Nord 2 ফোনে বিস্ফোরণের অভিযোগ করায় আইনি নোটিশ ধরালো OnePlus

Nord 2 ফোনে আগুন ধরার অভিযোগকে সংস্থার পক্ষে অসম্মানজনক এবং মানহানিকর আখ্যা দিয়ে গুলাটিকে একটি সিজ অ্যান্ড ডেইস্ট নোটিশ পাঠিয়েছে OnePlus

oneplus-sends-legal-notice-for-alleged-explosion-of-oneplus-nord-2

বিগত কয়েক বছরে ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন নির্মাতা হিসেবে চীনা ব্র্যান্ড OnePlus (ওয়ানপ্লাস) ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করলেও, হালফিলে যেন বিতর্ক সংস্থার পিছু ছাড়ছে না! আসলে Nord 2 (নর্ড ২) হ্যান্ডসেট লঞ্চের কয়েক দিনের মধ্যেই এক ইউজার সেটিতে বিস্ফোরণ ঘটার অভিযোগ তোলেন। কিন্তু তারও এক মাস কাটতে না কাটতেই, গত সপ্তাহে গৌরব গুলাটি নামের দিল্লির এক আইনজীবীর পকেটে থাকা অবস্থায় ওই একই ফোন ব্লাস্ট হয়েছে বলে জানা যায়। এমনকি, একেবারে নতুন ফোন বিস্ফোরণ হওয়ায়, ওই সময় OnePlus-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং Amazon India-র এক্সিকিউটিভদের বিরুদ্ধে এফআইআর (FIR) দায়ের করেন গুলাটি। তবে এখন, ফোনে আগুন ধরার অভিযোগকে সংস্থার পক্ষে ‘অসম্মানজনক’ (Disparaging) এবং ‘মানহানিকর’ (Defamatory) আখ্যা দিয়ে গুলাটিকে একটি সিজ অ্যান্ড ডেইস্ট নোটিশ পাঠিয়েছে OnePlus। এছাড়া এই বিষয়টি সমাধানের জন্য কোম্পানি যথাযথ আইনি পদ্ধতি অনুসরণ করবে বলেও এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করেছে।

OnePlus Nord 2 বিস্ফোরণের ঘটনায় নয়া মোড়

গত ৮ই সেপ্টেম্বর দিল্লির ওই আইনজীবী অভিযোগ করেছিলেন যে, দু-তিন আগে কেনা ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ তার পকেটে থাকাকালীন ব্লাস্ট হয়ে পুড়ে যায়। ওই সময় ফোনটি চার্জিংয়ে ছিল না, বরঞ্চ সেটিতে প্রায় ৯০ শতাংশ চার্জ ছিল বলে তিনি দাবি করেন। সেক্ষেত্রে গোটা ঘটনা সামনে আসার পর, কোম্পানি, ওই আইনজীবী গুলাটির কাছে পৌঁছায় এবং তাকে পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত ডিভাইস জমা দিতে বলে। কিন্তু গুলাটি, কোম্পানির এই অনুরোধ গ্রাহ্য না করে বলেন যে, ডিভাইসটি তাদের হাতে তুলে দিলে দুর্ঘটনার প্রমাণ লোপাট হয়ে যাবে। তাই তিনি আইনি পথে হেঁটে পরবর্তী সময়ে পুলিশের কাছে ডিভাইসটি জমা দেবেন।

এখন, ওয়ানপ্লাস দাবি করেছে যে গুলাটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করা ছাড়া অন্য কোনো ক্ষতির প্রমাণ দেননি। এই পরিস্থিতিতে, তাদের পক্ষে এই দাবির বৈধতা যাচাই করা বা ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা অসম্ভব। তাছাড়া তার শেয়ার করা বিস্ফোরিত ফোনের ছবিগুলি দেখে সেটির ব্যাটারিতে বাহ্যিক শক্তি প্রয়োগের ইঙ্গিত মিলেছে বলে সংস্থার দাবি করেছে। আবার যেহেতু গুলাটি কোম্পানির সহায়তা গ্রহণ করেনি এবং কোম্পানিকে প্রয়োজনীয় প্রমাণ প্রদান করেনি, তাই এর সত্যতা সম্পর্কেও ততটা আমল দিচ্ছে না ওয়ানপ্লাস। শুধু তাই নয়, গুলাটিকে পাঠানো আইনি চিঠিতে ফোন ব্লাস্ট সংক্রান্ত পোস্ট করা বন্ধ করতে এবং বিদ্যমান টুইটগুলি ডিলিট করে করে ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে।

যেমনটা শুরুতেই বলেছি, ওয়ানপ্লাস নর্ড ২ ফোনে বিস্ফোরণ ঘটনা কোনো নতুন বিষয় নয়। আগস্টের শুরুতে এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর হ্যান্ডসেট ফেটে পুড়ে যাওয়ার অভিযোগ করেন। এরপর আরো দু একবার এই জাতীয় ঘটনা হইচই ফেলে। যদিও এর মধ্যে একটি ঘটনাকে কোম্পানি, ভুয়ো দাবি বা সংস্থার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে বলে দাবি করে। ওই সময়ে অভিযোগকারীর টুইট আশ্চর্যজনকভাবে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে গায়েব হয়ে যায়!

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

A person who enjoys creating, buying, testing, evaluating and learning about new technology.