২০০০০ টাকার কমে ফাইভজি সাপোর্ট সহ লঞ্চ হল Oppo A55 5G

oppo-a55-5g-launched-price-1599-yuan-specifications-mediatek-dimensity-700

চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি অপ্পো আজ তাদের ঘরেলু মার্কেটে আরও একটি A সিরিজের স্মার্টফোন, Oppo A55 5G লঞ্চ করলো। এই ফোনটি গত ডিসেম্বরে লঞ্চ হওয়া Oppo A53 5G এর মতই প্রায় একই স্পেসিফিকেশন সহ এসেছে। অপ্পো এ৫৫ ৫জি এর বিশেষ বিশেষ ফিচারের মধ্যে আছে ওয়াটার ড্রপ নচ ডিসপ্লে, ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭০০ প্রসেসর ও ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। আসুন Oppo A55 5G এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Oppo A55 5G এর দাম ও লভ্যতা

অপ্পো এ৫৫ ৫জি ফোনটির দাম রাখা হয়েছে ১,৫৯৯ ইউয়ান, যা প্রায় ১৮,০০০ টাকা। এই মূল্য ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ মডেলের। ফোনটি একটি স্টোরেজেই পাওয়া যাবে। এটি রিদম ব্ল্যাক ও ব্রিস্ক ব্লু কালারের সাথে এসেছে। চীনের বাইরে গ্লোবাল মার্কেটে ফোনটিকে কবে লঞ্চ করা হবে তা এখনও জানা যায়নি।

প্রসঙ্গত অপ্পো এ৫৩ ৫জি এর ৪ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ মডেলের দাম ছিল ১,২৯৯ ইউয়ান, যা প্রায় ১৪,৬০০ টাকার সমান। 

Oppo A55 5G এর স্পেসিফিকেশন

ডুয়েল সিমের অপ্পো এ৫৫ ৫জি ফোনে আছে ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেটের ৬.৫ ইঞ্চি এইচডি প্লাস এলসিডি। এর পিক্সেল রেজোলিউশন ১৬০০ × ৭২০, স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৮.৭ শতাংশ, পিক্সেল ডেন্সিটি ২৬৯ পিপিআই। এর ডিসপ্লে ডিজাইন ওয়াটারড্রপ নচ, যার মধ্যে এফ/২.০ অ্যাপারচার সহ ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। আবার এই ফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ২.২ গিগাহার্টজ মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭০০ প্রসেসর। সাথে গ্রাফিক্সের জন্য এতে আছে Mail-G57 MC2@955Mhz।

ফোনটি ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ বিকল্পে পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে। সিকিউরিটির জন্য এতে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক ফিচার উপলব্ধ।

ফটোগ্রাফির জন্য Oppo A55 5G ফোনের পিছনে আছে তিনটি ক্যামেরা। এর প্রাইমারি সেন্সর হল এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও অন্য দুটি ক্যামেরা হল ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর (এফ/২.৪) এবং ২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট লেন্স (এফ/২.৪)। এই ক্যামেরার সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ দেওয়া হয়েছে। ফোনটিতে পাবেন ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি। যার সাথে ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং (৫V/২A) সাপোর্ট করবে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড কালারওএস ৭.২ কাস্টম ইন্টারফেসে চলবে।