Nykaa: বড় চাকরি ছেড়ে ব‌্যবসা, একদিনে ৫,৩৫০ কোটি টাকা আয় করে ধনীতম মহিলা ধনকুবের ফাল্গুনী

nykaa-ceo-falguni-nayar-worlds-richest-club-for-fns-e-commerce-share

সম্প্রতি, বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় নাম লিখিয়েছে ফাল্গুনি নায়ার (Falguni Nayar)। নেপথ্যে, তাঁরই বিউটি ই-কমার্স স্টার্ট আপ, নাইকা (Nykaa) ব্র্যান্ড। মহিলা উদ্যোক্তা হিসেবে তাঁর পেশাদারি জীবনে সফলতার শিখরে পোঁছানোর এই সফর, নতুন প্রজন্মের বিনিয়োগকারীদের কাছে নি:সন্দেহে শিক্ষণীয়।

বুধবার, দালাল স্ট্রিটে, Nykaa-র পেরেন্ট কোম্পানি, ‘FNS ই-কমার্স’ টি ভারতের প্রথম মহিলা চালিত ভেঞ্চার হিসেবে স্টক মার্কেটে আত্মপ্রকাশ করার সাথে সাথেই, Nykaa-র প্রতিষ্ঠাতা এবং কর্ণধার, ৫৮ বছর বয়সী, ফাল্গুনি নায়ার, ‘ব্লুমবার্গ বিলিয়োনেয়ার সূচক’ (Bloomberg Billionaires Index) এর হিসেবে, দেশের সপ্তম স্বপ্রতিষ্ঠিত ধনীতম মহিলা হিসেবে পরিচিতি পান। ১০ নভেম্বর শেয়ার মার্কেটে প্রথম পদার্পণেই, দালাল স্ট্রিটে ৫,৩৫০ কোটি টাকারও বেশী মূলধন সংগ্রহ করে ফেলেছে তাঁর প্রতিষ্ঠিত ই-কমার্স জায়েন্টটি। বর্তমানে, Nykaa-র প্রতিটি শেয়ার কিনতে খরচ হবে ২,৩৫৮ টাকা, যা শুরু হয়েছিল ২,০১৮ টাকা থেকে। প্রসঙ্গত, Nykaa-র সাম্প্রতিক প্রাথমিক পাবলিক অফার (IPO) টিও মার্কেটে তালিকাভুক্ত হয়েছে। AFP-র রিপোর্ট অনুযায়ী, নায়ার বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তিদের মধ্যে এক অন্যতম উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

Nykaa ন্যাশানাল স্টক এক্সচেঞ্জে (NSO) তালিকাভুক্ত হওয়ার আগে, এই নজিরবিহীন সফরের কথা বলতে গিয়ে, নায়ার এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন, তাঁর শুরু টা ছিল একেবারেই সাধারণ। ৫০ বছর বয়সে, বড় চাকরি ছেড়ে দিয়ে ব্যাবসায়িক কোনো অভিজ্ঞতা ছাড়াই এপথে পা বাড়িয়েছিলেন তিনি। Nykaa-কে সাথে করে তাঁর আজকের এই উত্থান ভবিষ্যত প্রজন্মের প্রত্যেককে তাদের নিজ নিজ জীবনের পেশাদারি ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত হয়ে উঠতে সাহায্য করবে, এ বিষয়ে আশাবাদী এই মুহুর্তে ভারতের সফলতম মহিলা উদ্যোগপতি।

IIM-আমেদাবাদ এর এই প্রাক্তনীর চাকরি ক্ষেত্রও যথেষ্ট গৌরবান্বিত। ২০১২ তে নিজস্ব স্টার্ট আপ ‘Nykaa’ শুরু করার পূর্বে, তিনি দীর্ঘ সময় কোটাক মহিন্দ্রা গ্রুপের (Kotak Mahindra Group) ম্যানেজিং ডিরেক্টরের পদে নিযুক্ত থাকেন। এবং আজ পেশাগত দিকে সমস্ত বয়সজনিত চিরাচরিত বিশ্বাস কে মিথ্যে প্রমাণিত করে, মাত্র কয়েক বছর আগের শুরু করা ব্যবসাকে সমগ্র বিশ্বের নিরিখে সফলতার শিখরে এনে দাঁড় করিয়েছেন তিনি। এই মুহূর্তে তার সম্পদের পরিমাণ ১,২৯০ কোটি ডলার।

নতুন প্রজন্মের বিনিয়োগকারীদের জন্য কি পরামর্শ নায়ারের?

তাঁর মতে, কোথাও বিনিয়োগের পূর্বে সবচেয়ে প্রথম যেটা দরকার, তা হল একটি সঠিক পরিকল্পনা। তিনি নিজে বহু আগে থেকেই ভেবে রেখেছিলেন, ৫০ বছর বয়সে এসে নিজস্ব স্টার্ট আপ খুলবেন, তারই ফসল আজকের ‘Nykaa’। সুতরাং, সবার প্রথমে একটি নির্দিষ্ট ছক বা পরিকল্পনা থাকাটা খুবই জরুরী।

দ্বিতীয় নম্বরে যেটি জরুরি, সেটা হল আত্মবিশ্বাস ও সাহস। সবার মতামত গুরুত্ব দিয়ে শুনলেও দিনশেষে ভরসা নিজের সিদ্ধান্তের ওপরেই রাখতে হবে। আজকের Nykaa একসাথে ৩০০ টা ব্র্যান্ডের ৩০,০০০ এরও বেশী প্রোডাক্ট একই প্ল্যার্টফর্মে বিক্রি করছে, ২০১২ তে দাঁড়িয়ে যা ছিল অলীক কল্পনার সমান। সাহসের প্রসঙ্গে নায়ার বলেন, তিনি চান আরও বেশী সংখ্যক মহিলা তাঁর মতো স্বপ্ন দেখার সাহস করুক।

চতুর্থ নম্বরে, নায়ার মন্তব্য করেন ব্যবসা ক্ষেত্রে ‘যত বেশী ঝুঁকি, তত বেশী লাভে’র চিরাচরিত উক্তিটির সত্যতার বিষয়ে। তাঁর মতে কিছু ক্ষেত্রে এই সমীকরণটি সত্যি। তবে অবশ্যই সে ঝুঁকি হতে হবে হিসেবী, পরিকল্পিত ঝুঁকি। তিনি নিজেও ৫০ এর দোরগোড়ায় এসে পূর্বের কোনো ব্যবসায়িক অভিজ্ঞতা ছাড়াই Nykaa শুরু করার ঝুঁকি নেন, এবং পরিণতিটা সবারই জানা।

সর্বশেষ তিনি বলেন, ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে সফল হওয়ার জন্য প্রথম থেকেই উন্নতি এবং লাভের অঙ্ক, এই দুই বিষয়েই সমান দৃষ্টিপাতের প্রয়োজন রয়েছে।

ফাল্গুনি নায়ারের এই সাফল্য নতুন প্রজন্ম কে বিনিয়োগে কতটা উদ্বুদ্ধ করতে পারলো তার হিসেব না হয় তোলা থাকুক ভবিষ্যতের হাতেই।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।