দীপাবলিতে ভারতে ফিরতে চলেছে PUBG Mobile, দাবি বিশ্বের নম্বর ওয়ান টেক ওয়েবসাইটের

আর কয়েকদিন পরেই দেশ জুড়ে পালিত হবে খুশির উৎসব দীপাবলি। কিন্তু ভারতের PUBG প্রেমীদের জন্য দীপাবলি আরো খুশির হতে পারে! আসলে, আজ প্রযুক্তি সম্পর্কিত খবর সরবরাহকারী পোর্টাল টেকক্রাঞ্চ জানিয়েছে যে, আলোর উৎসবের দিনগুলিতে ভারতীয় বাজারে ফের উপলব্ধ হতে পারে PUBG Mobile গেম। গত সেপ্টেম্বরের শুরুতে ভারতে এই জনপ্রিয় ব্যাটেল-রয়্যাল গেমটি ব্যান হয়েছিল। এরপর অক্টোবরের ৩০ তারিখ ভারতে PUBG Mobile এবং PUBG Mobile Lite গেমদুটির সমস্ত পরিষেবা বা অ্যাক্সেস বন্ধ করে দেয় নির্মাতা সংস্থা। তবে ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, এই মাসের মধ্যেই ভারতে পুনরায় ফিরে আসতে চলেছে PUBG Mobile।

আপনারা প্রায় সবাই জানেন যে, চীনা সংস্থা টেনসেন্টের সাথে সম্পর্ক থাকার কারণেই ভারতে গেমটি নিষিদ্ধ হয়। অভিযোগ ছিল, গেমটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ইউজারদের ডেটা সংরক্ষণ করছে এবং বাইরের দেশে তথ্য পাচার করছে। তবে শুরু থেকেই PUBG-র দক্ষিণ কোরিয়ান মালিক সংস্থা দাবি করে আসছে যে, তারা সবসময় ইউজারের ডেটা সুরক্ষিত রাখার চেষ্টা করে এবং ভারতের সমস্ত ডেটা প্রোটেকশন আইন বা বিধিবিধানকে মেনে চলে। তাই গেমটির থেকে কোনোরকম আশঙ্কা নেই। এমনকি পাবজি কর্পোরেশন, টেনসেন্টকে ভারতের সার্ভারের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয় এবং সংস্থাটির সাথে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে।

শুধু তাই নয়, এর আগে জল্পনা চলছিল যে ভারতে ফিরতে দেশের জনপ্রিয় টেলিকম অপারেটর Reliance Jio-এর সাথে আলোচনা করছে পাবজি কর্পোরেশন। সংস্থাটি, ভারত সরকারের সাথে আলোচনা করতে চায় – এমন খবরও শোনা যাচ্ছিল। তবে হাজার আলাপ আলোচনাতেও তেমন কোনো আশার কথা শোনা যায়নি! কিন্তু সাম্প্রতিক রিপোর্ট অনুযায়ী, সংস্থার একটি সূত্র জানিয়েছে, তারা আসন্ন দীপাবলিতে বিপণন প্রচার চালানোর পরিকল্পনা করেছে। অন্যদিকে কিছু হাই প্রোফাইল স্ট্রিমার জানিয়েছে যে, এই বছর শেষ হওয়ার আগেই পাবজি মোবাইল আবার ফিরতে পারে।

আবার অন্য একটি সূত্রের দাবি, সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে অনলাইন পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার Paytm এবং টেলিকম সংস্থা Airtel-এর সাথে কথা বলেছে পাবজি। শুধু তাই নয়, দক্ষিণ কোরিয়ার সংস্থাটি ইউজারদের ডেটা রেসিডেন্সী এবং সিকিউরিটি সম্পর্কে নয়াদিল্লির উদ্বেগ নিরসনে তার বিশ্বব্যাপী ক্লাউড সার্ভিস প্রোভাইডারদের সাথেও আলোচনা চালাচ্ছে। মনে করা হচ্ছে, চলতি সপ্তাহের মধ্যেই সংস্থাটি এই বিষয় সম্পর্কিত ঘোষণা করতে পারে।

প্রসঙ্গত, ব্যান হওয়ার সময় ভারতে পাবজির অ্যাক্টিভ মান্থলি ইউজারের সংখ্যা ছিল প্রায় ৫০ মিলিয়ন। ফলে নিষিদ্ধ হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই গেমটির আয় কমেছে। আর তাই হাল না ছেড়ে ভারতে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠেছে সংস্থাটি। তবে সাম্প্রতিক প্রতিবেদনগুলিতে দেখা গেছে পাবজি ব্যান হওয়ার পর বেশির ভাগ প্লেয়ারই Call Of Duty এবং FreeFire-এর ​​মত বিকল্প গেম উপভোগ করছে। আবার এই মাসের মধ্যেই দেশীয় ব্যাটেল-রয়্যাল গেম FAU-G (ফিয়ারলেস অ্যান্ড উইনাইটেড গার্ডস) লঞ্চ হওয়ার কথা আছে। তাই পাবজি ফেরার পরেও আগের মত জনপ্রিয়তা পাবে কিনা সেই নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে!