ডুয়েল সেলফির সাথে লঞ্চ হল Motorola One 5G, রয়েছে পাওয়ারফুল ব্যাটারি

গত জুলাই মাসে ইউরোপে লঞ্চ হয়েছিল Moto G 5G Plus। এই ফোনকেই এবার আমেরিকায় Motorola One 5G নামে লঞ্চ করা হল। এই ফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি প্রসেসর দেওয়া হয়েছে। এরসাথে মোটোরোলা ওয়ান ৫জি ফোনে পাওয়া যাবে পাওয়ারফুল ব্যাটারি, ডুয়েল সেলফি ক্যামেরা, চারিপাশে সরু বেজেল। ফোনটিকে কোম্পানি অন্যান্য মার্কেটে লঞ্চ করবে কিনা সে বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি। আসুন Motorola One 5G এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Motorola One 5G দাম:

আমেরিকায় মোটোরোলা ওয়ান ৫জি ফোনের ৪ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ৫০০ ডলার, যা প্রায় ৩৬,৬০০ টাকার সমান। ইউরোপে এই ফোনটি ৪ জিবি র‍্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ এবং ৬ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের সাথে লঞ্চ হয়েছিল। যাদের দাম ছিল যথাক্রমে ২৯,৫০০ টাকা ও ৩৩,০০০ টাকা।

Motorola One 5G স্পেসিফিকেশন:

মোটোরোলা ওয়ান ৫জি ফোনে ৬.৭ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, এর রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ। আবার এর পিক্সেল রেজুলেশন ১০৮০ x ২৫২০ পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও ২১:৯। এতে এইচডিআর ১০ সাপোর্ট করে। এই ফোনের ডিসপ্লের ডিজাইন পাঞ্চ হোল। এই কাট আউট এর মধ্যে ১৬ মেগাপিক্সেল (এফ/২.০) + ৮ মেগাপিক্সেল (এফ/২.০) আলট্রা ওয়াইড ডুয়েল সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এই ফোনে পাবেন কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫ ৫জি প্রসেসর। এছাড়াও পাবেন ৪ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ১ টিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে অ্যান্ড্রয়েড ১০ দেওয়া হয়েছে।

ফটোগ্রাফির জন্য এই ফোনের পিছনে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৮ অ্যাপারচার সহ ৪৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য তিনটি ক্যামেরা হল ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড ক্যামেরা ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। এই ফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। যার সাথে ১৫ ওয়াট ইউএসবি সি টার্বোপাওয়ার ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। কানেক্টিভিটির জন্য এতে ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক ও ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট দেওয়া হয়েছে। সিকিউরিটির জন্য এতে পাবেন সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।