অক্টোবর থেকে বাড়তে পারে নতুন টিভির দাম, জেনে নিন কারণ

new-tv-price-may-increase-from-october-for-5-percent-import-duty-on-open-cell

আমাদের জীবনে বিনোদনের একটি প্রধান উৎস টিভি। স্মার্টফোন চলে আসার পর টিভির জনপ্রিয়তা একটু কমে গেলেও ভারতে এখনও এর একটি বড় বাজার আছে। তবে যারা নতুন টিভি কেনার কথা ভাবছেন তাদের জন্য একটি খারাপ খবর আছে। আসলে আমরা জানি টিভির সব যন্ত্রাংশ ভারতে পাওয়া যায় না। কিছু কিছু অংশ বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়। এমনই একটি অংশ হলো ওপেন সেল (Open Cell)। কনজিউমার ইলেকট্রনিক্স এন্ড অ্যাপ্লায়েন্সস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (CEAMA) রবিবার জানিয়েছে যে, পরের মাস থেকে এই ওপেন সেলের উপর ৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক পুনরায় চালু করতে চলেছে। কোভিড ১৯-এর কারণে এমনিতেই টিভি নির্মাতারা যথেষ্ট চাপে রয়েছেন। তার উপরেই নতুন কর তাদের ওপর অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি করবে এ বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই।

এবিষয়ে CEAMA এর প্রেসিডেন্ট কমল নন্দী জানিয়েছেন, ” পুনরায় আমদানি শুল্ক চাপানোর ফলে দেশীয় কোম্পানিগুলির টিভির দাম বাড়বে এবং প্রতিযোগিতায় টিকে থাকা অসম্ভব হয়ে পড়বে। টেলিভিশনের মোট উৎপাদন ব্যয়ের ৬৫% ওপেন সেল প্যানেলের জন্য খরচ হয় এবং নতুন কর প্রযুক্ত হওয়ার ফলে টিভির সামগ্রিক দামের উপর প্রভাব পড়বে।”

Videotex International Group-এর ডাইরেক্টর অর্জুন বাজাজ বলেন,”ভারতে ওপেন সেল ম্যানুফ্যাকচার করতে গেলে একটা বিরাট পরিমাণ বিনিয়োগ দরকার। যতদিন না সরকার সেটা করছে ততদিন ওপেন সেলের উপর কর না নেওয়া উচিত। সরবরাহকারীদের তরফ থেকে ওপেন-সেলের দাম বৃদ্ধির পর আবার এই নতুন কর প্রযুক্ত হওয়ার টিভির দাম অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে।”

সরকার গত বছর ওপেন সেলের উপর আমদানি শুল্ক মকুব করেছিল। ৩০-শে সেপ্টেম্বর অব্দি এই ছাড় বলবৎ। সময়সীমা শেষ হওয়ার ফলে অক্টোবর থেকে এই কর আবার চালু হবে বলে জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রকের একটি সূত্র। সূত্র থেকে আরও জানা গেছে, এটি Phased Manufacturing Plan(PMP)-এর দিকে একটি মৌলিক পদক্ষেপ। এর ফলে টেলিভিশন নির্মাতা কোম্পানিগুলি শুধুমাত্র আমদানিকৃত যন্ত্রাংশ একত্রিত করার বদলে নতুন কিছু করার কথা ভাববে।