অপেক্ষার মেয়াদ বাড়তে পারে, Xiaomi 13 Ultra দেরিতে লঞ্চ হওয়ার সম্ভাবনা

Xiaomi 13 Ultra Launch Delayed

গত ডিসেম্বরে ফ্ল্যাগশিপ Xiaomi 13 সিরিজের স্মার্টফোনগুলি আনুষ্ঠানিকভাবে চীনে আত্মপ্রকাশ করেছে। এই ডিভাইসগুলি আগামী মাসে স্পেনের বার্সেলোনায় আয়োজিত মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০২৩ (MWC 2023) ইভেন্টে গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চের ঘোষণা করা বলে জানা গেছে। যদিও, এই সিরিজে বর্তমানে স্ট্যান্ডার্ড Xiaomi 13 এবং Xiaomi 13 Pro মডেল দুটি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। তবে, উচ্চতর Xiaomi 13 Ultra মডেলটিকে নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়ে গেছে। শাওমির সিইও লেই জুন সম্প্রতি নিশ্চিত করেছেন যে, তারা Xiaomi 13 Ultra প্রধান ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস হিসেবে চীন এবং বিশ্ব বাজারে একইসঙ্গে আসলে। আর এমডব্লিউসি ইভেন্টে এটি লঞ্চ হতে পারে বলেও বিভিন্ন সূত্রে দাবি করা হয়েছে। তবে এখন এক জনপ্রিয় টিপস্টার এ সম্পর্কে নতুন সম্ভাবনার কথা প্রকাশ করেছেন। আসুন বিষয়টি সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

Xiaomi 13 Ultra প্রত্যাশিত সময়ের চেয়ে দেরিতে লঞ্চ হতে পারে

টিপস্টার ডিজিটাল চ্যাট স্টেশন জানিয়েছেন যে, নতুন ওপ্পো ফাইন্ড এক্স৬ এবং অনর ম্যাজিক ৫- সিরিজ দুটি চীনা নববর্ষের কিছু পরেই বাজারে পা রাখবে। আর চীনা নববর্ষ পালিত হবে আগামী ২২ জানুয়ারি। নববর্ষ উদযাপনের দৈর্ঘ্য বিবেচনা করে, উভয় লাইনআপই ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময় থেকে শেষের মধ্যে আত্মপ্রকাশ করতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। কিন্তু টিপস্টার দাবি করেছেন যে, আসন্ন শাওমি ১৩ আল্ট্রা মডেলটি এরপরেও লঞ্চ হবে না।

তাই, মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস ২০২৩ ইভেন্টে শাওমি ১৩ আল্ট্রা-এর লঞ্চ হওয়া প্রায় অসম্ভব, কেননা এই সম্মেলনটি ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে শুরু হবে। যদিও, প্রিমিয়াম শাওমি ১৩ এবং শাওমি ১৩ প্রো ডিভাইসগুলির গ্লোবাল লঞ্চের বিষয়ে ইতিমধ্যেই কোম্পানির তরফে নিশ্চিত করা হয়েছে। বর্তমানে শোনা যাচ্ছে, শাওমি ১৩ আল্ট্রা মার্চের শেষের দিকে বা এপ্রিলের শুরুতে হোম মার্কেটে আত্মপ্রকাশ করতে পারে। তবে, এই ফ্ল্যাগশিপটি একই সাথে বিশ্বের অন্যান্য বাজারেও উপস্থিত হবে কিনা, তা আপাতত জানা যায়নি।

জানিয়ে রাখি, এখন পর্যন্ত Xiaomi 13 Ultra সম্পর্কীত যেসব রিপোর্টগুলি প্রকাশ্যে এসেছে, তার ওপর ভিত্তি করে বলা যায় যে, এতে ৫০ মেগাপিক্সেলের ১-ইঞ্চি Sony IMX989 প্রাইমারি ক্যামেরা সমন্বিত একটি কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ উপস্থিত থাকতে পারে।

সেটআপের চারটি ক্যামেরায় পিডিএএফ (PDAF) অটোফোকাস সাপোর্ট করতে পারে এবং প্রাথমিক ক্যামেরাটি জিম্বল অপ্টিমাইজেশানের সাথে আসতে পারে। এটি সম্ভবত সিরিজের বাকি মডেলগুলির মতোই কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ২ প্রসেসর দ্বারা চালিত হবে। আর Xiaomi 13 Ultra সর্বাধিক ১৬ জিবি এলপিডিডিআর৫এক্স র‍্যাম এবং ৫১২ জিবি/১ টিবি পর্যন্ত ইউএফএস ৪.০ স্টোরেজ প্রদান করতে পারে।