Homeমোবাইলমেমরি কার্ড কিনতে ভুলেই যাবেন, 1TB স্টোরেজ নিয়ে আসছে এই Samsung ফোন

মেমরি কার্ড কিনতে ভুলেই যাবেন, 1TB স্টোরেজ নিয়ে আসছে এই Samsung ফোন

সম্প্রতি স্যামসাংয়ের আসন্ন ফ্ল্যাগশিপ Samsung Galaxy S23 সিরিজের লঞ্চের তারিখটি ফাঁস হয়েছে। কোম্পানির কলম্বিয়া শাখার ওয়েবসাইটে টিজার ইনভাইট আপলোড করা হয়েছে এবং আসন্ন Galaxy S23 সিরিজের কিছু মূল বিবরণও নিশ্চিত করেছে। আগামী মাসে এই লাইনআপের অধীনে Galaxy S23, S23 Plus এবং S23 Ultra-এই তিনটি প্রিমিয়াম স্মার্টফোন লঞ্চ করবে স্যামসাং। ডিভাইসগুলি আগামী ১ ফেব্রুয়ারিতে বিশ্ববাজারে আত্মপ্রকাশ করবে বলে আশা করা হচ্ছে। যদিও, দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানিটি এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে বিস্তারিত তথ্য নিশ্চিত করেনি। তবে, এখন এক টিপস্টার Galaxy S23 সিরিজের র‍্যাম, স্টোরেজ এবং কালার অপশনগুলি প্রকাশ করেছেন। টিপস্টার জানিয়েছেন যে, আপকামিং Galaxy S-সিরিজের বেস মডেলটি কমপক্ষে ৮ জিবি র‍্যাম সহ লঞ্চ হবে।

প্রকাশ্যে এল Samsung Galaxy S23 সিরিজের র‍্যাম ও স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট এবং রঙের বিকল্প

সুপরিচিত টিপস্টার স্নুপিটেক স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ সিরিজের মেমরি কনফিগারেশন এবং কালার অপশনগুলি শেয়ার করেছেন। জানা যাচ্ছে, এই লাইনআপের টপ-এন্ড মডেল, গ্যালাক্সি এস২৩ আল্ট্রা ১২ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম এবং সর্বোচ্চ ১ টেরাবাইট স্টোরেজ অপশনের সাথে লঞ্চ হবে। এই ১ টিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টটি সম্ভবত শুধুমাত্র স্যামসাং অনলাইন স্টোরেই পাওয়া যাবে। ফোনটির বেস মডেলটি ৮ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি ইন-বিল্ট স্টোরেজের সাথে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে। এছাড়াও, এর একটি ১২ জিবি র‍্যাম + ৫১২ জিবি স্টোরেজ অপশনও থাকবে।

আবার, আল্ট্রা এবং স্ট্যান্ডার্ড মডেলের মাঝে অবস্থিত স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ প্লাস মডেলের বেস ভ্যারিয়েন্টে ৮ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি ইন-বিল্ট স্টোরেজ থাকবে। এর ৫১২ জিবি ইন-বিল্ট স্টোরেজ সহ আরেকটি ৮ জিবি র‍্যাম অপশনও মিলবে। এদিকে, স্ট্যান্ডার্ড গ্যালাক্সি এস২৩ হ্যান্ডসেটটি ৮ জিবি র‍্যাম সহ লঞ্চ হবে। এটি ১২৮ জিবি এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজে পাওয়া যাবে। শুধুমাত্র, রেগুলার মডেলটিই ১২৮ জিবি স্টোরেজ যুক্ত লাইনআপের একমাত্র ডিভাইস হবে।

এর পাশাপাশি, জানা গেছে যে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ সিরিজের তিনটি ডিভাইসই বোটানিক গ্রিন, মিস্টি লাইল্যাক, ফ্যান্টম ব্ল্যাক এবং কটন ফ্লাওয়ার কালারে বাজারে আসবে। আরও কিছু রঙের বিকল্প থাকবে, যা স্যামসাং ই-স্টোরের মাধ্যমে একচেটিয়াভাবে পাওয়া যাবে। জানিয়ে রাখি, ডিসপ্লে সাপ্লাই চেইন বিশেষজ্ঞ, রস ইয়াং এর আগে প্রকাশ করেছিলেন যে, এস২৩ লাইনআপের বিশেষ কালার অপশনগুলি হবে – গ্রে, লাইট ব্লু, লাইট গ্রীন এবং রেড। এগুলি কম পরিমাণে বাজারে উপলব্ধ হবে।

এছাড়া, চারটি প্রধান কালার ভ্যারিয়েন্টের হাই-রেজোলিউশনের ছবিগুলিও সম্প্রতি আপলোড করা হয়েছে। এগুলি নিশ্চিত করে যে, ফ্ল্যাগশিপ স্যামসাং হ্যান্ডসেটগুলির ডিজাইন, অতীতে ফাঁস হওয়া রেন্ডারের অনুরূপ হবে। উল্লিখিত তথ্যগুলি ছাড়াও, Galaxy S23 সিরিজের প্রধান স্পেসিফিকেশনও বিভিন্ন সূত্র মারফৎ প্রকাশ্যে এসেছে। আসুন এগুলি সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

Samsung Galaxy S23 সিরিজের স্পেসিফিকেশন এবং ফিচার

জানা যাচ্ছে, Galaxy S23 Ultra বেশিরভাগ আপগ্রেড পাবে। ডিভাইসটিতে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং কোয়াড-এইচডি+ রেজোলিউশন সহ ৬.৮ ইঞ্চির ডায়নামিক অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লে থাকবে। এর স্ক্রিনটি কার্ভড হবে এবং ডিসপ্লের ওপরের কেন্দ্রে একটি পাঞ্চ-হোল কাটআউট দেখা যাবে।

ফটোগ্রাফির জন্য, Galaxy S23 Ultra পূর্বসূরির মতো কোয়াড-ক্যামেরা সেটআপের সাথে আসবে, যার মধ্যে নতুন ২০০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা সেন্সর অন্তর্ভুক্ত থাকবে। এছাড়াও, এতে একটি ২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা এবং দুটি ১০ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা অবস্থান করবে৷ তবে, টেলিফটো ক্যামেরা সেন্সরগুলিতে আগের মতোই ৩X এবং ১০X অপটিক্যাল জুম সাপোর্ট করবে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য, S23 Ultra বড় ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসবে, যা ২৫ ওয়াট ওয়ার্ড চার্জিং, ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং এবং ১০ ওয়াট রিভার্স চার্জিং সাপোর্ট করবে। এতে এস-পেন (S-Pen) স্টাইলাসের জন্য একটি স্লট থাকবে বলে জানা গেছে।

এদিকে, Galaxy S23 Plus-এ ৬.৬ ইঞ্চির ফুল-এইচডি+ অ্যামোলেড (AMOLED) ডিসপ্লে থাকবে। আর স্ট্যান্ডার্ড S23 5G-তে ৬.১ ইঞ্চির ডিসপ্লে থাকবে। উভয় ফ্ল্যাট অ্যামোলেড ডিসপ্লে হবে এবং এগুলির ওপরের কেন্দ্রে একটি পাঞ্চ-হোল কাটআউট অবস্থান করবে। এছাড়াও, এই স্ক্রিনগুলি ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট অফার করবে।

ক্যামেরার ক্ষেত্রে, Galaxy S23 এবং S23 Plus- উভয় মডেল একই ট্রিপল-ক্যামেরা সেটআপের সাথে আসবে, যার মধ্যে ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা, একটি ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা এবং ৩x অপটিক্যাল জুম সহ ১০ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো সেন্সর উপস্থিত থাকবে৷ পাওয়ার ব্যাকআপের ক্ষেত্রে, Galaxy S23 Plus ৪,৭০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে আসবে, যেখানে স্ট্যান্ডার্ড মডেলে ৩,৯০০ এমএএইচ ব্যাটারি থাকবে। উভয় ফোনই ২৫ ওয়াট ওয়্যার্ড চার্জিং এবং ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং অফার করবে।

সবশেষে, Galaxy S23 সিরিজে একটি ১২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা এবং কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ প্রসেসর থাকবে। তিনটি ফোনই অ্যান্ড্রয়েড ১৩ ভিত্তিক স্যামসাংয়ের লেটেস্ট ওয়ান ইউআই ৫.০ (One UI 5.0) ইউজার ইন্টারফেসে রান করবে।

আরও পড়ুন