OnePlus RT নামে ভারতে লঞ্চ হতে পারে OnePlus 9RT, জল্পনা বাড়াল Google Play Console

গুগল সাপোর্টেড ডিভাইস লিস্ট এবং গুগল প্লে কনসোলে এই ফোনকে OnePlus 9RT এর পরিবর্তে OnePlus RT নামে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে

oneplus-9rt-may-launch-in-india-as-oneplus-rt-google-play-supported-device-listing

গত অক্টোবর মাসে চীনে লঞ্চ হয়েছিল OnePlus 9RT। এটি OnePlus 9 সিরিজের চতুর্থ ফোন হিসেবে চীনের মার্কেটে পা রেখেছিল তৎকালীন সময়ে। ফিচার হিসাবে এই ফোনে সামিল করা হয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি সেন্সর যুক্ত ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং (Wrap) সাপোর্ট সমেত ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি ও ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের FHD+ ডিসপ্লে। এছাড়া রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর এবং ১২ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম। লঞ্চের পর থেকেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে ফোনটি শীঘ্রই ভারতে লঞ্চ হবে। তবে নতুন রিপোর্ট অনুযায়ী, OnePlus 9RT ভারতে OnePlus RT নামে পা রাখবে।

OnePlus 9RT ভারতে OnePlus RT নামে লঞ্চ হতে পারে

জনপ্রিয় টিপস্টার মুকুল শর্মা একটি টুইট করে জানিয়েছেন যে, ভারতে সংস্থার লেটেস্ট স্মার্টফোনটি OnePlus RT নামে লঞ্চ হতে পারে। কারণ, গুগল সাপোর্টেড ডিভাইস লিস্ট এবং গুগল প্লে কনসোলে এই ফোনকে OnePlus 9RT এর পরিবর্তে OnePlus RT নামে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে, যার মডেল নম্বর OP5154L1। উল্লেখ্য, BIS (Bureau of Indian Standards) সার্টিফিকেশন সাইটেও এটিকে একই মডেল নম্বর সহ দেখা গেছে। তাই, মুকুল শর্মার দাবিকে সামনে রেখে বলতেই হচ্ছে যে, ফোনটি হয়তো পরিবর্তিত নামের সাথে আসতে পারে ভারতের বাজারে।

OnePlus 9RT স্পেসিফিকেশন (চীনা ভার্সন)

ওয়ানপ্লাস ৯আরটি ফোনে দেওয়া হয়েছে একটি ৬.৬২ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস (১,০৮০x২,৪০০ পিক্সেল) স্যামসাং E4 OLED ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লে, ২০:৯ এসপেক্ট রেশিও, ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, ৬০০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট, ১,৩০০ নিটস পিক ব্রাইটনেস এবং HDR10+ টেকনোলজি সাপোর্ট করে। এতে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ।

OnePlus 9RT ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ প্রসেসর। এটি ১২ জিবি পর্যন্ত LPDDR5 র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি পর্যন্ত UFS 3.1 স্টোরেজ সহ এসেছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড কালারওএস কাস্টম স্কিনে রান করবে।

ফটোগ্রাফির জন্য উক্ত মডেলে ডুয়েল এলইডি সহ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ বর্তমান। এই ক্যামেরাগুলি হল, এফ/১.৮ অ্যাপারচার ও OIS (অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন) সহ ৫০ মেগাপিক্সেল Sony IMX766 প্রাইমারি সেন্সর, এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ১৬ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা ওয়াইড সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো শুটার। এই রিয়ার ক্যামেরাগুলি 4K ভিডিও রেকর্ডিং সাপোর্ট করে। এই সাথে, সেলফি ও ভিডিও কলিংয়ের জন্য পাওয়া যাবে EIS সাপোর্ট সহ ১৬ মেগাপিক্সেল Sony IMX471 ফ্রন্ট সেন্সর।

তদুপরি, কানেক্টিভিটি অপশনের মধ্যে এই ফোনে রয়েছে, 5G, 4G LTE, ওয়াই-ফাই ৬, ব্লুটুথ ভি৫.২, জিপিএস / এ-জিপিএস, এনএফসি এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট। এতে ডলবি অ্যাটমস সাপোর্টের সাথে ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার দেওয়া হয়েছে। এছাড়া,থাকছে অ্যাক্সেলেরোমিটার, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট সেন্সর, জাইরোস্কোপ, ম্যাগনেটোমিটার এবং প্রক্সিমিটি সেন্সর। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য এই ফোনে, ৬৫টি র‌্যাপ চার্জ ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট সহ ৪,৫০০ এমএএইচ ডুয়েল সেল ব্যাটারি আছে। ফোনটির ওজন ১৯৮.৫ গ্রাম।

শুভেচ্ছা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী। তিনি একদিকে যেমন ফটোগ্রাফার, তেমনি পাশাপাশি লেখিকাও। এছাড়াও তার শখের মধ্যে আছে বই পড়া, গান গাওয়া, ছবি আঁকা এবং ওয়েব ডিজাইন। শুভেচ্ছা আমাদের টেকগাপ পরিবারের একজন নতুন সদস্য।