POCO M2 কে আজ নিজের করুন, ৬ জিবি র‌্যামের সবথেকে কম দামি ফোন

poco-m2-to-go-on-sale-today-at-12pm-via-flipkart-price-specifications

এখনকার দিনে আমরা এমন স্মার্টফোন খুঁজি যেখানে বেশি র‌্যাম ও শক্তিশালী ব্যাটারি থাকবে। আবার ক্যামেরা কোয়ালিটিও মনের মত হবে। এমনকি ফোনের ইন্টারফেসও যেন ফ্রেশ হয় যেখানে কোনো বিজ্ঞাপন থাকবেনা। আর এই সবকিছুই আপনাকে অফার করবে POCO M2। ভারতে আপাতত ৬ জিবি র‌্যামের যত ফোন উপলব্ধ, তাদের মধ্যে সবচেয়ে সস্তা ফোন এটি। এত কিছু শোনার পর আপনি যদি ভেবে থাকেন এই ফোনটি কোথায় ও কখন পাবো, তাহলে বলি আজ Flipkart থেকে দুপুর ১২ টায় POCO M2 কিনতে পারবেন। আর আজ যদি আপনি এই ফোন কেনেন তাহলে বাম্পার অফারও পাবেন।

POCO M2 দাম ও কালার

পোকো এম ২ এর ভারতে দাম ১০,৯৯৯ টাকা। এই দাম ফোনটির ৬ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজের। আবার ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম ১২,৪৯৯ টাকা। পিচ ব্ল্যাক, স্লেট ব্লু ও ব্রিক রেড – এই তিন কালার বিকল্পে ফোনটি কিনতে পারবেন।

POCO M2 অফার

লঞ্চ অফার হিসাবে Federal Bank এর ডেবিট কার্ড গ্রাহকরা সাধারণ ও ইএমআই ট্রানজাকশনে ৭৫০ টাকা ফ্লাট ডিসকাউন্ট পাবে। আবার ICICI Bank এর ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকরা সাধারণ ও ডেবিট কার্ড গ্রাহকরা ইএমআই ট্রানজাকশনে ৭৫০ টাকা ডিসকাউন্ট পাবে। HSBC ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকদের ১,৫০০০ টাকা পর্যন্ত ডিসকাউন্ট দেওয়া হবে। এই ফোনের নো কস্ট ইএমআই শুরু হবে ১,২২৩ টাকা/মাস।

POCO M2 স্পেসিফিকেশন

POCO M2 ফোনে কোম্পানি এআই কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ দিয়েছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ১৩ মেগাপিক্সেল। এছাড়াও আছে ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড সেন্সর, ৫ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্ত সেন্সর। পিছনের ক্যামেরা দিয়ে ৩০ এফপিএস এ ১০৮০পি ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। এছাড়াও পোর্ট্রেট মোড, ওয়াইড এঙ্গেল মোড প্রভৃতি উপলব্ধ। ভিডিও কল ও সেলফির জন্য ফোনের সামনে ৮ মেগাপিক্সেল ইন স্ক্রিন এআই ক্যামেরা রয়েছে।

পোকো এম ২ ফোনে ওয়াটারড্রপ নচ ডিজাইন সহ ৬.৫৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস এলসিডি প্যানেলের দেওয়া হয়েছে। যার রেজুলেশন ১০৮০x২৩৪০ পিক্সেল এবং আসপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯। এই ফোনে হালকা বেজেল উপলব্ধ এবং ডিসপ্লের প্রটেকশনের জন্য আছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৩। এটি P2i প্রোটেক্টেড, যা জল থেকে ফোনকে বাঁচাবে। ডুয়েল টোন ডিজাইনের পোকো এম ২ ফোনে পাবেন মিডিয়াটেক হেলিও জি৮০ অক্টা কোর প্রসেসর, ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ বাড়ানো যাবে।

এতে ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে। এই ফোনে ১৮ ওয়াট কুইক চার্জার ৩.০ সাপোর্ট করবে। যদিও বক্সের মধ্যে ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জার উপলব্ধ। চার্জিংয়ের জন্য এখানে পাবেন ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। সিকিউরিটির জন্য এতে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও ফেস আনলক ফিচার আছে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এই ফোনে পাবেন অ্যান্ড্রয়েড ১০ বেসড এমআইইউআই ১২ ইউআই। এছাড়াও এতে আছে ব্লুটুথ ৫.০, ওয়্যারলেস এফএম রেডিও, আইআর ব্লাস্টার, ডুয়েল মাইক্রোফোন।