Samsung Galaxy S23 থেকে OnePlus 11, চলতি বছরে লঞ্চ হচ্ছে এই ১১টি সুপারহিট স্মার্টফোন

Samsung, OnePlus, Xiaomi, iQOO, Realme, Vivo এবং Oppo ব্রান্ডিংয়ের মোট ১১টি মডেল ভারত সহ বিশ্ব বাজারে লঞ্চ হতে চলেছে

Upcoming Smartphones list 2023

২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাস গ্লোবাল স্মার্টফোন মার্কেটের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ তথা রোমাঞ্চকর মাস হতে চলেছে। কেননা ফেব্রুয়ারিতে একাধিক নামিদামি স্মার্টফোন নির্মাতা সংস্থা তাদের একগুচ্ছ লেটেস্ট হ্যান্ডসেট ভারত এবং বিশ্বব্যাপী লঞ্চ করবে বলে জানা গেছে। যার মধ্যে কিছু মডেলের আগমন স্বয়ং সংস্থা নিশ্চিত করেছে এবং কিছু মডেলের লঞ্চের তারিখ টিপস্টাররা ফাঁস করেছেন। এক্ষেত্রে আসন্ন স্মার্টফোনের তালিকায় – Samsung, OnePlus, Xiaomi, iQOO, Realme, Vivo এবং Oppo ব্রান্ডিংয়ের মোট ১১টি মডেল অন্তর্ভুক্ত। চলুন তালিকাটি দেখে নেওয়া যাক…

২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে আসন্ন ১১টি স্মার্টফোনের তালিকা

১. Samsung Galaxy S23 :

স্যামসাং তাদের ‘গ্যালাক্সি আনপ্যাকড’ ইভেন্টের তারিখ ইতিমধ্যেই নিশ্চিত করেছে, যা কিনা ১লা ফেব্রুয়ারি নির্ধারণ করা হয়েছে। এই ইভেন্ট চলাকালীন দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক টেক জায়ান্টটি তাদের পরবর্তী প্রজন্মের স্মার্টফোন সিরিজ Galaxy S23 লঞ্চ করবে বলে আশা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে, আলোচ্য লাইনআপের সর্বাধিক সাশ্রয়ী মূল্যের ফ্ল্যাগশিপ ফোন তথা ভ্যানিলা মডেল হবে গ্যালাক্সি এস২৩। এই স্মার্টফোনটি সম্ভবত উন্নত ডে-লাইট ক্যামেরা পারফরম্যান্স এবং কোয়ালকমের সর্বশেষ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ চিপসেট সহ আসবে। একই সাথে, উক্ত মডেলের সাথে একটি নতুন কালার বিকল্প অফার করা হবে বলেও শোনা যাচ্ছে।

২. Samsung Galaxy S23+ :

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ সিরিজের, এই প্লাস মডেলটির দাম ভ্যানিলা এবং ‘আল্ট্রা’ ভ্যারিয়েন্টের মধ্যবর্তী হবে। ফিচার হিসাবে এতে, গত বছর আগত Galaxy S22+ মডেলের অনুরূপ ৬.৬-ইঞ্চির ডিসপ্লে দেওয়া হতে পারে। আর উক্ত ফোনের ক্যামেরা মডিউল পরিবর্তিত ডিজাইনের সাথে আসবে বলেও আশা করা হচ্ছে।

৩. Samsung Galaxy S23 Ultra :

গ্যালাক্সি এস২৩ লাইনআপের সবচেয়ে শক্তিশালী এবং ব্যয়বহুল মডেল হবে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ আল্ট্রা। সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুসারে, এই মডেলে পূর্বসূরির তুলনায় বড় ক্যামেরা, আরো উন্নত পারফরম্যান্স এবং অ্যাডভান্স ফিচার যুক্ত করা হতে পারে। যেমন, স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ আল্ট্রা ফোনে নতুন ২০০ মেগাপিক্সেলের রিয়ার প্রাইমারি ক্যামেরা এবং লেটেস্ট কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ প্রসেসর দেওয়া হতে পারে।

৪. OnePlus 11 :

ওয়ানপ্লাস ইতিমধ্যেই তাদের হোম-মার্কেটে ওয়ানপ্লাস ১১ স্মার্টফোন লঞ্চ করেছে। আর আগামী ৭ই ফেব্রুয়ারি আয়োজিত একটি লঞ্চ ইভেন্টে এই ফোনটিকে গ্লোবাল মার্কেটে ঘোষণা করার পরিকল্পনা করছে সংস্থাটি। বিশেষত্ব হিসাবে, আলোচ্য মডেলে ২কে রেজোলিউশনের ডিসপ্লে দেওয়া হতে পারে এবং এটি সম্ভবত কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ প্রসেসর দ্বারা চালিত হবে। এছাড়া এই স্মার্টফোন – ৫০ মেগাপিক্সেলের মুখ্য সেন্সর সমন্বিত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ এবং ১০০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির সমর্থন সহ আসতে পারে।

৫. Xiaomi 13 :

২০২২ সালের ডিসেম্বর মাসে চীনের বাজারে আত্মপ্রকাশ করেছিল শাওমি ১৩ সিরিজ৷ আর আগামী মাসে বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত হতে চলা ‘মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০২৩’ বা সংক্ষেপে MWC 2023 ইভেন্টে উক্ত স্মার্টফোন লাইনআপকে বিশ্বব্যাপী লঞ্চ করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে৷ এক্ষেত্রে সিরিজের রেগুলার মডেল, শাওমি ১৩ সম্ভবত ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সমর্থিত AMOLED ডিসপ্লে প্যানেল এবং লেটেস্ট কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ চিপসেট সহ আসবে। আর এটি ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করতে পারে।

৬. Xiaomi 13 Pro :

শাওমি ১৩ সিরিজের এই টপ-এন্ড ভ্যারিয়েন্ট তুলনায় বড় ডিসপ্লে সহ আসবে। তবে পারফরম্যান্সের জন্য এতে ভ্যানিলা মডেলের অনুরূপ চিপসেট ব্যবহার করা হতে পারে। শাওমি ১২ প্রো ফোনে – ৫০ মেগাপিক্সেলের মুখ্য সেন্সর যুক্ত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ইউনিট বিদ্যমান থাকতে পারে এবং এতে সম্ভবত ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সমর্থন করবে।

৭. iQOO Neo 7 5G :

ভিভো সংস্থার সাব-ব্র্যান্ড আইকো সম্প্রতি নিশ্চিত করেছে যে, তাদের আসন্ন স্মার্টফোন মডেল আইকো নিও ৭ ৫জি আগামী ১৭ই ফেব্রুয়ারি ভারতে লঞ্চ হবে। আর লঞ্চ পরবর্তী সময়ে এটি ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনের (Amazon) মাধ্যমে কেনার জন্য উপলব্ধ হবে। প্রসঙ্গত, আইকো ইন্ডিয়ার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ইতিমধ্যেই ফোনটির একটি ল্যান্ডিং পেজ লাইভ করে দেওয়া হয়েছে। যার দরুন জানা যাচ্ছে, এতে ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের AMOLED ডিসপ্লে, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮২০০ চিপসেট, OIS-এনাবল ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ এবং ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির সমর্থন অফার করা হবে।

৮. Realme GT Neo 5 :

ফেব্রুয়ারি মাসেই চীনের বাজারে রিয়েলমি জিটি নিও ৫ স্মার্টফোনকে উন্মোচন করা হবে বলে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে। প্রসঙ্গত গত বছর অনুষ্ঠিত ‘মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০২২’ ইভেন্টে ওপ্পো, ২৪০ ওয়াট সুপারভোক ফ্ল্যাশ চার্জ টেকনোলজির ঘোষণা করেছিল। ফলে আসন্ন রিয়েলমি স্মার্টফোনে লেটেস্ট ২৪০ ওয়াট চার্জিং টেকনোলজির সমর্থন পাওয়া যাবে বলে আশা করছি আমরা। আর আমাদের অনুমান যদি ঠিক হয়, তবে রিয়েলমি জিটি নিও ৫ হবে ২৪০ ওয়াট চার্জিং ক্যাপাসিটি সমর্থিত প্রথম ফোন। জানিয়ে রাখি, এই প্রযুক্তি মাত্র ৯ মিনিটের মধ্যে ৪,৫০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সম্পূর্ণ চার্জ করতে সক্ষম।

৯. Realme 10 5G :

রিয়েলমি সম্প্রতি ভারতে রিয়েলমি ১০ স্মার্টফোন সিরিজের ঘোষণা করেছে। তৎকালীন সময়ে এই লাইনআপের অধীনে মোট তিনটি মডেল লঞ্চ হয়েছিল – Realme 10 Pro 5G, Realme 10 Pro+ 5G এবং Realme 10 4G৷ আর এখন জানা যাচ্ছে, সংস্থাটি আগামী মাসে উক্ত সিরিজের রেগুলার মডেলের একটি ৫জি সংস্করণ চালু করার পরিকল্পনা করছে৷ এক্ষেত্রে শীঘ্রই ভারতে আসন্ন রিয়েলমি ১০ ৫জি স্মার্টফোনে, ৪জি ভ্যারিয়েন্টের অনুরূপ ফিচার উপস্থিত থাকতে পারে।

১০. Vivo X90 সিরিজ :

গত বছর নভেম্বর নাগাদ ভিভো এক্স৯০ স্মার্টফোন সিরিজ পা রেখেছিল চীনের বাজারে। এই লাইনআপের অধীনে – Vivo X90, Vivo X90 Pro এবং X90 Pro+ স্মার্টফোন আত্মপ্রকাশ করেছিল৷ জানা যাচ্ছে, চলতি বছরে ফেব্রুয়ারি মাসে হয়তো এই সিরিজটিকে গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ করা হবে। বিশেষত্ব হিসাবে, ভিভো এক্স৯০ লাইনআপ জেইস (Zeiss) ব্র্যান্ডিংয়ের ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে। আর উন্নত ফটোগ্রাফির জন্য এতে সংস্থার ইন-হাউস ভি২ (V2) ইমেজ প্রসেসিং চিপসেট সমন্বিত থাকতে পারে। এটি ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং অফার করবে।

১১. Oppo Reno 8T :

ওপ্পো রেনো ৮টি সম্ভবত – ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের OLED ডিসপ্লে প্যানেল, ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি রিয়ার ক্যামেরা, কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৯৫ প্রসেসর এবং ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি সমর্থন করবে। আর এই স্মার্টফোন ৪জি এবং ৫জি উভয় কানেক্টিভিটি ভ্যারিয়েন্টের সাথে আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে ভারতে লঞ্চ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।