Nokia C30 জিও এক্সক্লুসিভ অফারের সাথে ভারতে লঞ্চ হল, আজ থেকেই কিনতে পারবেন

জিও এক্সক্লুসিভ অফারের সাথে Nokia C30 আজ ভারতে লঞ্চ হয়েছে, যার দাম শুরু হয়েছে ১০,৯৯৯ টাকা থেকে

Nokia c30 launched in india price rs 10999 sale date specifications availability

চলতি বছরের তৃতীয় কোয়ার্টারে গ্লোবাল মার্কেটে লঞ্চ হয়েছিল Nokia C30। এবার ফোনটি ভারতে পা রাখল। জিও এক্সক্লুসিভ অফারের সাথে HMD Global আজ এই ফোনকে ভারতে এনেছে, যার দাম শুরু হয়েছে ১০,৯৯৯ টাকা থেকে। Nokia C30 স্মার্টফোনে আছে ৬,০০০ এমএএইচ পাওয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারি, যা ১০ ওয়াট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এছাড়া, ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইনের ডিসপ্লে সহযোগে আসা এই হ্যান্ডসেটে রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল মুখ্য সেন্সর সমেত ডুয়েল রিয়ার ক্যামেরা, রিয়ার মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, অক্টা কোর ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ প্রসেসর। লঞ্চ অফার হিসেবে Nokia C30 প্রথম সেলে ১,০০০ টাকা পর্যন্ত ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট সহ কেনা যাবে। পাশাপাশি পাওয়া যাবে ৪,০০০ টাকা পর্যন্ত গিফট কুপন। আসুন Nokia C30 ফোনের দাম, সেল অফার ও ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

Nokia C30 দাম ও সেল অফার

নোকিয়া সি৩০ স্মার্টফোনের ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১০,৯৯৯ টাকা। অন্যদিকে, ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ১১,৯৯৯ টাকা। আজ থেকে ফোনটি ভারতের শীর্ষস্থানীয় অফলাইন রিটেল স্টোর, ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম এবং সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের (Nokia.com) মাধ্যমে কেনা যাবে।

এবার আসা যাক অফারের প্রসঙ্গে। ক্রেতারা যদি নোকিয়া সি৩০ ফোনটি কেনার সময়ে জিও এক্সক্লুসিভ অফারের লাভ ওঠান, তবে তারা পেমেন্টের সময়ে ১,০০০ টাকা পর্যন্ত ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট পেয়ে যাবেন। ক্রেতারা সরাসরি রিটেল স্টোর অথবা নিজেদের মোবাইলে থাকা MyJio অ্যাপ থেকে এই অফারটি পেতে পারেন। আবার, চাইলে খরিদ্দারীর ১৫ দিনের মধ্যে MyJio অ্যাপে সেল্ফ-এনরোলমেন্ট করার মাধ্যমেও এই অফারটির সুবিধা নেওয়া যাবে। এছাড়া, জিও ইউজাররা যদি ফোনটি কেনার পর ২৪৯ টাকা বা অধিক মূল্যের প্ল্যান রিচার্জ করান, তবে Myntra, PharmEasy, Oyo এবং MakeMyTrip অ্যাপে ৪,০০০ টাকা বেনিফিট পেয়ে যাবেন।

Nokia C30 স্পেসিফিকেশন, ফিচার

নোকিয়া সি৩০ ফোনে রয়েছে একটি ৬.৮২ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,৬০০x৭২০ পিক্সেল) ওয়াটারড্রপ নচ ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে ৪০০ নিট অবধি ব্রাইটনেস এবিং ৭০% NTSC কালার গ্যামেট সাপোর্ট করে। এতে অক্টা কোর ইউনিসক এসসি৯৮৬৩এ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ (গো এডিশন) ওএস দ্বারা চালিত হবে। নোকিয়া সি৩০ ৪ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম ও ৬৪ জিবি পর্যন্ত মেমোরি সহ পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ক্যামেরা ফ্রন্টের প্রসঙ্গে বললে, Nokia C30 ফোনের পিছনে ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ দেখা যাবে। এই ক্যামেরাগুলি হল, ১৩ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। সেলফি ও ভিডিও চ্যাটিংয়ের জন্য থাকছে ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। সিকিউরিটির জন্য এই ফোনে, রিয়ার-মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক ফিচার উপলব্ধ। শুধু তাই নয়, কানেক্টিভিটির জন্য এতে, 4G LTE, ওয়াই-ফাই ৮০২.১১ বি/জি/এন, ব্লুটুথ ভি৪.২, জিপিএস / এ-জিপিএস, মাইক্রো ইউএসবি পোর্ট এবং ৩.৫মিমি হেডফোন জ্যাক রয়েছে। আবার সেন্সর অপশনের মধ্যে, অ্যাক্সেলেরোমিটার, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর সামিল করা হয়েছে। Nokia C30, ৬,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি সহ এসেছে, যার সাথে ১০ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।