চাইনিজ ফোনে ফের বিস্ফোরণের ঘটনা, জ্বলে উঠল Poco M3

কিছু মানুষ কমেন্ট করে দাবি করেছেন যে Xiaomi, Poco বা Redmi-র কোনো ফোন কেনা উচিত নয়

poco-m3-blast-incident-user-asking-refund-poco-respond-see-details

স্মার্টফোন ব্লাস্ট বা বিস্ফোরণ যেন এখন আর পাঁচটা বিষয়ের মতই সাধারণ-স্বাভাবিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিগত কয়েক মাসে আমরা এই জাতীয় বেশ কয়েকটি খবরের সাক্ষী থেকেছি। Xiaomi, OnePlus, Samsung Poco প্রভৃতি ব্র্যান্ডের ডিভাইসের সাথে এই ঘটনা ঘটেছে। সেক্ষেত্রে Poco X3 Pro এবং Poco C3-এর পর এবার এই তালিকায় নাম লেখালো সংস্থার বাজেট স্মার্টফোন Poco M3 (পোকো এম৩)। হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন! সংস্থার অন্যতম জনপ্রিয় Poco M3 মডেল বিস্ফোরিত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত ২৭ নভেম্বর, ওই ফোন ইউজারের ভাই (যার ইউজারনেম @Mahesh08716488) টুইট করে এই বিষয়টি সবার সাথে শেয়ার করেছেন এবং তার সাথে ফোনটি পুড়ে যাওয়ার একটি ছবিও পোস্টে যুক্ত করেছেন। যদিও ঠিক কী কারণে ফোনটিতে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে, সে বিষয়ে কোনো তথ্য মেলেনি।

Poco M3 স্মার্টফোনে বিস্ফোরণে

ওইদিন সকালেই এই ভয়ানক ফোন বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে উক্ত টুইট পোস্টের ছবি থেকে বেশ স্পষ্ট হয়েছে যে, বিস্ফোরণের জেরে পোকো এম৩ ফোনটির প্রায় সমগ্র ব্যাক প্যানেলই পুড়ে গেছে এবং এটি কোনোভাবেই আর মেরামত করা যাবে না। সেক্ষেত্রে মহেশ নামের ওই ব্যক্তির টুইটে এখনো পর্যন্ত ৮৭৬টি লাইক পড়েছে, যেখানে পোস্টের কমেন্ট বক্সে বিভিন্ন ইউজার মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

এর মধ্যে কিছু মানুষ কমেন্ট করে দাবি করেছেন যে Xiaomi, Poco বা Redmi-র কোনো ফোন কেনা উচিত নয়; কেউ বলেছেন এগুলি ফোন নয় বম্ব। শুধু তাই নয়, Poco কোম্পানিকেও ‘ফ্রড’ অর্থাৎ জালিয়াতের তকমা দেওয়া হয়েছে। তবে অন্য কিছুজন এই গোটা ঘটনাকেই ভুয়ো এবং পরিকল্পিত বলে দাবি করেছেন।

এদিকে গোটা ঘটনাটি সামনে আসতে, পোকো ইন্ডিয়ার সাপোর্ট টিম অ্যাকশন মোডে এই টুইটের জবাবে লিখেছে যে, ডিভাইস বিস্ফোরিত হওয়ার সমস্যার কথা জেনে তারা অত্যন্ত দুঃখিত হয়েছে। তাছাড়া সংস্থার তরফে এই সমস্যার সর্বোত্তম সমাধান দেওয়া হবে বলেও তারা আশ্বাস দিয়েছে। পাশাপাশি কীভাবে এই ঘটনা ঘটলো তার ব্যাখ্যা ওই ইউজারের কাছে চেয়েছে পোকো।

A person who enjoys creating, buying, testing, evaluating and learning about new technology.