আগে খরচ করুন পরিশোধ করুন কিস্তিতে, চালু হল Paytm Postpaid EMI পরিষেবা

সাধারণত Paytm ইউজাররা তাদের ওয়ালেটে আগে টাকা ভরে তারপর ব্যবহার করে। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না যে পেটিএম একটি পোস্টপেড পরিষেবাও দিয়ে থাকে। এই পরিষেবার মধ্যে পেটিএমের তরফ থেকে খরচ করার জন্য ক্রেডিট রাশি দেওয়া হয়। সেই ক্রেডিট ব্যবহার করার পরে ইউজারকে সমপরিমাণ অর্থ শোধ করতে হয়। এতদিন অব্দি ইউজারদের ব্যবহৃত টাকার পুরোটাই একসাথে জমা দিতে হতো। কিন্তু এবার Paytm পোস্টপেড ইউজারদের জন্য EMI পরিষেবা নিয়ে এলো। অর্থাৎ এবার থেকে পোষ্টপেড ইউজারদের উপর একসাথে অনেক টাকা শোধ করার চাপ পড়বে না। মাসে মাসে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা জমা দিয়েও তারা পেটিএম ব্যবহার করতে পারবে। চলুন এ বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নিই।

Paytm Postpaid ইউজারদের জন্য এল EMI পরিষেবা

ভারতের ৫ লাখের কাছাকাছি দোকান ও ওয়েবসাইটে Paytm-এর “Buy now and Pay later” সুবিধা পাওয়া যায়। গ্রাহকদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে গিয়ে যাতে পকেটে টান না পড়ে তার জন্য পেটিএম এই সুবিধা প্রদান করছে। তবে এই পদ্ধতিতে খরচ করা টাকা গ্ৰাহকদের পরে একসঙ্গেই দিতে হত। কিন্তু EMI-এর সুবিধা চলে আসায় সেদিক দিয়েও অনেকটা সুবিধা হয়ে গেল।

Paytmপোস্টপেড ইউজারদের ১ লাখ টাকা অব্দি ক্রেডিট দিয়ে থাকে। সময়ে টাকা পরিশোধ করে দিলে এই পরিমাণ বৃদ্ধির সম্ভাবনাও থাকে। এখন থেকে ক্রেডিট নেওয়া টাকা একসাথে বা মাসিক কিস্তিতে জমা দিতে পারবেন গ্ৰাহকরা।

প্রসঙ্গত, প্রতি মাসের খরচের পরিমাণ দেখানোর জন্য Paytm গ্ৰাহকদের একটি মাসিক বিল দেবে। এই বিলে গ্রাহকের সমস্ত খরচের হিসাব বিস্তৃতভাবে দেখানো হবে। সেই সঙ্গে বিল জেনারেট হওয়ার ৭ দিনের মধ্যে গ্ৰাহকরা ট্রানজাকশন EMI-তে কনভার্ট করে নিতে পারবেন। তারপর সহজ মাসিক কিস্তিতে টাকা পরিশোধ করতে পারবেন।

ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড, UPI ইত্যাদি বিভিন্ন মাধ্যমে ইউজাররা টাকা পরিশোধ করতে পারেন। কিন্তু জানিয়ে রাখি পেটিএম পোস্টপেড EMI একদম সুদমুক্ত নয়। কিছু অল্প পরিমাণ সুদ EMI-এর সঙ্গে যুক্ত হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমানে ভারতে ৭০ লাখ ইউজার Paytm পোস্টপেড পরিষেবা ব্যবহার করেন। ২০২১-এর মার্চ অব্দি এই সংখ্যাকে ১৫০ লাখে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে পেটিএমের। সেই কারণেই সম্ভবত এমন লোভনীয় অফার প্রদান করছে তারা।