লঞ্চ হল সস্তা 5G ফোন Oppo Reno 4 SE, ৩৭ মিনিটে হবে ফুল চার্জ

oppo-reno-4-se-5g-launched-with-65w-fast-charging-and-dimensity-720-soc

স্মার্টফোন কোম্পানি অপ্পো চীনে তাদের রেনো ৪ সিরিজের নতুন ফোন Oppo Reno 4 SE 5G লঞ্চ করলো। এর আগে কোম্পানি এই সিরিজে Reno 4, Reno 4 Pro এবং Reno 4 Pro Artist Limited Edition লঞ্চ করেছিল। নতুন অপ্পো রেনো ৪ এসই ফোনটি ৫জি কানেক্টিভিটি ছাড়াও ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং, ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা, এমোলেড ডিসপ্লে ও মেডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭২০ প্রসেসরের সাথে এসেছে। আসুন Reno 4 SE 5G এর দাম ও স্পেসিফিকেশন জেনে নিই।

Oppo Reno 4 SE 5G দাম

অপ্পো রেনো ৪ এসই ৫জি দুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের সাথে লঞ্চ হয়েছে। এর ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ২,৪৯৯ ইউয়ান, যা প্রায় ২৭,১০০ টাকা। আবার ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজের দাম থাকবে ২,৭৯৯ ইউয়ান, যা প্রায় ৩০,৩০০ টাকা। ফোনটি সুপার ফ্ল্যাশ ব্ল্যাক, সুপার ফ্ল্যাশ হোয়াইট এবং সুপার ফ্ল্যাশ ব্লু কালারে পাওয়া যাবে। ফোনটিকে অন্যান্য মার্কেটে কবে লঞ্চ করা হবে সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি।

Oppo Reno 4 SE 5G স্পেসিফিকেশন

অপ্পো রেনো ৪ এসই ৫জি ফোনে ৬.৪৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস পাঞ্চ হোল S-AMOLED E3 স্ক্রিন দেওয়া হয়েছে। এর আসপেক্ট রেশিও ২০:৯ এবং রিফ্রেশ রেট ৯০ হার্টজ। আবার এর পিক্সেল রেজুলেশন ১০৮০ x ২৪০০ এবং স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯০.৮ শতাংশ। এর টাচ স্যাম্পেলিং রেট ১৮০ হার্টজ। এতে ২.৪ গিগাহার্টজ ক্লক স্পিড যুক্ত ৫জি প্রসেসর, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭২০ ব্যবহার করা হয়েছে। আবার ফোনটি ৮ জিবি র‌্যাম ( LPPDR4x) ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজের সাথে এসেছে (UFS 2.0)। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবেনা।

ফটোগ্রাফির জন্য Oppo Reno 4 SE 5G ফোনের পিছনে আছে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/১.৭ অ্যাপারচার সহ ৪৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও আছে ১১৯ ডিগ্রী ফিলড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড ক্যামেরা ও এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর । রিয়ার ক্যামেরার সাথে এলইডি ফ্ল্যাশ দেওয়া হয়েছে। পিছনের ক্যামেরায় প্রফেশনাল মোড, পোর্ট্রেট মোড, প্যানারোমা, নাইট সিন মোড প্রভৃতি ফিচার আছে। আবার এই ক্যামেরা দিয়ে স্লো মোশন ভিডিও ও ৩০ এফপিএস এ ১০৮০পি ভিডিও রেকর্ড করা যাবে।

আবার এই ফোনে ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে এফ/২.৪ অ্যাপারচার সহ ৩২ মেগাপিক্সেল সেন্সর। এই ক্যামেরায় ইআইএস, এআই স্মার্ট বিউটি, পোর্ট্রেট মোড মোড, নাইট সিন মোড ফিচার উপলব্ধ। ফোনটি ৬৫ ওয়াট SuperVOOC ২.০ সহ ৪,৩০০ এমএএইচ ব্যাটারিরি সাথে লঞ্চ হয়েছে। কোম্পানির দাবি ফোনটি ৩৭ মিনিটে ফুল চার্জ হয়ে যাবে। চার্জিংয়ের জন্য আছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। অপারেটিং সিস্টেম এখানে আছে অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড কালারওএস ৭.২। সিকিউরিটির জন্য এখানে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর উপলব্ধ।