সদ্য লঞ্চ হওয়া Motorola Razr 50 Ultra নাকি Samsung Galaxy Z Flip 5, কোন‌ ফোন হবে সেরা

গতকাল অর্থাৎ ৪ঠা জুলাই ভারতে লঞ্চ হয়েছে মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা। সংস্থার লেটেস্ট ক্ল্যামশেল স্টাইলের এই স্মার্টফোন নতুন কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮এস জেন ৩ প্রসেসর সহ এসেছে। এতে এলটিপিও প্রাইমারি ও কভার ডিসপ্লে সহ একাধিক উল্লেখযোগ্য ফিচার বিদ্যমান। এর দাম এদেশে ৯৯,৯৯৯ টাকা রাখা হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, মোটোরোলা ব্র্যান্ডের এই নয়া ফ্ল্যাগশিপ মোবাইল গত বছর ২৬শে জুলাই আত্মপ্রকাশ করা স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ -এর সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এর বেস ভ্যারিয়েন্টের দামও ৯৯,৯৯৯ টাকা থেকে শুরু হচ্ছে। যদিও এই মডেল কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ চিপসেট চালিত। আপনারা যদি ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেট কিনতে চান, কিন্তু কোনটা কিনবেন বুঝতে না পারেন তবে আমাদের প্রতিবেদন পড়ুন। এখানে আমরা মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা এবং স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ ফোনের দাম ও স্পেসিফিকেশনের মধ্যে পার্থক্যগুলি নিয়ে আলোচনা করবো।

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ : দাম

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা ফোন ১২ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে এসেছে। এর দাম রাখা হয়েছে ৯৯,৯৯৯ টাকা। এটি – মিডনাইট ব্লু, স্প্রিং গ্রিন এবং পিচ ফাজ কালারে উপলব্ধ।

ভারতে স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ স্মার্টফোন মোট দুটি স্টোরেজ অপশনে লঞ্চ হয়েছে। যার মধ্যে ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম থাকছে ৯৯,৯৯৯ টাকা। আর উচ্চতর ৮ জিবি র‍্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে পাওয়া যাবে ১,০৯,৯৯৯ টাকায়। এটি – মিন্ট, গ্রাফাইট, ক্রিম এবং ল্যাভেন্ডার কালার বিকল্পে কেনা যাবে।

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ : ডিসপ্লে

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা ফোনের ভিতরে ৬.৯-ইঞ্চির এলটিপিও পিওলেড প্রাইমারি টাচস্ক্রিন রয়েছে, যা ফুল এইচডি প্লাস (২,৪৬০×১,০৮০ পিক্সেল) রেজোলিউশন, ১০-বিট কালার ডেপ্থ, ৪১৩ পিপিআই পিক্সেল ডেনসিটি, ১৬৫ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৩,০০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, ১২০% ডিসিআই-পি৩ কালার গ্যামেট সাপোর্ট করে। আবার বাইরের দিকে ৪-ইঞ্চির এলটিপিও পিওলেড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, যা ১,২৭২×১,০৮০ পিক্সেল রেজোলিউশন, ১০-বিট কালার ডেপ্থ, ৪১৭ পিপিআই পিক্সেল ডেনসিটি, ১৬৫ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ২,৪০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, ১০০% ডিসিআই-পি৩ কালার গ্যামেট এবং কর্নিং জি৩ অফার করে।

ডুয়াল-সিমের (ন্যানো + ই-সিম) স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ স্মার্টফোনে ৬.৭-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৬৪০ পিক্সেল) ডায়নামিক অ্যামোলেড ২এক্স ইনফিনিটি ফ্লেক্স প্রাইমারি বা ইনার ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে ১২০ হার্টজ অ্যাডাপ্টিভ রিফ্রেশ রেট এবং ২২:৯ এসপেক্ট রেশিও সাপোর্ট করে। আবার এই হ্যান্ডসেট ৩.৪-ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ফোল্ডার-আকৃতির কভার ডিসপ্লে সহ এসেছে, যার রেজোলিউশন ৭২০x৭৪৮ পিক্সেল, রিফ্রেশ রেট ৬০ হার্টজ এবং পিক্সেল ডেনসিটি ৩০৬ পিপিআই। ডিসপ্লে এবং ব্যাক প্যানেল উভয়ই কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিকটাস ২ দ্বারা সুরক্ষিত।

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ : প্রসেসর, অপারেটিং সিস্টেম, র‍্যাম, স্টোরেজ

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা স্মার্টফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮এস জেন ৩ প্রসেসর এবং অ্যাড্রেনো ৭৩৫ জিপিইউ উপস্থিত। এর সাথে ১২ জিবি এলপিডিডিআর৫এক্স র‍্যাম এবং ৫১২ জিবি ইউএফএস ৪.০ স্টোরেজ মিলবে। হ্যান্ডসেটটি অ্যান্ড্রয়েড ১৪ ভিত্তিক হ্যালো ইউআই কাস্টম অপারেটিং সিস্টেমে রান করে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ মডেলে কাস্টম কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ মোবাইল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করা হয়েছে। জানিয়ে রাখি, এই চিপসেট মূল স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ -এর একটি ‘এক্সক্লুসিভ’ সংস্করণ, যাতে ওভারক্লকড সিপিইউ এবং জিপিইউ কোর রয়েছে। এই ডিভাইসে ৮ জিবি র‌্যাম এবং সর্বোচ্চ ৫১২ জিবি স্টোরেজ মিলবে। আবার অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ভিত্তিক ওয়ান ইউআই ৫.১.১ কাস্টম স্কিন প্রি-লোডেড থাকছে।

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ : ক্যামেরা সেটআপ

ফটো ও ভিডিওগ্রাফির জন্য মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা ফোনের পিছনে ডুয়েল ক্যামেরা ইউনিট আছে। এই ক্যামেরাগুলি হল – এফ/১.৭৯ অ্যাপারচার ও ওআইএস সহ ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি শুটার (সেন্সর সাইজ : ১/১.৯৫ ইঞ্চি) + ২এক্স অপটিক্যাল জুম ও এফ/২.০ অ্যাপারচার সহ ৫০ মেগাপিক্সেল টেলিফটো লেন্স। ডিভাইসের সামনে এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা বিদ্যমান।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ স্মার্টফোনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল – এফ/২.২ অ্যাপারচার ও ১২৩-ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড প্রাইমারি সেন্সর + ডুয়াল পিক্সেল অটোফোকাস, এফ/১.৮ অ্যাপারচার, ৮৩-ডিগ্রি ফিল্ড–অফ-ভিউ এবং ওআইএস প্রযুক্তি সমর্থিত ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল সেকেন্ডারি লেন্স। এদিকে ফোল্ডেবল ডিসপ্লের উপরিভাগে এফ/২.২ অ্যাপারচার এবং ৮৫-ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ১০ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা বিদ্যমান থাকছে৷

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ : ব্যাটারি, চার্জিং ক্যাপাসিটি, কানেক্টিভিটি বিকল্প

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা ফোন ৪,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারির সাথে এসেছে, যা ৪৫ ওয়াট টার্বোপাওয়ার ফাস্ট চার্জিং, ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং এবং ৫ ওয়াট রিভার্স চার্জিং সাপোর্ট করে। কানেক্টিভিটি বিকল্প হিসাবে এতে – ডুয়েল সিম স্লট, ৫জি, ওয়াই-ফাই ৭ ৮০২.১১বিই, ব্লুটুথ ৫.৪, এনএফসি এবং জিপিএস সামিল রয়েছে।

পাওয়ার ব্যাকআপের ক্ষেত্রে স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ হ্যান্ডসেটে ৩,৭০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি আছে, যা ২৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। সংস্থার দাবি অনুসারে, এই ব্যাটারি মাত্র ৩০ মিনিটের মধ্যে ৫০% পর্যন্ত ডিভাইসকে চার্জ করতে সক্ষম। এছাড়া এই ফোন ফাস্ট ওয়্যারলেস চার্জিং ২.০ এবং ওয়্যারলেস পাওয়ার-শেয়ার প্রযুক্তির সমর্থন সহ এসেছে। তদুপরি কানেক্টিভিটির জন্য এতে মিলবে – ৫জি, ৪জি এলটিই, ওয়াই-ফাই ৬ই, ব্লুটুথ ৫.৩, জিপিএস / এ-জিপিএস, এনএফসি এবং একটি ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট।

মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ : পরিমাপ, রেটিং

আইপিএক্স৮ ওয়াটার রেজিস্ট্যান্স রেটিং প্রাপ্ত মোটোরোলা রেজার ৫০ আল্ট্রা ফোনের পরিমাপ খোলা অবস্থায় ১৭১.৪x৭৪x৭.১ মিমি / বন্ধ অবস্থায় ৮৮.১x৭৪x১৫.৩ মিমি এবং ওজন ১৮৯ গ্রাম।

স্যামসাং গ্যালাক্সি জেড ফ্লিপ ৫ ফোনের পরিমাপ খোলা অবস্থায় ১৬৫.১x৭১.৯x৬.৯ মিমি এবং বন্ধ অবস্থায় ৮৫.১x৭১.৯x১৫.১ মিমি ও ওজন ১৮৭ গ্রাম। এটি আইপিএক্স৮ রেটিং প্রাপ্ত।