Oppo F17 Pro কেনার আগে ভালো দিক ও খারাপ দিক জেনে নিন

Oppo F17 Pro quick review with pros and cons

মাত্র ৪-৫ দিন আগেই ভারতের বাজারে লঞ্চ হয়েছে Oppo-র F17 সিরিজের দুটি নতুন স্মার্টফোন – Oppo F17 Pro এবং Oppo F17। এরমধ্যে অপ্পো এফ ১৭ প্রো এর বিক্রি শুরু হবে ৭ সেপ্টেম্বর থেকে। ফোনটি Amazon ও Flipkart থেকে কেনা যাবে। আপনি যদি এই মনে মনে ভেবে থাকেন এই ফোনটি কিনবেন তাহলে এই পোস্টটি অবশ্যই পড়ুন। কারণ আমরা এই পোস্টে আপনাদের Oppo F17 Pro ফোনটির কিছু ভালো এবং খারাপ দিকের কথা বলব, যেগুলি দেখে আপনারা ফোনটি কেনা উচিত হবে কিনা বা এটি আপনাদের জন্য কতটা লাভদায়ক হবে তা সহজেই বিবেচনা করতে পারবেন।

Oppo F17 Pro দাম:

Oppo F17 Pro একটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ২২,৯৯০ টাকা। অপ্পো এফ১৭ প্রো মেট ব্ল্যাক, ম্যাজিক ব্লু এবং মেটালিক হোয়াইট কালারে পাওয়া যাবে। 

Oppo F17 Pro স্পেসিফিকেশন:

Oppo F17 Pro ফোনটির স্পেসিফিকেশনের কথা বললে, এতে রয়েছে ৮ জিবি র‌্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং মিডিয়াটেক হেলিও পি৯৫ প্রসেসর। অন্যদিকে, ফোনটিতে ৬.৪৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ AMOLED ডিসপ্লে দেখতে পাওয়া যাবে, যার স্ক্রিন রেজুলেশন ১০৮০x২৪০০ পিক্সেল এবং রিফ্রেশ রেট ৬০ হার্টজ। ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য এতে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩+ প্রোটেকশন রয়েছে।

আবার, ফোনটির ডিসপ্লেতে পাঞ্চ হোল ১৬ মেগাপিক্সেল + ২ মেগাপিক্সেল ডুয়েল সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। ফোনটির ব্যাক সাইডে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ (৪৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা + ৮ মেগাপিক্সেল ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ক্যামেরা + ২ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট সেন্সর + ২ মেগাপিক্সেল মনোক্রোম সেন্সর) রয়েছে। এছাড়া, Oppo F17 Pro ফোনটিতে ৩০ ওয়াট ‘VOOC 4.0’ ফাস্ট চার্জিং টেকনোলজি রয়েছে, যার ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৪,০১৫ এমএএইচ। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে আছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড কালারওএস ৭.২।

Oppo F17 Pro এর ভালো দিক:

অপ্পো এফ ১৭ প্রো ফোনটিতে ফুল এইচডি রেজুলেশন সহ বড় স্ক্রিন রয়েছে, যার ফলে ইউজাররা গেম খেলার বা ভিডিও দেখার সময় বেশ মজাদার অভিজ্ঞতা পাবেন। আবার স্ক্রিনে যেহেতু কর্নিং গ্লাস ৩+ প্রোটেকশন রয়েছে, তাই ফোনটি পড়ে গেলেও ডিসপ্লে ড্যামেজ হওয়ার ভয় নেই। রয়েছে ৩০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট, ফলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ফোন চার্জ হওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে হবেনা। এছাড়া যারা ফোনে গেম খেলেন, এই ফোনটির পারফরম্যান্স তাদের কোনোভাবেই নিরাশ করবে না। আবার এর বিল্ট কোয়ালিটি ও দুর্দান্ত। এছাড়াও ফোনে লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেম দেওয়া হয়েছে।

Oppo F17 Pro এর খারাপ দিক:

ফোনটির অসুবিধার কথা যদি বলা হয়, তাহলে সবার প্রথমেই স্ক্রিন রিফ্রেশ রেটের কথা আসবে। বর্তমান সময়ে মাত্র ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট – বেশ বড় একটা ইস্যু। সাথে এই রেঞ্জে মিডিয়াটেক হেলিও পি৯৫ প্রসেসর আপনাকে হতাশ করতে পারে। অন্যদিকে ফোনটির ক্যামেরা পারফরম্যান্স ততটাও সন্তোষজনক নয়। যেখানে এই মুহূর্তে বাজারের বেশির ভাগ ফোনেই ৫,০০০ এমএএইচ রয়েছে, সেখানে Oppo F17 Pro-তে দেওয়া হয়েছে ৪,০১৫ এমএএইচ ব্যাটারি। আবার, ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট থাকলেও ফোনটিতে ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের সুবিধা নেই। এছাড়া, এই ফোনটির কেবলমাত্র একটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট উপলব্ধ।