হারের ধাক্কায় পাবাজি খেলতে খেলতে হৃদরোগে মৃত্যু ছাত্রের

  

পাবজি এখন এমন একটি নামে পরিণত হয়েছে, যাকে শোনার পর অনেকেই মনে মনে ভাবতে থাকবে সরকার কেন এই গেমটি ব্যান করছে না। গুজরাটে এই গেমকে একমাস পর্যন্ত নিষিদ্ধ করা হলেও পরে তা ফেরানো হয়েছে। পাবজি মোবাইল গেম খেলার জন্য ইতিমধ্যেই ভারতে অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে। এতকিছুর পরও পাবজির বিরুদ্ধে অভিযোগ কমছে না। সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের নিমাছ জেলার একটি খবর সামনে এসেছে যেটা পড়ার পর আপনিও ভাববেন এবার পাবজি ব্যান করা দরকার।

এই ঘটনা মধ্যপ্রদেশের নিমাছ জেলার যেখানে রাতে পাবজি খেলতে খেলতে ফারহান কুরেশি নামের এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। ক্লাস টুয়েলভের এই ছাত্রের বয়স ষোলো বছর। সে রাজস্থানে নাসিরাবাদ কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতো। ফারহান মধ্যপ্রদেশে একটি বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠানে এসেছিলো।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুসারে ফারহান যখন গেম খেলছিল তখন ঘরে তার সাথে তার বোন ফিজা ও ছিল। ফিজা জানিয়েছে, তার দাদা হঠাৎ ‘ব্লাস্ট ইট ব্লাস্ট ইট, অয়ন তুই আমাকে মেরে দিলি, আমি খেলবো না ‘ বলে চিৎকার করে ওঠে। এরপরই ফারহান বেহুশ হয়ে যায়। তড়িঘড়ি তাকে কাছের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, হাসপাতাল থেকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

তার বোন আরো জানিয়েছে ফারহান টানা ছয় ঘন্টা ধরে পাবজি খেলছিল এবং মাঝে মাঝেই চিৎকার করে উঠছিলো। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান গেম খেলতে খেলতে ফারহান উত্তেজনার চূড়ান্ত সীমায় পৌঁছলে তার হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে যায়।

হার্ট অ্যাটাকের পর ফারহানের চিকিৎসক কার্ডিওলোজিস্ট ডা: অশোক জৈন জানান, হাসপাতালে আসার পর ফারহানের পালস চলছিল না। এরপরও তাকে বাঁচানোর সবরকম চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হতে হয়।

পড়ুন : পাবজি খেলতে খেলতে প্রেম, স্বামীর থেকে তালাক চায় মহিলা

সব খবর পড়তে আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন

টেক ভিডিও দেখার জন্য আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন – এখানে ক্লিক করুন

সব খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে যুক্ত হোন – এখানে ক্লিক করুন