OnePlus 10 Pro Launch: দুর্দান্ত ক্যামেরা, অসাধারণ ডিসপ্লে ও স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর সহ লঞ্চ হল ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো স্মার্টফোনের প্রারম্ভিক মূল্য ৪,৬৯৯ ইউয়ান বা ভারতীয় মূল্যে প্রায় ৫৪,৪৯০ টাকা ধার্য করা হয়েছে। এই দাম ফোনের ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের

oneplus-10-pro-launched-price-cny-4699-specifications-sale-date-processor-battery-display-camera

OnePlus 10 Pro দীর্ঘ জল্পনার অবসান ঘটিয়ে আজ অর্থাৎ ১১ জানুয়ারি চীনের বাজারে আত্মপ্রকাশ করলো। ফ্ল্যাগশিপ ক্যাটাগরির এই স্মার্টফোন কোয়ালকমের সর্বাধিক শক্তিশালী ও লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেনার ১ (Snapdragon 8 Gen 1) প্রসেসর সহ এসেছে। এছাড়া সদ্য আগত এই ডিভাইসে দেখা যাবে, একটি ৬.৭ ইঞ্চির QHD+ LTPO ডিসপ্লে প্যানেল, ৮০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, হ্যাসেলব্লাড (Hasselblad) ব্র্যান্ডিং সহ ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ এবং ২৫৬ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। আবার উন্নত গ্রাফিক্সের জন্য OnePlus 10 Pro-এ আছে হাইপারবুস্ট টেকনোলজি। এতে থ্রিডি ন্যানো ন্যানোক্রিস্টালিন সিরামিকের সাথে মেটাল মিডিল ফ্রেম ডিজাইন দেখা যাবে। চলুন তাহলে OnePlus 10 Pro স্মার্টফোনের দাম ও যাবতীয় স্পেসিফিকেশনের উপর চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক।

OnePlus 10 Pro দাম ও লভ্যতা

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো স্মার্টফোনের প্রারম্ভিক মূল্য ৪,৬৯৯ ইউয়ান বা ভারতীয় মূল্যে প্রায় ৫৪,৪৯০ টাকা ধার্য করা হয়েছে। এই দাম ফোনের ৮ জিবি র‍্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ অপশনের। আর, ৮ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ এবং ১২ জিবি র‍্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম যথাক্রমে ৪,৯৯৯ ইউয়ান (আনুমানিক ৫৭,৯৭০ টাকা) এবং ৫,২৯৯ ইউয়ান (আনুমানিক ৬১,৪৪৮ টাকা) থাকছে।

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো এমারেল্ড ফরেস্ট এবং ভলকানিক ব্ল্যাক কালারে আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে চীনে পাওয়া যাবে। যদিও অন্যান্য মার্কেটে ফোনটি কবে আসবে তা এখনও জানা যায়নি।

OnePlus 10 Pro স্পেসিফিকেশন

ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো স্মার্টফোনে আছে কর্নি গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রোটেকশন সহ ৬.৭ ইঞ্চির কোয়াড এইচডি প্লাস (১,৪৪০ x ৩,২১৬ পিক্সেল) Fluid AMOLED ডিসপ্লে, যার এসপেক্ট রেশিও ২০.১:৯, পিক ব্রাইটনেস ১৩০০ নিটস। এই ডিসপ্লে ‘লো-টেম্পারেচার পলিক্রিস্টালাইন অক্সাইড’ বা সংক্ষেপে LTPO টেকনোলজি সমর্থন করে, যা স্ক্রিনে চলমান কন্টেন্টের উপর ভিত্তি করে ১ হার্টজ থেকে ১২০ হার্টজের মধ্যে রিফ্রেশ রেট সামঞ্জস্য করবে। উদাহরণস্বরূপ, ফটো দেখা বা টেক্সট পড়ার সময়ে স্ক্রিনের রিফ্রেশ রেট হবে ১ হার্টজ। মুভি বা ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে রিফ্রেশ রেট বেড়ে ২৪ হার্টজ হয়ে যাবে। আবার, গেমিং এবং স্মুথ স্ক্রোলিংয়ের জন্য ১২০ হার্টজ পর্যন্ত রিফ্রেশ রেট অফার করবে ডিভাইসটি। জানিয়ে রাখি, LTPS OLED স্ক্রিনের সাথে আসা অন্যান্য ফোনের তুলনায় এই হ্যান্ডসেটটি অধিক ব্যাটারি সাশ্রয় করবে।

এবার আসা যাক ইন্টারনাল ফিচারের প্রসঙ্গে। ওয়ানপ্লাস ১০ প্রো অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক কালারওএস ১২.১ কাস্টম স্কিনে রান করবে। তবে, ভারত, উত্তর আমেরিকা এবং ইউরোপের জন্য ফোনটি অক্সিজেনওএস ১২ কাস্টম স্কিন দ্বারা চালিত হবে। তদুপরি, ফাস্ট পারফরম্যান্স ও মাল্টিটাস্কিংয়ের জন্য এতে কোয়ালকমের ফ্ল্যাগশিপ ক্যাটাগরির প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ ব্যবহার করা হয়েছে। আর স্টোরেজ হিসাবে ফোনে, ১২ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম (LPDDR5) ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত মেমরি (UFS 3.1) বর্তমান।

ক্যামেরা ফ্রন্টের কথা বললে, OnePlus 10 Pro ফোনে হ্যাসেলব্লাড (Hasselblad) ব্র্যান্ডিং সহ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। এই ক্যামেরা গুলি হল, OIS ও EIS টেকনোলজি যুক্ত ৪৮ মেগাপিক্সেল Sony IMX789 প্রাইমারি সেন্সর (অ্যাপারচার এফ/১.৮), ৫০ মেগাপিক্সেল Samsung ISOCELL JN1 আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং ৮ মেগাপিক্সেল ৩এক্স (3x) জুম ক্যামেরা৷ এই রিয়ার সেন্সরগুলি হ্যাসেলব্লাড ন্যাচারাল কালার অপ্টিমাইজেশান ২.০ (Hasselblad Natural Color Optimization 2.0) ফিচার সহ এসেছে, যা আরো উন্নত ও প্রাণবন্ত কালার অফার করবে। এছাড়া, হ্যাসেলব্লাড প্রফেশনাল মোড ২.০ র (Hasselblad Professional Mode 2.0 RAW) ফিচার উপলব্ধ থাকছে ম্যানুয়াল মুভি শুটিংয়ের জন্য। এই ফিচার, ভিডিও রেকর্ডিংয়ের সময়ে ISO লেভেল, শাটার স্পিড এবং হোয়াইট ব্যালেন্সিং অ্যাডজাস্ট করতে দেবে। রিয়ার ক্যামেরা ২৪ এফপিএস-এ ৮কে (8K) ভিডিও রেকর্ড করতে দেয়।

প্রসঙ্গত, OnePlus 10 Pro হল প্রথম স্মার্টফোন, যা LOG ফর্ম্যাট সমর্থন করে। যাইহোক, সেলফি বা ভিডিও চ্যাটিংয়ের সুবিধার্থে ফোনে এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট-ফেসিং Sony IMX615 সেন্সর দেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ওয়ানপ্লাস, অপারেটিং সিস্টেমের পাশাপাশি ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজির ক্ষেত্রেও তার সিস্টার ব্র্যান্ড ওপ্পো (Oppo) -এর সাথে হাত মিলিয়েছে। সেক্ষেত্রে, OnePlus 10 Pro স্মার্টফোনে ৫,০০০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি পাওয়া যাবে, যা ৮০ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্ট চার্জিং এবং ৫০ ওয়াট ওয়্যারলেস ফাস্ট চার্জিং অফার করবে। এমনকি ওয়্যারলেস রিভার্স চার্জিংও সাপোর্ট করবে এই ফোনে। অন্যান্য ফিচারের মধ্যে, ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এবং ডলবি অ্যাটমস সাপোর্ট সহ স্টেরিও স্পিকার সিস্টেম উপস্থিত। এছাড়া, ওয়ানপ্লাসের এই ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন IP68 সার্টিফায়েড হওয়ায়, এটি জল ও ধুলো প্রতিরোধী। এই ফোনের ২০০.৫ গ্রাম।

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।