ভারতের বাজারে লঞ্চ হল Oppo Reno 4 Pro, সেলফি প্রেমীদের জন্য আদর্শ

oppo-reno-4-pro-launched-in-india-with-3d-border-less-sense-check-price-and-specifications

অবশেষে ভারতে লঞ্চ হল Oppo Reno 4 Pro। এই ফোনটিকে গত মাসে চীনে লঞ্চ করা হয়েছিল। যদিও চীনা ভার্সন ও ভারতীয় ভার্সনের মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে। ভারতীয় Oppo Reno 4 Pro এর বিশেষ বিশেষ ফিচারের কথা বললে এতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি প্রসেসর, ৬৫ ওয়াট সুপারভুক ফাস্ট চার্জিং ও ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের ডিসপ্লে আছে। যদিও চীনে অপ্পো রেনো ৪ প্রো স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছিল।

Oppo Reno 4 Pro দাম ও উপলব্ধতা:

ভারতে অপ্পো রেনো ৪ প্রো একটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ৩৪,৯৯০ টাকা। ফোনটি ভারতের বড় বড় ই-কমার্স সাইট ছাড়াও অফলাইনে পাওয়া যাবে। Reno 4 Pro এর সেল শুরু হবে ৫ আগস্ট থেকে। ফোনটি স্টারি নাইট এবং সিল্কি হোয়াইট কালারে পাওয়া যাবে।

Oppo Reno 4 Pro স্পেসিফিকেশন:

অপ্পো রেনো ৪ প্রো ফোনে ৬.৫৫ ইঞ্চি থ্রিডি বর্ডারলেস সেন্স সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এর ডিসপ্লে প্যানেলে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ও ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশন সাপোর্ট করে। এর স্ক্রিনের স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯২.১ শতাংশ। এটি ১,১১০ নিটস সর্বোচ্চ ব্রাইটনেস অফার করে। ডিসপ্লের সুরক্ষার জন্য এতে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ প্রটেকশন আছে। সিকিউরিটির জন্য এতে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে। এই ফোনের ডিসপ্লে ডিজাইন পাঞ্চ হোল।

ফোনটি অক্টা কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি প্রসেসরের সাথে এসেছে। সাথে পাবেন ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ । রেনো ৪ প্রো অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড কালার ওএস ৭.২ অপারেটিং সিস্টেমে চলে। এই ফোনে মাল্টি কুলিং সিস্টেম আছে, যা ফোনকে গরম হওয়া থেকে রক্ষা করবে।

ফটোগ্রাফির কথা বললে অপ্পো রেনো ৪ প্রো ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এতে ৪৮ মেগাপিক্সেল সনি আইএমএক্স৫৮৬ সেন্সর + ১২ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স + ১৩ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো সেন্সর আছে। সেলফির জন্য এই ফোনে পাবেন এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ ৩২ মেগাপিক্সেল সনি আইএমএক্স৬১৬ সেন্সর। এই ক্যামেরায় আলট্রা ক্লিয়ার ১০৮ মেগাপিক্সেল মোড, ৯৬০এফপিএস স্লো মোশন ও আল্ট্রা স্টেডি ভিডিও মোড দেওয়া হয়েছে। সেলফি প্রেমীদের জন্য এতে আলট্রা নাইট সেলফি মোড আছে। আবার ফ্রন্ট ক্যামেরায় ইমেজ স্টেবিলাইজেশন সাপোর্ট করবে।

আবার এই ফোনে পাবেন ৬৫ ওয়াট সুপারভুক ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি। ফোনটি ৪,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে এসেছে। কোম্পানির দাবি অনুযায়ী এই ফোনটি ৩৬ মিনিটে ০-১০০ চার্জ হবে। চার্জিংয়ের জন্য রেনো ৪ প্রো ফোনে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট দেওয়া হয়েছে। এতে সুপার পাওয়ার সেভিং মোড দেওয়া হয়েছে। যেটি মাত্র ৫ পার্সেন্ট ব্যাটারি থাকলেও ৭৭ মিনিট কল করার সুবিধা দেবে।