Nokia C12: নোকিয়া সস্তায় ওয়াটারপ্রুফ ফোন লঞ্চ করল, মুখের সামনে ধরলেই আনলক হবে

Nokia C12 Launched in Europe

নোকিয়া তাদের C-সিরিজের অধীনে ইউরোপীয় বাজারে একটি নতুন বাজেট স্মার্টফোন লঞ্চ করেছে, যার নাম Nokia C12। এটি ২০২১ সালে আত্মপ্রকাশ করা Nokia C10-এর উত্তরসূরি হিসেবে বাজারে এসেছে। এই Android Go-চালিত হ্যান্ডসেটে এইচডি+ ডিসপ্লে, Unisoc SC9863A প্রসেসর, ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং ৩,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে। আসুন তাহলে Nokia C12-এর দাম ও সকল স্পেসিফিকেশনগুলি সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

নোকিয়া সি১২-এর স্পেসিফিকেশন – Nokia C12 Specifications

নোকিয়া সি১২-তে একটি ওয়াটারড্রপ নচ সহ ৬.৩ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে, যা এইচডি+ রেজোলিউশন অফার করে। নিরাপত্তার জন্য, এতে কোনও ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার নেই, তার পরিবর্তে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা ফেস আনলক সাপোর্ট করে। ডিভাইসটি ১.৬ গিগাহার্টজ বেস ফ্রিকোয়েন্সির অক্টা-কোর ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ প্রসেসর দ্বারা চালিত, যার সাথে ২ জিবি র‍্যাম এবং ৬৪ জিবি অনবোর্ড স্টোরেজ যুক্ত রয়েছে।

অতিরিক্ত স্টোরেজের জন্য, মাইক্রোএসডি কার্ড স্লটও রয়েছে। নোকিয়া সি১২ অ্যান্ড্রয়েড ১২-এর গো এডিশনে রান করে। নোকিয়া তাদের এই ফোনে দুই বছরের জন্য প্রতি ত্রৈমাসিকে সিকিউরিটি আপডেটের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। ফটোগ্রাফির জন্য, Nokia C12-এর রিয়ার প্যানেলে একটি ছোট ক্যামেরা মডিউল আছে, যার মধ্যে এলইডি ফ্ল্যাশ সহ একটি ৮ মেগাপিক্সেলের সেন্সর অবস্থান করছে।

ভাল গ্রিপের জন্য, ব্যাক প্যানেলে টেক্সচারাইজড প্যাটার্ন রয়েছে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, এটি ছোটো ৩,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে এবং আশ্চর্যজনকভাবে এই ব্যাটারি ফোন থেকে খোলা যাবে, যা এখন আর কোনও স্মার্টফোনে দেখাই যায় না। এছাড়াও, Nokia C12-এর কানেক্টিভিটি বিকল্পগুলির মধ্যে রয়েছে ৪জি ভিওএলটিই, ওয়াইফাই, ব্লুটুথ ৫.২, জিপিএস, ডুয়েল সিম, একটি ৩.৫ মিলিমিটারের অডিও জ্যাক এবং একটি মাইক্রোইউএসবি পোর্ট। সবশেষে, ফোনটি আইপি৫২-রেটেড ডাস্ট এবং স্প্ল্যাশ-প্রুফ।

নোকিয়া সি১২-এর দাম ও লভ্যতা – Nokia C12 Price and Availability

ইউরোপে নোকিয়া সি১২-এর একমাত্র ২ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম রাখা হয়েছে ১১৯ ইউরো (প্রায় ১০,৫০০ টাকা)। ফোনটি ডার্ক সায়ান, চারকোল এবং লাইট মিন্ট-এই তিনটি কালার অপশনে এসেছে। সি১২ প্রথমে জার্মানি এবং অস্ট্রিয়াতে উপলব্ধ হবে। এটি ভারতেও শীঘ্রই লঞ্চ হতে পারে।