PUBG Mobile এর ভারতে নাম হবে Battlegrounds Mobile India

pubg-mobile-india-facebook-youtube-channel-link-officially-renamed-to-battlegrounds-mobile-india

পাবজি মোবাইলের ভারতে প্রত্যাবর্তন নিয়ে জল্পনার শেষ নেই। ডেটা সুরক্ষাজনিত উদ্বেগ এবং চীনের সাথে সম্পর্কজনিত কারণে ভারত সরকার ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০ তারিখে এদেশে জনপ্রিয় ব্যাটেল-রয়্যাল গেম PUBG Mobile সহ প্রায় ১১৮ টি অ্যাপ এবং গেম নিষিদ্ধ করে। নিষিদ্ধ হওয়ার পর থেকেই পাবজি মোবাইলের পুনরায় এদেশে চালু হওয়া একটি দীর্ঘ বিতর্কের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইতিমধ্যে বহুবার এই পরিচিত গেমটির রি-লঞ্চ সম্পর্কে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। বিভিন্ন টিপস্টাররা PUBG Mobile-র প্রত্যাবর্তন সম্পর্কে নিজেদের মতামত জানিয়েছেন। এমনকি গেমটির মূল ডেভেলপার সংস্থা নিজেও এটির নতুন টিজার ও পোস্টার প্রকাশ করেছে।

সম্প্রতি দুর্ঘটনাক্রমে সংস্থার অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে PUBG Mobile-এর প্রবর্তন সংক্রান্ত একটি নতুন ৬ সেকেন্ডের টিজার ভিডিও প্রকাশিত হয়। যদিও ভিডিওটি আপলোড হওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সেটিকে রিমুভ করে দেওয়া হয়। এরপর সামনে আসে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আপডেট করা একটি থাম্বনেল ইমেজ, যা শেষবার দিওয়ালি কামিং সুন পোস্টারের সাথে আপডেট করা হয়েছিল। এই ইমেজটিই বর্তমানে আমাদের সবার সামনে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য তুলে ধরেছে। থাম্বনেল কভার অনুযায়ী, গেমটির ভারতীয় সংস্করণের নাম পরিবর্তন করে ব্যাটলগ্রাউন্ডস মোবাইল ইন্ডিয়া (Battlegrounds Mobile India) রাখা হবে। শুধু তাই নয়, PUBG Mobile-র অফিশিয়াল ফেসবুক ও ইউটিউব লিংকও পরিবর্তন করে ব্যাটলগ্রাউন্ডস মোবাইল ইন্ডিয়া রাখা হয়েছে। এটি কাকতালীয় নয়, কারণ PUBG-র মূল নির্মাতা সংস্থা ক্রাফ্টন (Krafton) গত মাসের শুরুতে এই নামে একটি ডোমেইন রেজিস্টার করেছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার পর থেকেই সংস্থাটি ভারতে গেমটি পুনরায় চালু করার লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

একটি জনপ্রিয় ই-স্পোর্ট ওয়েবসাইট জেমওয়্যারও (GemWire) তার অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলের মাধ্যমে এটি পোস্ট করেছে। ওয়েবসাইটের পোস্টে দাবি করা হয়েছে যে, নতুন পোস্টটি ভিমিওর (Vimeo) একটি ভিডিওর অংশ ছিল। ওয়েবসাইটটি আরও দাবি করেছে যে, ভিমিওর সু্সমৃদ্ধ কালেকশনে একই থাম্ব ইমেজ সহ India Recall Campaign Motion_v02.mp4 নামে আরও একটি ভিডিও রয়েছে।

এই সমস্ত নিত্যনতুন ফাঁসের খবর ভারতে আবার গেমটি চালু হওয়ার দিকেই ইঙ্গিত দেয়। তবে এখনও পর্যন্ত, এই নতুন নামের সাথে গেমটি পুনরায় চালু করার বিষয়ে সংস্থা বা এমনকি ভারত সরকারের তরফ থেকেও কোনো সবুজ সংকেত পাওয়া যায়নি। তাই আগামী দিনে জনপ্রিয় মোবাইল গেমটি আদৌ ফিরবে কি না বা ফিরলেও কবে ফিরবে, সেই বিষয়ে অনিশ্চয়তা থেকেই যাচ্ছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন