Oppo F15, Reno 2F ও 10x Zoom-র জন্য এল অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড কালারওএস ১১ আপডেট

oppo-reno-2f-10x-zoom-and-f15-getting-android-11-based-coloros-11-beta-update

গতবছর স্মার্টফোন কোম্পানি Oppo অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড (Android 11) কালারওএস ১১ (ColorOS 11) কাস্টম স্কিন লঞ্চ করেছিল। যদিও এখনও এই ওএস এর স্টেবল ভার্সন আসেনি। তবে অপ্পো তাদের বিভিন্ন স্মার্টফোনে এর বিটা ভার্সন টেস্ট করছে। সেইমত Oppo Reno 2F, Oppo Reno 10x Zoom এবং Oppo F15 ফোনগুলি এবার বিটা প্রোগ্রামে অন্তর্ভুক্ত হল। অর্থাৎ এই ফোনগুলি এখন অ্যান্ড্রয়েড ১১ বেসড কালারওএস ১১ এর বিটা ভার্সন ব্যবহার করতে পারবে।

তবে আপাতত ভারতীয় অপ্পো রেনো ২এফ, অপ্পো রেনো ১০এক্স জুম ও অপ্পো এফ১৫ স্মার্টফোন ইউজাররা এই সুযোগ পাবে। অন্যান্য অঞ্চলের জন্য শীঘ্রই আপডেট রোল আউট করা হবে বলে জানানো হয়েছে। নতুন এই কাস্টম স্কিন ব্যবহার করার জন্য আপনাকে এই স্টেপগুলি ফলো করতে হবে – Settings > Software Update > settings icon এর ওপর ট্যাপ করুন >Trial version এবং Update Beta Version এর ওপর ক্লিক করুন।

ColorOS 11 এর সেরা কয়েকটি ফিচার

১. কালারওএস ১১ আপনাকে একগুচ্ছ নতুন কাস্টমাইজেশন অপশন দেবে। এখানে আপনি আপনার নিজস্ব অলওয়েজ অন ডিসপ্লে, ওয়ালপেপার, থিম, ফন্ট, রিংটোন, আইকন তৈরী করতে পারবেন।

২. কালারওএস ১১ এর আরেকটি ফিচার হল লো ব্যাটারি মেসেজ ফিচার। এই ফিচার কেবল ভারতের জন্য উপলব্ধ। এখানে ফোনের ব্যাটারি ১৫ শতাংশ হয়ে গেলে লোকেশন সহ মেসেজ পাঠানো যাবে।

৩. এতে অ্যাপ লকের জন্য নতুন শর্টকাট দেওয়া হয়েছে। যারফলে আপনি পাসওয়ার্ড, ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রভৃতি দিয়ে অ্যাপ লক করতে পারবেন।

৪. কালারওএস ১১ তিন ধরণের কালার স্কিম ও কন্ট্রাস্ট লেভেল অফার করে, যার দ্বারা ডার্ক মোড কাস্টমাইজ করা যায়।

৫. এতে তিনটি আঙুলের অঙ্গভঙ্গি দিয়ে Google Lens এর মাধ্যমে নেওয়া স্ক্রিনশট কে ট্রান্সলেট করার সুবিধা উপলব্ধ।

৬. একসঙ্গে ভিডিও ও টেক্সট দেখার জন্য এতে Flexdrop ফিচারস রয়েছে।

৭. আবার ColorOS 11 সুপার পাওয়ার সেভিং মোডের সাথে এসেছে। যেখানে আপনি ব্যাটারি বাঁচানোর বিভিন্ন উপায় সহ, যখন ফোনের ব্যাটারি কম থাকবে তখন ৬ টি বিশেষ অ্যাপ চালানোর সুবিধা পাবেন।

৮. এতে UI First ২.০ ফিচার উপলব্ধ, যা র‌্যাম ব্যবহারকে ৪৫ শতাংশ, রেসপন্স রেট কে ৩২% এবং ফ্রেমের রেট কে ১%% উন্নত করে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন