Apple কে পিছনে ফেলবে Samsung, Galaxy S23 ধারে-ভারে ঠেক্কা দেবে iPhone 14 কে

Samsung তাদের আসন্ন সিরিজের মডেলগুলির পারফরম্যান্স ও ফিচার আপগ্রেডের প্রতি অধিক ফোকাস করছে। তবে ফোনগুলির ডিজাইন এবং লুকও অত্যন্ত আকর্ষণীয় হবে বলে জানা গিয়েছে

Samsung Galaxy S23 Could Be Better Than iPhone 14
Photo Credit : @Onleaks x digit.in

স্মার্টফোনের বাজারে Apple এবং Samsung-এর প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা কারোরই অজানা নয়। এ বলে আমায় দ্যাখ তো ও বলে আমায়! ইউজারদেরকে আকর্ষিত করার পাশাপাশি মার্কেটে নিজেদের জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে সংস্থা দুটি প্রতি বছরই বেশ কিছু প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট লঞ্চ করে। একথা আমাদের সকলেরই জানা যে, চলতি বছরের ৭ সেপ্টেম্বর Apple-এর ফার আউট (Far Out) ইভেন্টে iPhone 14 সিরিজটি বিশ্ববাজারে পা রেখেছে। অন্যদিকে কার্পেটিনো ভিত্তিক টেক কোম্পানিটির এই লেটেস্ট সিরিজটিকে জোর টক্কর দিতে মার্কেটে খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে Samsung Galaxy S23 Series।

লঞ্চের আগেই iPhone 14 সিরিজের সাথে তুলনা শুরু Samsung Galaxy S23 সিরিজের

ইতিমধ্যেই অ্যাপল এবং আসন্ন স্যামসাংয়ের ফ্ল্যাগশিপ হ্যান্ডসেটগুলির তুলনা শুরু হয়ে গিয়েছে। আর বেশ কিছু ক্ষেত্রে টিপস্টাররা দাবি করছেন যে, স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ সিরিজ আইফোন ১৪ সিরিজের তুলনায় আরও অনেক বেশি ভালো হবে। কিন্তু ঠিক কী কারণে তারা এরকম কথা দাবি করছেন? চলুন, স্যামসাংয়ের আসন্ন ধামাকাদার সিরিজটির সম্ভাব্য ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

Samsung Galaxy S23 সিরিজের সম্ভাব্য ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন

Samsung Galaxy S23 লাইনআপে তিনটি মডেল অন্তর্ভুক্ত থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে – Galaxy S23, Galaxy S23 Plus এবং Galaxy S23 Ultra। এরমধ্যে বেস মডেলে ৬.১ ইঞ্চি ফুলএইচডি+ ডায়নামিক অ্যামোলেড ২এক্স ইনফিনিটি-ও ডিসপ্লে থাকবে বলে জানা গিয়েছে। স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ (Snapdragon 8 Gen 2) প্রসেসর দ্বারা চালিত এই ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির দেখা মিলবে, যা ৪৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

টিপস্টারদের দাবি অনুযায়ী, উক্ত প্রসেসরের সৌজন্যে ফোনটি পূর্বসূরির চেয়ে তুলনামূলকভাবে উন্নত এন্ডিওরেন্স অফার করবে, এবং সিরিজটির প্রতিটি ফোনেই এই চিপসেট থাকবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই প্রসেসর অ্যাপলের আইফোন ১৪-এ থাকা শক্তিশালী এ১৫ (A15) চিপসেটের চাইতে আরও অনেক উন্নত। এমনকি পিক্সেল ৬ (Pixel 6) এবং পিক্সেল ৭ (Pixel 7)-এ থাকা গুগল (Google)-এর নিজস্ব টেনসর (Tensor) প্রসেসরও এর কাছে নিতান্তই নগণ্য। এককথায় বললে, স্যামসাংয়ের এই আসন্ন সিরিজের অন্যতম প্রধান হাইলাইট হতে চলেছে স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ চিপসেট।

রিপোর্ট অনুযায়ী, Samsung তাদের আসন্ন সিরিজের মডেলগুলির পারফরম্যান্স ও ফিচার আপগ্রেডের প্রতি অধিক ফোকাস করছে। তবে ফোনগুলির ডিজাইন এবং লুকও অত্যন্ত আকর্ষণীয় হবে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়া, আসন্ন সিরিজে চমৎকার ক্যামেরা সেটআপের দেখা মিলবে। আলোচ্য লাইনআপের অধীনে আসা সমস্ত স্মার্টফোনেই একই ফিচার তথা রেজোলিউশনের সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হবে বলে খবর মিলেছে। আগামী ফেব্রুয়ারিতে Samsung-এর এই চমকপ্রদ সিরিজটি মার্কেটে পা রাখবে বলে আশা করা হচ্ছে।