সস্তা হবে POCO F2? জল্পনার অবসান ঘটালো কোম্পানি

কিছুদিন আগেই Xiaomi ঘোষণা করেছিল এবার থেকে Poco একটি নিজস্ব ব্র্যান্ড হিসাবে কাজ করবে। এরপর পোকো ভারতে POCO X2 লঞ্চ করেছে। এই ফোনটি ভারতে ব্যাপক জনপ্রিয়। এদিকে কিছুদিন থেকেই শোনা যাচ্ছিলো কোম্পানি এবার ভারতে POCO F2 নিয়ে আসবে। ফোনটির টিজার ও পোস্ট করা হয়। এরপরই মনে করা হচ্ছিল যে এই ফোনটি কিছুদিন আগে চীনে লঞ্চ করা Redmi K30 Pro এর রিব্রান্ডেড ভার্সন হবে। তবে আজ সে ভাবনায় জল ঢেলে দিয়েছে কোম্পানি।

POCO India এর জেনারেল ম্যানেজার সি মনমোহন আজ পরিষ্কার জানিয়েছে যে, POCO F2 কোনোভাবেই রেডমি কে ৩০ প্রো এর রিব্রান্ডেড ভার্সন হবেনা। বরং কোম্পানি একে অন্য একটি স্মার্টফোনের মতোই লঞ্চ করবে। তিনি আরও জানান যে পোকো এফ ২ আসতে আরও কিছুটা সময় লাগবে। এছাড়াও তিনি ফোনের দাম সম্পর্কেও জানান। তার কথা অনুযায়ী, এই ফোনটি ২০,০০০ টাকার বেশি দামে আসবে।

আপনাকে জানিয়ে রাখি Xiaomi কয়েকদিন আগেই চীনে তাদের নতুন ফোন Redmi K30 Pro 5G লঞ্চ করেছিল। রেডমি কে ৩০ প্রো 5G ফোনটি তিনটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে লঞ্চ হয়েছে। যার ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম প্রায় ৩২,৩০০ টাকা। আবার ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ দাম যথাক্রমে প্রায় ৩৬,৬০০ টাকা ও ৩৯,৪০০ টাকা। ফোনটি সাদা, নীল, গোলাপি ও ধূসর রঙে পাওয়া যাবে।

Redmi K30 Pro স্পেসিফিকেশন :

রেডমি কে ৩০ ফোনে ৬.৬৭ ইঞ্চি সুপার AMOLED ডিসপ্লে আছে। যেটিতে এইচডিআর ১০ প্লাস সাপোর্ট ও ১৮০ হার্জ টাচ স্যাম্পলিং রেট রয়েছে। এই ডিসপ্লের স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯২.৭ শতাংশ। পারফরম্যান্সের কথা বললে iQOO 3 এবং Realme X50 Pro এর মত এই ফোনেও কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৬৫ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। এই ফোনে দ্রুত ফাইল ট্রান্সফারের জন্য দেওয়া হয়েছে ইউএফসি ৩.১ সাপোর্ট। ফোন গরম না হওয়ার জন্য এখানে কুলিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে। এই ফোনে পাবেন ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিংয়ের সাথে ৪,৭০০ ,এমএএইচ ব্যাটারি।

শাওমি রেডমি কে ৩০ প্রো ফোনে পাবেন পপ আপ সেলফি ক্যামেরা। আবার পিছনে গোল আকারে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ আছে। যার প্রধান ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেল।এই ক্যামেরায় ডুয়েল অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশনের সাথে ৩ এক্স অপটিক্যাল জুম সাপোর্ট করবে। পিছনের অন্য তিনটি ক্যামেরা হল ১৩ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, ৮ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো সেন্সর এবং ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। সেলফির জন্য এই ফোনে ২০ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। এই ফোনটি আইপি৫৩ রেটিং সহ অ্যান্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেমের সাথে এসেছে। কানেক্টিভিটির জন্য এই ফোনে পাবেন ডুয়েল মোড ৫জি, ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, এনএফসি, ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট সাপোর্ট।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।