পুলিশি সহায়তায় শুরু হচ্ছে প্রোডাক্ট ডেলিভারি, প্রয়োজনে দেওয়া হবে কার্ফু পাস

করোনা ভাইরাসের কারণে অ্যামাজন, ফ্লিপকার্ট এবং গ্রোফার্সের মতো কোম্পানিগুলি সম্প্রতি ডেলিভারি বন্ধ করে দিয়েছে। তবে গুরুগ্রাম পুলিশ এই কোম্পানিগুলির জন্য স্বস্তির খবর নিয়ে এল। পুলিশ জানিয়েছে, এই কোম্পানিগুলির ডেলিভারি স্টাফরা কোনও বাধা ছাড়াই তাদের পণ্য জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে সক্ষম হবে। পুলিশ কর্মকর্তারাও এই কর্মচারীদের সাহায্য করবেন। অন্যদিকে, দিল্লী পুলিশ ডেলিভারি কর্মীদের জন্য কারফিউ পাসও জারি করেছে। এই পাস দেখালেই ডেলিভারি স্টাফরা প্রোডাক্ট ডেলিভারির অনুমতি পাবে।

গুরুগ্রাম পুলিশ তার অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে থেকে টুইট করে জানিয়েছ যে, আমাদের সমস্ত অফিসার অ্যামাজন, বিগবাস্কেট, ব্লুডার্ট, ফ্লিপকার্ট, গ্রোফার্স, সুইগি এবং জোমোটোর ডেলিভারি কর্মীদের সহায়তা করবে, যাতে তারা সহজেই প্রয়োজনীয় জিনিস ডেলিভারি করতে পারে।

দিল্লী পুলিশ কার্ফু পাস দেবে :

দিল্লি পুলিশের PRO এমএস রন্ধাওয়া বলেছেন যে, আমি ই-কমার্স সংস্থার কর্মকর্তাদের সাথে সাক্ষাৎ করেছি। তারা আমাদের তাদের সমস্যাগুলি জানিয়েছে। এই সমস্যাগুলি মাথায় রেখে, আমরা তাদের ডেলিভারি স্টাফদের পাস প্রদান করব, যাতে তারা সহজেই পণ্য সরবরাহ করতে সক্ষম হয়। তিনি আরও বলেছেন যে আমরা সমস্ত হোম ডেলিভারি কর্মীদেরও সহায়তা করব।

আপনাকে জানিয়ে রাখি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানিয়েছেন সারাদেশে ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন থাকবে। যদিও জরুরি পরিষেবা যেমন রেশন, দুধ এবং ওষুধ প্রভৃতি আগের মতোই সচল রাখার কথা তিনি জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী মোদীর এই ঘোষণার পরে ভারতীয় রেল ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত তাদের পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। এর আগে, রেলওয়ের পরিষেবাগুলি ৩১ মার্চ অবধি বন্ধ ছিল।

WhatsApp এ সব খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন।