Nexzu Roadlark: একবার চার্জ দিলে দৌড়য় ১০০ কিমি, নামী ই-স্কুটারকে টেক্কা দিচ্ছে এই ইলেকট্রিক সাইকেল

নেক্সজুর চিফ মার্কেটিং অফিসার পঙ্কজ তিওয়ারি বলেছেন, রোডলার্ক ই-সাইকেলের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে অনুঘটকের কাজ করবে

nexzu-roadlark-e-cycle-launches-rs-unknown-100km-range

এখন রাস্তায় প্রথাগত সাইকেলের পাশাপাশি ব্যাটারি চালিত বাইসাইকেলের চলাচল উল্লেখযোগ্য ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেকেই সাইকেলে প্যাডেল করার ধকল নিতে পারেন না। তাই তাঁদের জন্য এই ধরনের বিদ্যুৎ চালিত সাইকেল আদর্শ। বর্তমানে ভারতের বহু আলোচিত ই-সাইকেলের মধ্যে অন্যতম হল নেক্সজু রোডলার্ক (Nexzu Roadlark)। এই বৈদ্যুতিক বাইসাইকেলের ইউএসপি হল ১০০ কিলোমিটার রেঞ্জ। অর্থাৎ ব্যাটারি এক বার চার্জ দিলে পাড়ি দেওয়া যায় এতটা পথ। মাঝপথে আর চার্জ দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না।

রোডলার্ক-এর প্রস্তুতকারী সংস্থা দেশীয় স্টার্টআপ নেক্সজুর দাবি, প্যাডেল অ্যাসিস্ট মোডে এই ই-সাইকেল চালালে সর্বোচ্চ ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত পথ পাড়ি দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। নেক্সজুর চিফ মার্কেটিং অফিসার পঙ্কজ তিওয়ারি বলেছেন, রোডলার্ক ই-সাইকেলের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে অনুঘটকের কাজ করবে। এটি একটি প্রতিশ্রুতিসম্পন্ন উদ্ভাবন যা আগামী দিনে পেট্রোল স্কুটার ও মোপেডের জায়গা দখল করবে।”

প্রসঙ্গত, লকডাউনে থেকেই বেড়েছে দুই চাকার যানের চাহিদা। একই ভাবে বাজারে নতুন করে জায়গা করে নিচ্ছে ই-সাইকেলও। ব্যাটারিতে চলে বলে ধোঁয়া বের হয় না, পরিবেশের জন্য ভাল। আবার তেল ভরতে হয় না বলে সাশ্রয়ীও।

মাদুরাই, গুরুগ্রাম, আমেদাবাদ-সহ ভারতের বিভিন্ন শহরে নেক্সজুর ডিলারশিপ রয়েছে। রোডলার্ককে প্রচারের মুখ হিসেবে ব্যবহার করেই দেশজুড়ে ব্যবসার বিস্তার ঘটাতে চাইছে নেক্সজু। সংস্থা জানিয়েছে, তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে অর্ডার করলে মডেল সরাসরি বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়।

Shuvro primarily writes about smartphone and automobile industry. He is an assistant editor for techgup. Shuvro has a bachelor degree in English literature. His interest also includes cosmopolitan affairs, scientific discoveries, and quizzing.