ভুল থেকে শিক্ষা নিল না ওয়ানপ্লাস, ফাঁস হয়ে গেল শতাধিক ইউজারের ডেটা

oneplus-reportedly-leaked-100-plus-users-email-ids-all-you-need-to-know

কিছুদিন আগে ভারতে লঞ্চ হয়েছে OnePlus Nord। এটি কোম্পানির প্রথম ফোন যেটির প্রাথমিক দাম শুরু হয়েছে ২৫,০০০ টাকার কমে। ইতিমধ্যেই এই ফোনকে ঘিরে ভারতে উৎসাহ তুঙ্গে। তবে এবার একটি নতুন বিতর্কে জড়িয়ে পড়লো ওয়ানপ্লাস। রিপোর্ট অনুযায়ী, চীনা সংস্থাটি শতাধিক গ্রাহকের ইমেল আইডি ফাঁস করে ফেলেছে।

আসলে সার্ভের জন্য সংস্থাটি কিছু সংখ্যক ইউজারদের মেল পাঠিয়েছিল। মেল পাঠানোর মধ্যে কোনো ক্ষতি নেই, এমনিতে রোজ প্রচুর ইমেল আমাদের কাছে আসে। কিন্তু সমস্যা শুরু হয় যখন সংস্থাটি ভুলবশত “BCC” সেকশনের পরিবর্তে ‘To’ সেকশনে সমস্ত মেল আইডি যুক্ত করে ফেলে। ফলে সবাই বাকি মেল আইডিগুলি দেখতে পেয়ে যায়। সংস্থার এই ভুলের কারণে ঠিক কতজন ইউজার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন, তা এই মুহুর্তে নিশ্চিত করা যায়নি। তবে AndroidPolice-এর তথ্য অনুযায়ী এই ঘটনায় কয়েকশ ইউজারের মেল এক্সপোজ হয়েছে।

এই ধরণের বিতর্ক সংস্থাটির জন্য কোনো নতুন ঘটনা নয়। এর আগে, ২০১৮ সালের শুরুতে তারা জানিয়েছিল যে, প্রায় ৪০,০০০ গ্রাহকের ক্রেডিট কার্ডের তথ্য চুরি হয়ে গেছে। সংস্থাটি এই সময়ে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রাহকদের তাদের ব্যাঙ্কের স্টেটমেন্ট পর্যবেক্ষণ করার পরামর্শ দিয়েছিল এবং এক বছরের জন্য নিখরচায় ক্রেডিট রিপোর্টিংয়ের অফার দিয়েছিল।

এরপর গত বছরের নভেম্বরে সংস্থাটি হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছিল। সেবার গ্রাহকদের নাম, ইমেল আইডি এবং শিপিং অ্যাড্রেস ফাঁস হয়ে গেছিল। তবে, সংস্থাটি জানিয়েছিল গ্রাহকদের পেমেন্ট সংক্রান্ত ডেটা এবং পাসওয়ার্ড অ্যাক্সেস বা হ্যাক হয়নি।

গত মাসের শেষের দিকেও ওয়ানপ্লাসের সাথে একই রকম ঘটনা ঘটে– প্রোডাক্টের আউট অফ ওয়ারেন্টি রিপেয়ারিং এবং এক্সচেঞ্জিংয়ের ইনভয়েসে থাকা ইউজারের নাম, ফোন নম্বর, ইমেইল আইডি, IMEI নম্বর এবং আরো কিছু ডেটা এক্সপোজ হয়েছিল। যদিও এই ঘটনায় কেবল আমেরিকান ইউজাররাই ঝামেলায় পড়েছিলেন।

এ কথা নিশ্চিত করে বলা যায়, ঘন ঘন এই ধরণের ঘটনায় ওয়ানপ্লাসের সিকিউরিটি সিস্টেম প্রশ্নের মুখে পড়ছে। ভবিষ্যতে এই সংস্থাটি সাবধান হবে কিনা সেটাই ভাবার বিষয়।