গুগল অ্যাপ স্টোর কে টেক্কা দিতে মিনি অ্যাপ স্টোর লঞ্চ করলো Paytm

paytm-mini-app-store-launched-to-take-on-google-play-store

গত সপ্তাহেই জানা গিয়েছিল ভারতীয় অ্যাপ মেকাররা Google Play সার্ভিসের দেশীয় বিকল্প খোঁজ করছে। এরপরই আজ সবাই কে চমকে দিয়ে পেমেন্ট সার্ভিস প্ল্যাটফর্ম Paytm, মিনি অ্যাপ স্টোর লঞ্চ করলো। ইতিমধ্যেই এই মিনি অ্যাপ স্টোরে Decathlon, Ola, Rapido, Netmeds, 1MG, Domino’s Pizza, FreshMenu, NoBroker এর মত জনপ্রিয় অ্যাপগুলি অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। এই অ্যাপ স্টোর পেটিএম অ্যাপের মধ্যেই পাওয়া যাবে। তবে এখানে কোনো ডেভেলপার টুল নেই, বরং লাইট অ্যাপগুলিকেই এখন অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে এবং অ্যাপগুলি Paytm এর প্ল্যাটফর্মের মধ্যেই খুলবে।

Mint এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতীয় অ্যাপ ডেভেলপার ও কোম্পানিগুলিকে সাহায্য করতেই মিনি অ্যাপ স্টোর নিয়ে এসেছে পেটিএম। ডিজিটাল পেমেন্ট ফার্মের তরফে বলা হয়েছে, মিনি-অ্যাপ স্টোর ছোট ছোট ডেভেলপারদের তাদের প্রোডাক্টগুলি জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে সহায়তা করবে। স্টোরে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য কোম্পানিগুলিকে কোনো অর্থ দিতে হবেনা। এমনকি ডেভেলপাররা বিনামূল্যে Paytm Wallet, Paytm Payments Bank, এবং UPI এর মত পেমেন্ট গেটওয়ে ব্যবহার করতে পারবে।

পেটিএম মিনি অ্যাপ স্টোরে যাওয়ার জন্য আপনাকে প্রথমে Paytm অ্যাপ খুলতে হবে। এরপরআপনি হোম পেজে ‘More’ অপশন দেখতে পাবেন। এরমধ্যেই Mini App Store উপলব্ধ। আপাতত এখানে শপিং, হেল্থকেয়ার, ফুড অর্ডারিং, ট্রাভেল, নিউজ, ইউটিলিটি, ফিনান্সিয়াল, এডুকেশন, লাইফস্টাইল, অ্যাস্ট্রোলোজি, মিউজিক, মিনি গেম, লাইভ টিভি ক্যাটাগরিগুলি উপলব্ধ।

প্রসঙ্গত ২০১৮ সালের জুনে আরেক ডিজিটাল পেমেন্ট ফার্ম, PhonePe ইন অ্যাপ প্ল্যাটফর্ম লঞ্চ করেছিল, যেটিকে পরে PhonePe Switch করা হয়। যদিও এই প্ল্যাটফর্ম খুব বেশি জনপ্রিয়তা পাইনি। এদিকে শোনা যাচ্ছে ভারত সরকারও খুব শীঘ্রই সমস্ত স্মার্টফোনের জন্য Mobile Seva অ্যাপ স্টোর বাধ্যতামূলক করতে পারে। এই স্টোরে অন্যান্য সরকারি অ্যাপের সাথে সম্প্রতি Paytm কে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

এবার প্রশ্ন আসতেই পারে হঠাৎ কেন দেশীয় অ্যাপ স্টোরের প্রয়োজন হয়ে পড়লো। আসলে ঘটনার সূত্রপাত, ভারতের জনপ্রিয় ওয়ালেট অ্যাপ Paytm-কে ১৮ সেপ্টেম্বর গুগল প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর থেকে। পরোক্ষভাবে জুয়া খেলাকে মদত দেওয়ার কারণেই পেটিএম কে সরানো হয়েছে বলে জানায় গুগল। যদিও কিছু সময় পরে ই-মার্চেন্ট অ্যাপ্লিকেশনটি পুনরায় প্লে স্টোরে ফিরে আসে, কিন্তু অ্যাপটির ওপর বিভিন্ন বিধি নিষেধ চাপিয়ে দেওয়া হয়।

শুধু তাই নয়, সম্প্রতি, গুগল প্লে স্টোরে নতুন বিলিং সিস্টেম চালু করা হয়েছে। গুগল ঘোষণা করেছে, তার প্লে স্টোর প্ল্যাটফর্মে উপলব্ধ থাকার জন্য অ্যাপ্লিকেশনগুলিকে ৩০% ফি বা খরচ দিতে হবে। এরপরেই গুগল বা অ্যাপলের মত বৈদেশিক প্রযুক্তি সংস্থাগুলির একাধিপত্যের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সপ্তাহের শুরুতেই একটি ভার্চুয়াল কনফারেন্স করে এক ঝাঁক ভারতীয় স্টার্টআপ সংস্থা। যারই ফসল বলা যেতে পারে Paytm Mini App Store।