মোবাইল

ভেঙে গেল সব রেকর্ড, Flipkart সেলে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে এই ফোন, দাম শুরু ৮০০০ টাকা থেকে

Xiaomi অধীনস্ত ব্র্যান্ড Poco -র বাভিন্ন রেঞ্জের স্মার্টফোন মডেলকে বর্তমানে ব্যাপক ডিসকাউন্টের সাথে বিক্রি করা হচ্ছে। বিশেষত, উক্ত সংস্থার বাজেট সেগমেন্টের ডিভাইসগুলি কেনার প্রতি অত্যন্ত আগ্রহ দেখছেন ভারতীয় ক্রেতারা। যার দরুন সংস্থার ভারতীয় শাখার আধিকারিক ওয়েবসাইট বাদেও Flipkart আয়োজিত ‘Big Billion Days Sale’ -এও দারুন পারফরম্যান্স রেকর্ড করেছে Poco ফোনগুলি। সর্বোপরি, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে লঞ্চ হওয়া Poco M4 Pro এবং গত বছর সেপ্টেম্বরে আগত Poco C31 স্মার্টফোন দুটি ই-কমার্স সাইট Flipkart -এর চলমান সেলে ১৫,০০০ টাকার কম প্রাইজ সেগমেন্টের অধীনে সর্বাধিক বিক্রি হওয়া স্মার্টফোনের শিরোপা জিতে নিয়েছে। এই পরিসংখ্যানটি সেলের ‘আর্লি অ্যাক্সেস ডে’ (২২শে সেপ্টেম্বর) এবং ‘ফার্স্ট ডে’ (২৩শে সেপ্টেম্বর) ভিত্তিক।

Poco India -এর প্রধান হিমাংশু ট্যান্ডন তার অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্ট শেয়ার করে এই নতুন রেকর্ড সম্পর্কিত তথ্য দিয়েছেন। যেখানে – ১৫,০০০ টাকার নিচের প্রাইস-রেঞ্জে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া ফোন হিসাবে Poco M4 Pro -এর নাম উঠে এসেছে। একই ভাবে, ৮,০০০ টাকা মূল্যের মধ্যে Poco C31 ফোনের চাহিদা সর্বাধিক জানা যাচ্ছে। এক্ষেত্রে, ফিচার এবং Flipkart Big Billion Days Sale -এ প্রযোজ্য অফারের কারণে উল্লেখিত মডেল-দ্বয় ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে বলে আমাদের ধারণা।

Poco M4 Pro অফার এবং স্পেসিফিকেশন

ফ্লিপকার্ট বিগ বিলিয়ন ডেজ সেলে, পোকো এম৪ প্রো স্মার্টফোনের ৬ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ মডেলকে ১০,৯৯৯ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। অফার হিসাবে, Axis অথবা ICICI ব্যাঙ্কের কার্ড ব্যবহার করে মডেলটি খরিদ করলে অতিরিক্ত ছাড়ও পাওয়া যাবে। আর ক্রেতারা যদি তাদের পুরানো মোবাইল পরিবর্তন করে এটি কেনেন, তবে ১০,৪০০ টাকা পর্যন্ত এক্সচেঞ্জ বোনাস দেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, আলোচ্য পোকো ফোনটির আসল দাম ১৭,৯৯৯ টাকা।

এবার আসা যাক ফিচারের প্রসঙ্গে। Poco M4 Pro স্মার্টফোনে গরিলা গ্লাস ৩ প্রটেকশন সহ একটি ৬.৪৩ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০×২,৪০০ পিক্সেল) AMOLED ডিসপ্লে আছে। এই ডিসপ্লে, ১,০০০ নিট পিক ব্রাইটনেস, ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৪০৯ পিপিআই পিক্সেল ডেন্সিটি এবং ১৮০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট সাপোর্ট করে। উক্ত ডিভাইসে অক্টা-কোর মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৬ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইইউআই ১৩ (MIUI 13) কাস্টম স্কিনে রান করবে। উল্লেখ্য, নির্ধারিত র‌্যাম ছাড়াও এতে ডায়নামিক র‌্যামের সাপোর্টও পাওয়া যাবে। ফটোগ্রাফির জন্য পোকো এম৪ প্রো ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এগুলি হল, ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ১১৮-ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড লেন্স এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। একইভাবে, সেলফি এবং ভিডিও কলিংয়ের জন্য ডিভাইসে মিলবে ১৬ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য পোকো এক্স৪ প্রো ফোনে, ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া, সিকিউরিটির জন্য এতে সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার উপলব্ধ।

Poco C31 অফার এবং স্পেসিফিকেশন

ফ্লিপকার্টের মাধ্যমে, পোকো সি৩১ স্মার্টফোনের ৩ জিবি র‍্যাম + ৩২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে মাত্র ৬,৬৬৬ টাকায় কেনা যাবে। আর, ৪ জিবি র‍্যাম + ৬৪ জিবি স্টোরেজ অপশনকে ৭,৭৭৭ টাকায় তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তবে ব্যাঙ্ক কার্ড ডিসকাউন্ট এবং এক্সচেঞ্জ বোনাসের লাভ ওঠাতে পারলে এই ডিভাইসকে আরো সস্তায় পকেটস্থ করা যাবে।

ফিচার হিসাবে,Poco C31 স্মার্টফোনে একটি ৬.৫৩ ইঞ্চির এইচডি প্লাস (৭২০x১৬০০ পিক্সেল) LCD ডিউড্রপ নচ ডিসপ্লে আছে, যা ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও সাপোর্ট করে। পারফরম্যান্সের জন্য ফোনে, PowerVR GE8320 জিপিইউ এবং ২.৩ গিগাহার্টজ ক্লক রেটের অক্টা কোর মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২ কাস্টম স্কিনে রান করে। ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এগুলি হল – এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো লেন্স। সেলফি ও ডিভিও কলিংয়ের জন্য এই ডিভাইসে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। আর পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য আলোচ্য ৪জি কানেক্টিভিটির স্মার্টফোনে ১০ ওয়াট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে। এটি P2i নন-কোটিং স্প্ল্যাশ প্রোটেকশন সহ এসেছে।

Back to top button