রিমোট কন্ট্রোল রোবটের সাহায্যে স্কুল পৌঁছাচ্ছে পড়ুয়ারা, সামনে এল আশ্চর্যজনক ঘটনা

philippines-students-attending-graduation-ceremony-using-remote-control-robots

সারা দুনিয়ায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের কারণে বর্তমানে সমস্ত স্কুল কলেজ বন্ধ রয়েছে। এরকম অবস্থায় ফিলিপাইনের একটি হাই স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির কিছু ছাত্র-ছাত্রী গ্রাজুয়েশন সেরেমনির জন্য স্কুলে পৌঁছলো রোবটের মাধ্যমে ঘরে বসে। বিগত ২৯মে এই আশ্চর্যজনক ঘটনাটি ঘটেছে। ঐদিন ফিলিপাইনের ওই স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের জন্য সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স গ্রাজুয়েশন সেরেমনি রাখা হয়েছিল। চারটি রোবটের মাধ্যমে ওই স্কুলের ছাত্ররা এই সেরেমনিতে গ্রহণ করলেন পাশাপাশি তাদের অভিভাবকরা ফেসবুক লাইভে এই সম্পূর্ণ ইভেন্ট দেখতে পেলেন।

সারা দুনিয়ায় স্কুল কলেজ অফিস সবকিছু বন্ধ রয়েছে। এই কারণে মানুষ পরিচিতদের সাথে দেখা করার নিত্য নতুন পদ্ধতি বের করছে। বহু ব্যবহারকারী এখন ভার্চুয়াল টুল ব্যবহার করে যোগাযোগ স্থাপন করছে। এছাড়াও আরও একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছে যে এলিমেন্টারি স্কুলের কিছু ছাত্র, জনপ্রিয় মাল্টিপ্লেয়ার গেম মাইনক্রাফট ব্যবহার করে ভার্চুয়াল গ্রাজুয়েশন সেরেমনিতে অংশগ্রহণ করেছিল। তারা ওই মাইনক্রাফট গেমে সম্পূর্ণ ক্যাম্পাস ডিজাইন করেছিল এবং ভার্চুয়াল জগতে এই ইভেন্ট অনুষ্ঠিত করা হয়েছিল।

জাপানের বিবিটি ইউনিভার্সিটিতেও রোবট ব্যবহার করে একটি সেরেমনি করা হয়। জাপানের ম্যানিলার এই কলেজে শিক্ষার্থীরা ‘নিউমি’ রোবট ব্যবহার করে জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশন ‘জুম’ এর মাধ্যমে এই সেরেমনি আয়োজিত করেছিল। এই সমস্ত সেরেমনিতে হল সম্পূর্ণ ফাঁকা ছিল এবং সকলেই নিজেদের বাড়িতে বসে এই সেরেমনিতে অংশগ্রহণ করতে পেরেছিলেন।

সম্পূর্ণ ইভেন্টে বেশ কিছু শিক্ষক এবং স্কুলের কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সবাইকে নিয়ে একসাথে ছবি তোলা হয় বেশ কিছু এবং তার শেয়ার করা হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। রোবটের মাধ্যমে কানেক্ট করা ট্যাবলেটের মাধ্যমে সমস্ত স্টুডেন্টের আগে থেকে রেকর্ড করে রাখা ভিডিও চালানো হয়। এছাড়াও বড় একটি স্ক্রিনে শহরের মেয়রের একটি ভিডিও চালানো হয়। এই রোবটগুলির মাধ্যমে অপার্থিবভাবে পড়ুয়াদের স্টেজে নিয়ে যাওয়া হয় এবং ট্যাবলেটের স্ক্রিনে তাদের ভিডিও চালানো হয়। এই রোবট ব্যবহার করে ওই স্কুলের ১৭৯ জন ছাত্রছাত্রীকে এই সেরেমনিতে সামিল করা সম্ভব হয়।