গুগল কে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছে ক্রিকেট লীগ ও ক্যাশব্যাক অফার ফিরিয়ে আনছে Paytm

paytm-brings-back-cricket-league-with-upi-cashback

চলতি মাসে Play Store এর নীতি লঙ্ঘনের জন্য Paytm অ্যাপ কে নিজেদের অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে দিয়েছিল Google। Paytm-এর ওপর অভিযোগ ছিল যে, তারা পরোক্ষভাবে অনিয়ন্ত্রিত জুয়া খেলাকে সমর্থণ করছে যা Google-এর পলিসির বিরুদ্ধে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, Paytm তাদের মূল অ্যাপে Paytm First Games অন্তর্ভুক্ত করেছিল যার মধ্যে ফ্যান্টাসি স্পোর্টস্, ক্রিকেট, রামি খেলা ইত্যাদি ছিল। এগুলির উপরেই নীতি লঙ্ঘন করার অভিযোগ ছিল। পরবর্তীকালে এই অ্যাপটি সরিয়ে Paytm আবার প্লে স্টোরে ফিরে আসে। তবে সোমবার Paytm জানিয়েছে যে, তারা পুনরায় Paytm ক্রিকেট লিগ এবং ইউপিআই ক্যাশব্যাক অফার, স্ক্র্যাচ কার্ড ফিরিয়ে আনতে চলেছে।

Paytm-এর মতে, এই অফারের ফলে ইউজাররা তাদের প্রিয় ক্রিকেট স্টারদের স্টিকার সংগ্রহ করতে পারবেন। Paytm-এর মাধ্যমে মোবাইল রিচার্জ, বিল পেমেন্ট, দোকানে জিনিসপত্র কেনা বা টাকা লেনদেনের মাধ্যমে এই স্টিকারগুলি সংগ্রহ করা যাবে। একটি সেট সম্পূর্ণ হলে ইউজাররা হাজার টাকা অব্দি ক্যাশব্যাক জিততে পারবেন।

ইউজারদের দ্বারা সংগৃহীত প্রত্যেকটি স্টিকার নিজে নিজেই ক্রিকেট অ্যালবামে যোগ হয়ে যাবে। এখানে ক্যাশব্যাক জেতার জন্য তিনটি আলাদা আলাদা মাইলস্টোন থাকবে, যেগুলি হল এগারোটি আলাদা আলাদা ক্রিকেট খেলোয়াড়ের স্টিকার, এগারটি আলাদা আলাদা বোলার এবং এগারটি আলাদা আলাদা ব্যাটসম্যানের স্টিকার। যখনই একটি মাইলস্টোন পৌঁছানো হবে তখনই ইউজাররা একটি স্ক্র্যাচ কার্ড পাবেন যাতে নিশ্চিত ক্যাশব্যাক থাকবে।

এর আগে Paytm একটি ব্লগ পোস্টে জানিয়েছিল যে প্লে স্টোরে ফেরার জন্য Google তাদের UPI ক্যাশব্যাক এবং স্ক্র্যাচকার্ড ক্যাম্পেন সরাতে বাধ্য করেছিল। কিন্তু এই দুটিই ভারতে বৈধ। Paytm জানিয়েছে যে ক্যাশব্যাক সমস্ত বিধি মেনেই দেওয়া হয়। Google প্লে স্টোরে তাদের ইচ্ছামত নীতি নির্ধারণ করে কৃত্রিমভাবে বাজারে নিজেদের দাপট বজায় রাখতে চাইছে। Paytm-এর একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, “আমরা আমাদের প্রমোশনাল ক্যাম্পেন সমস্ত বিধি মেনেই করে থাকি। আমরা বিশ্বাস করি এই ধরনের অযাচিত ক্রিয়া-কলাপ এবং অভিযোগ আমাদের দেশের আইনের বিরুদ্ধে এবং উদ্ভাবনী পরিষেবাগুলিতে থেকে ব্যবহারকারীদের বঞ্চিত করছে।”

তবে Google-এর সঙ্গে চ্যালেঞ্জ নেওয়া কি সুবিধাজনক হবে Paytm-এর পক্ষে? এর উত্তর সময়ই বলে দেবে।