৬ হাজার টাকা ছাড়! Mi 11 Lite ফোনের ৬ জিবি মডেলের থেকে অনেক সস্তা ৮ জিবি মডেল, Xiaomi-র হল টা কি

শাওমি এমআই ১১ লাইট ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ভারতে ২৫,৯৯৯ টাকায় করা হয়েছিল। কিন্তু এখন ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনে এর দাম পুরো ৬,০০০ টাকা কমানো হয়েছে

Mi 11 Lite Price in India cut By rs 6000

গত বছর ভারতের বাজারে মিড রেঞ্জে লঞ্চ হয়েছিল Xiaomi Mi 11 Lite। আর এখন অর্থাৎ আগমনের প্রায় দেড় বছরের মাথায় হ্যান্ডসেটটির দাম একধাক্কায় ৬,০০০ টাকা কমানো হল। তবে ফোনটির কেবল ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টই কম দামে পাওয়া যাবে। আর মজার বিষয় হল, ৮ জিবি ভ্যারিয়েন্ট এত সস্তা হয়ে যাওয়ায় ৬ জিবি র‌্যাম ভ্যারিয়েন্ট কিনতে চাইলে এখন ক্রেতাদের বেশি অর্থ ব্যয় করতে হবে। Xiaomi Mi 11 Lite ফোনের ফিচারের কথা বললে, এতে আছে অ্যামোলেড ডিসপ্লে ও কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর।

Xiaomi Mi 11 Lite ফোনের নতুন দাম

শাওমি এমআই ১১ লাইট ফোনের ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টকে ভারতে ২৫,৯৯৯ টাকায় করা হয়েছিল। কিন্তু এখন ই-কমার্স সাইট অ্যামাজনে (Amazon) এর দাম পুরো ৬,০০০ টাকা কমানো হয়েছে। যার দরুন উক্ত ফোনের ৮ জিবি ভ্যারিয়েন্টটি বর্তমানে ১৯,৯৯৯ টাকায় কেনা যাচ্ছে। আবার আপনি যদি কিস্তিতে ফোনটি কিনতে চান, তবে মাসিক ৯৫৫ টাকার প্রারম্ভিক স্ট্যান্ডার্ড ইএমআই বিকল্পের সুবিধা পেয়ে যাবেন। সাথে নো-কস্ট ইএমআই অপশনও অফার করা হচ্ছে

প্রসঙ্গত, শাওমি আনীত এই ফোনের ৬ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের এমআরপি (MRP) ২৪,৯৯৯ টাকা হলেও, বর্তমানে এটিকে ৩,০০০ টাকা ছাড়ের সাথে ২১,৯৯৯ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে অ্যামাজনে। সেক্ষেত্রে ছাড় পাওয়ার পরেও বেস ভ্যারিয়েন্টের দাম টপ-এন্ড মডেলের থেকে ২,০০০ টাকা বেশি থাকছে। ফলে ৮ জিবি র‌্যাম যুক্ত মডেলটি কেনাই অধিক লাভজনক হবে।

Xiaomi Mi 11 Lite স্মার্টফোনের স্পেসিফিকেশন

এমআই ১১ লাইট স্মার্টফোনে ৬.৫৫-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস AMOLED ডিসপ্লে দেখা যাবে, যার রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ। ফাস্ট-পারফরম্যান্সের জন্য এতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। আবার অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে ফোনে অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক এমআইইউআই ১২ (MIUI 12) কাস্টম স্কিন পাওয়া যাবে। ডিভাইসে ৮ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ বর্তমান।

ফটোগ্রাফির জন্য শাওমি আনীত এই হ্যান্ডসেটে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল – ৬৪ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর। আর ডিভাইসের সামনে একটি ২০ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য Xiaomi Mi 11 Lite স্মার্টফোনে ৩৩ ওয়াট ফাস্ট-চার্জিং সাপোর্ট সহ ৪,২৫০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি ব্যবহৃত হয়েছে। আর নিরাপত্তার জন্য এতে সাইড-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর মিলবে।