ওলা ইলেকট্রিক স্কুটারের নাম হবে Ola Series S, আসতে পারে S1 ও S1 Pro ভ্যারিয়েন্টে

ola-first-electric-scooter-likely-to-be-called-series-s

কখনও ওলা ইলেকট্রিক স্কুটার (Ola Electric Scooter)-এর ফিচার টিজ, আবার কখনও ওলা ইলেকট্রিকের স্কুটার কারখানা ফিউচারফ্যাক্টরি (Futurefactory)-এর আপডেট কোম্পানির পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাগ করে নেওয়া হচ্ছে। যার ফলে ওলার আসন্ন ব্যাটারি চালিত স্কুটার নিয়ে প্রত্যাশার পারদ ক্রমশ উর্দ্ধে উঠছে। তবে যে ইলেকট্রিক স্কুটার নিয়ে এত চর্চা, তার নাম? মডেলের নাম কিংবা নিদেনপক্ষে কোডনামের ব্যাপারেও ওলা কিছু জানায়নি। তবে ওলা মুখে কুলুপ এটে বসে থাকলেও ট্রেডমার্কের নথিপত্র থেকে ওলার বৈদ্যুতিক স্কুটার কী নামে আসতে পারে, তার আভাস পাওয়া গেছে।

Series S, S1, S1 Pro নাম রেজিস্টার করল Ola Electric

ওলা ইলেকট্রিক সিরিজ এস (Series S), এস১ (S1) ও এস১ প্রো (S1 Pro) নামের জন্য ট্রেডমার্ক নিবন্ধনের আবেদন দাখিল করেছে। ট্রেডমার্কের নথিপত্র পর্যবেক্ষণ করে বলা যায়, শীঘ্রই লঞ্চ হতে চলা ওলা ইলেকট্রিক স্কুটারের ক্ষেত্রে উক্ত নামগুলি ব্যবহার হতে পারে। সেক্ষেত্রে ওলা ইলেকট্রিক স্কুটারের নাম সিরিজ ওয়ান হতে পারে৷ এবং এটি এস১ এবং এস১ প্রো ভ্যারিয়েন্টে আসতে পারে। গতকাল, ট্রেডমার্ক অ্যাপ্লিকেশন দাখিল করা হয়েছিল এবং সেটি পরীক্ষার জন্য মার্ক করা হয়েছে। নামগুলি কেবলমাত্র বৈদ্যুতিক যানবাহনের ক্ষেত্রে ব্যবহারযোগ্য।

Ola Electric S1

ওলা ইলেকট্রিক স্কুটারের বেস ভ্যারিয়েন্ট হিসেবে এস১ আসতে পারে। প্রো ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে এর ব্যাটারি ও মোটর কিছুটা কম পাওয়ারফুল রাখা হবে। আবার ওলা ই-বাইক ট্যাক্সি হিসেবে এটি ব্যবহার করতে পারে। কারণ কর্ণাটকে ই-বাইক ট্যাক্সি পরিষেবা আইনসিদ্ধ করা হয়েছে।

Ola Electric S1 Pro

বেস ভ্যারিয়েন্টের চেয়ে এই প্রো ভ্যারিয়েন্ট আরও শক্তিশালী ও ফিচার সমৃদ্ধ হবে বলে আশা করা যায়। এক চার্জে এটি ১৫০ কিমির কাছাকাছি ড্রাইভিং রেঞ্জ দেবে।

Ola Electric স্কুটারের বিশেষত্ব

সম্প্রতি ওলা ইলেকট্রিক স্কুটার চালিয়ে বেঙ্গালুরুতে কোম্পানির সদরদপ্তর থেকে একটি ক্যাফেতে যাওয়ার ভিডিও পোস্ট করেছিলেন ভাবিশ আগরওয়াল। ভিডিওতে দেখানো হয়েছিল, ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার বুট স্টোরেজ কতখানি। ভেতরের যে জায়গা রয়েছে, তাতে দু’টো হাফ হেমলেট হামেশাই সেখানে ধরে যাবে। এই সেগমেন্টে এতটা আন্ডার সিট স্টোরেজ অন্য কোনও স্কুটারে থাকবে না, তার আভাস তখনই পাওয়া গেছিল। আবার কিছুদিন আগেই এই ফিচারটি টিজ করা হয় – সেগমেন্টে সবচেয়ে বড় বুট স্পেস থাকবে ওলার ইলেকট্রিক স্কুটারে। পাশাপাশি, ১৫০ কিমি ড্রাইভিং রেঞ্জের সৌজন্যে এই সেগমেন্টে সমস্ত ব্যাটারি চালিত যানবাহনকে পিছনে ফেলে দেবে ওলার ই-স্কুটার৷ এছাড়া এতে অ্যাপ ভিত্তিক কী-লেস অ্যাক্সেস, ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, ক্লাউড কানেক্টিভিটি-সহ নানা কাটিং এজ ফিচার থাকবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷