোনের ভারতীয় মডেলের বিক্রয় মূল্য এবং ‘ফার্স্ট সেল’ অফারের বিশদ প্রকাশ্যে এসে গেছে।

লঞ্চের আগেই iQOO 11 স্মার্টফোনের ভারতীয় সংস্করণের সম্ভাব্য দাম ফাঁস হল

টিপস্টার পারাগ গুগলানি (Parag Guglani) প্রদত্ত তথ্য অনুসারে, ভারতে আসন্ন আইকো ১১ স্মার্টফোনটি দুটি মেমরি কনফিগারেশনে আসবে। যার মধ্যে ৮ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টের দাম রাখা হবে ৫৪,৯৯৯ টাকা। আর ১৬ জিবি র‌্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ যুক্ত টপ-এন্ড অপশনের দাম ধার্য করা হতে পারে ৫৯,৯৯৯ টাকা। এক্ষেত্রে জানিয়ে রাখি, উল্লেখিত দামগুলি অফার সহ বলা হয়েছে। টিপস্টার জনিয়েছেন যে, প্রথম সেলের অংশ হিসাবে ১৬ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টের সাথে ৪,০০০ পর্যন্ত ক্যাশব্যাক অফার করা হবে। অর্থাৎ আমরা আশা করতে পারি ফোনটির টপ-এন্ড মডেলের আসল দাম প্রায় ৬৩,৯৯৯ টাকা থাকবে।

প্রসঙ্গত, আইকো ১১ স্মার্টফোনের প্রথম সেল জানুয়ারি মাসের ১৩ বা ১৪ তারিখ থেকে শুরু হবে বলেও দাবি করেছেন টিপস্টার। সর্বোপরি, সেলে ৮ জিবি র‌্যাম যুক্ত বেস মডেলের স্টক সীমিত থাকবে বলে জানা যাচ্ছে।

iQOO 11 5G

iQOO 11 5G এর স্পেসিফিকেশন

আইকো ১১ হবে ভারতে লঞ্চ হওয়া প্রথম ফোন, যা E6 AMOLED ডিসপ্লে সহ আসবে। এই ডিসপ্লে – কোয়াড এইচডি প্লাস রেজোলিউশন, ১৪৪ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট এবং ১৮০০ নিট পিক ব্রাইটনেস সাপোর্ট করবে। উন্নত পারফরম্যান্সের জন্য, হ্যান্ডসেটে কোয়ালকমের লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ চিপসেট ব্যবহার করা হবে। এটি LPDDR5x র‌্যাম এবং UFS 4.0 স্টোরেজ অফার করবে। আবার অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে ডিভাইসে অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস (FunTouch OS) কাস্টম স্কিন প্রি-লোডে করা থাকবে। এক্ষেত্রে সংস্থাটির তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে, আইকো ১১ ফোনের সাথে ৩ বছরের অ্যান্ড্রয়েড ওএস আপগ্রেড এবং ৪ বছরের সিকিউরিটি প্যাচ আপডেট দেওয়া হবে।

iQOO 11 5G স্মার্টফোনের ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে। এই ক্যামেরাগুলি – OIS সমর্থিত ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড সেন্সর এবং ২এক্স অপটিক্যাল জুম সহ ১৩ মেগাপিক্সেল টেলিফটো সেন্সর হবে হয়তো। জানিয়ে রাখি ফটোগ্রাফির মান উন্নত করতে আলোচ্য ফোনে ভিভো ভি২ (Vivo V2) চিপ ব্যবহার করা হয়েছে, যা কম আলোতেও ভালো ছবি তুলতে সক্ষম। পরিশেষে উক্ত ডিভাইসে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে যা ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জ সমর্থন করবে।

আরও পড়ুন